বড় বাজেটের দুই ছবিই দেখছে দর্শক

ঢাকা, রবিবার, ২৫ জুন ২০১৭ | ১০ আষাঢ় ১৪২৪

বড় বাজেটের দুই ছবিই দেখছে দর্শক

পরিবর্তন প্রতিবেদক ৯:২৫ পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ১০, ২০১৬

print
বড় বাজেটের দুই ছবিই দেখছে দর্শক
অনেক বছর পর ঈদ ব্যতীত একসাথে দুটি বড় বাজেটের তারকাবহুল ছবি মুক্তি পেয়েছে—‘পূর্ণদৈর্ঘ্য প্রেম কাহিনি-২' ও ‘অনেক দামে কেনা'। ছবি দুটি নিয়ে দর্শকদের আগে থেকেই বেশ আগ্রহ ছিল। মুক্তির পরপরই ঢাকার বেশ কয়েকটি হলে পরিবর্তন প্রতিবেদক সরেজমিন ঘুরে দেখে এমনটি জেনেছে।

অনেক বছর পর ঈদ ব্যতীত একসাথে দুটি বড় বাজেটের তারকাবহুল ছবি মুক্তি পেয়েছে—‘পূর্ণদৈর্ঘ্য প্রেম কাহিনি-২' ও ‘অনেক দামে কেনা'। ছবি দুটি নিয়ে দর্শকদের আগে থেকেই বেশ আগ্রহ ছিল। মুক্তির পরপরই ঢাকার বেশ কয়েকটি হলে পরিবর্তন প্রতিবেদক সরেজমিন ঘুরে দেখে এমনটি জেনেছে।

ঢাকার ‘মধুমিতা’ হলে চলছে ‘অনেক দামে কেনা’। বিকেল তিনটার শোতে হলের ভেতরে প্রবেশ করে বেশ দর্শকের দেখা মেলে। মাহি, বাপ্পি বহুদিন পর একসাথে অভিনয় করেছেন- অনেক দর্শক তাদের কাজ দেখার জন্য এসেছেন। দর্শক মাহির পর্দা উপস্থিতির সময় বেশ শিস বাজাচ্ছিলেন। কিন্তু মামুন নামের এক দর্শক বললেন, সবই ঠিক আছে, মাহি তো গরীব ঘরের একজন মেয়ে- তার পোষাক এত দামি হবে কেন? তবে বহু বছর পর পর্দায় এসেছেন ডিপজল। তার বেশিরভাগ সংলাপের সময় মুর্হুমুর্হু হাততালি পড়ছিল। কিন্তু কেন জানি তার চরিত্রটি ওইভাবে প্রথমদিকে ফুটে উঠেনি। বিশেষ করে তাকে শহরের একজন প্রভাবশালী হিসেবে দেখানো হচ্ছে কিন্তু তার শত্রু তাকে খুন করতে চায়- অথচ তাদের দ্বন্দ্বের কারণ অজানা। পরিচালক জাকির হোসেন রাজু এ বিষয়টি পরিষ্কার করতে পারেননি। তবে ছবির প্রতিটি গান দর্শকরা বেশ উপভোগ করেছেন। হল ম্যানেজারের সাথে কথা বলে জানা যায় সারাদিনে তাদের প্রায় সত্তর শতাংশ টিকেট বিক্রি হয়েছে।

‘অনেক দামে কেনা’ দেখা শেষে বলাকায় ‘পূর্ণদৈর্ঘ্য প্রেম কাহিনি-২’ দেখতে যাওয়া। এক হাজার ধারণ ক্ষমতার হলে প্রায় ৮৫০ জনের মত দর্শক ছিল। এ সিরিজের প্রথম ছবিতে জয়া আহসানের মেকআপ নিয়ে সমালোচনা হয়েছিল- এ পর্বে তা করার সুযোগ রাখেননি পরিচালক। ছবিতে শহীদুল ইসলাম সাচ্চুর কমেডি খুব একটা জমেনি। তবে সাদেক বাচ্চুর কমেডিতে দর্শককে হাততালি দিতে দেখা গেছে। শাকিব খানের অভিনয় দেখে সুমন নামে একজন দর্শক বলেন, ‘শাকিব দুর্দান্ত করেছে বলব না, কিন্তু অনেক সুন্দর অভিনয় করেছেন’। তবে দর্শকরা ছবিটির সংলাপগুলো বেশ উপভোগ করছিলেন- এর জন্য পরিচালক রুম্মান রশীদ খান প্রশংসার দাবিদার। তবে যেহেতু ক্রিকেট নিয়ে ছবি ও শাকিব জাতীয় দলে অধিনায়ক। তাহলে কীভাবে সে প্রেমিকাকে উদ্ধারে গেল- সে প্রশ্নের জবাব কিন্তু দেওয়া হয়নি। দর্শকের চোখ এরকম বেশকিছু ভুল ঠিকই ধরেছে।

দর্শক দুটি ছবিতেই বেশ আনন্দ পাচ্ছেন ও সপরিবারে এসে ছবি দেখছেন। প্রথম সেল রিপোর্ট দুটি ছবিরই ভালো। যদিও শাকিব কিছুটা এগিয়ে। কিন্তু সোমবার আসার আগে বোঝা যাবে না কোন ছবিটি এগিয়ে থাকবে। ছবি দুটি আবার পয়লা বৈশাখে অধিকাংশ হলে হাউজফুল যাবে- এমনটাই আশা করছেন হল মালিকরা। তাই বলা যায় সব মিলিয়ে বছরের প্রথম সুপারহিট হতে যাচ্ছেে এই দুই ছবি।

এজেডএস/এইচএসএম

print
 

আলোচিত সংবাদ