স্মার্টফোনেই পাসপোর্ট!

ঢাকা, রবিবার, ২৫ জুন ২০১৭ | ১১ আষাঢ় ১৪২৪

স্মার্টফোনেই পাসপোর্ট!

পরিবর্তন প্রতিবেদক ৯:৪১ পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ১১, ২০১৬

print
স্মার্টফোনেই পাসপোর্ট!
বিদেশযাত্রার জন্য বিমানবন্দরে যাওয়ার পথে পাসপোর্ট ভুলে বাড়িতেই ফেলে আসার ঘটনা ঘটেছে কখনো? অতীতে যা হয়েছে, তা পাল্টানো না গেলেও ভবিষ্যতে এমন ভুল হলেও ছটফট করার কিছুই নেই। ব্রিটেনভিত্তিক বাণিজ্যিক ব্যাংকনোট মুদ্রণকারী ও পাসপোর্ট নির্মাতা একটি প্রতিষ্ঠান এমন এক প্রযুক্তির ওপর কাজ করছে, যার মাধ্যমে স্মার্টফোনই কাজ করবে ‘কাগজবিহীন পাসপোর্ট’ হিসেবে। 

বিদেশযাত্রার জন্য বিমানবন্দরে যাওয়ার পথে পাসপোর্ট ভুলে বাড়িতেই ফেলে আসার ঘটনা ঘটেছে কখনো? অতীতে যা হয়েছে, তা পাল্টানো না গেলেও ভবিষ্যতে এমন ভুল হলেও ছটফট করার কিছুই নেই। ব্রিটেনভিত্তিক বাণিজ্যিক ব্যাংকনোট মুদ্রণকারী ও পাসপোর্ট নির্মাতা একটি প্রতিষ্ঠান এমন এক প্রযুক্তির ওপর কাজ করছে, যার মাধ্যমে স্মার্টফোনই কাজ করবে ‘কাগজবিহীন পাসপোর্ট’ হিসেবে।

টেলিগ্রাফ জানিয়েছে, নতুন এই প্রযুক্তির মাধ্যমে সফরকারী ব্যক্তিরা কোনোরকম কাগজপত্র ছাড়াই ঘুরে বেড়াতে পারবেন এবং তাদের ‘কাগজবিহীন পাসপোর্ট’ মুঠোফোনভিত্তিক বোর্ডিং কার্ডের মতোই কাজ করবে। মোবাইল বোর্ডিং কার্ডের মাধ্যমে পর্যটকরা কোনোরকম কাগজপত্র ছাড়াই বিমানবন্দরের ছাড়পত্র পেয়ে থাকেন।

প্রতিষ্ঠানটির এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, যাত্রার কাজ সহজ করে ফেলার জন্য আরো অনেকরকম পদক্ষেপের মধ্যে একটি হলো কাগজবিহীন পাসপোর্ট, যা নিয়ে কাজ চলছে। তবে এখনো কাজের খুব একটা অগ্রগতি হয়নি, একদম প্রাথমিক পর্যায়ের কাজ চলছে।

তবে পাসপোর্ট হিসেবে কাজ করা স্মার্টফোন কোনোভাবে হারিয়ে গেলে এর মাধ্যমে নানারকম জালিয়াতি ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে বাধাবিপত্তির আশঙ্কা থেকেই যায়। সেক্ষেত্রে নিরাপত্তাহীনতার ঝুঁকি বেড়ে যাবে বলে এ ধরনের ‘কাগজবিহীন পাসপোর্ট’কে অনেক জটিলতার মধ্য দিয়ে যেতে হবে।

প্রুফপয়েন্ট নামের একটি নিরাপত্তা সংস্থার কর্মকর্তা ডেভিড জেভানস্‌ জানান, ‘মুঠোফোনে ডিজিটাল পাসপোর্টের অর্থ হলো, এর জন্য ফোনে নতুন যন্ত্র যোগ করতে হবে। যেন ইলেকট্রনিক পাসপোর্ট নিরাপদে সংরক্ষণ করা সম্ভব হয় এবং ফোন থেকে কোনোভাবেই পাসপোর্টের অনুলিপি তৈরি করা সম্ভব না হয়।’

এছাড়া এ ধরনের পাসপোর্টের ক্ষেত্রে বিমানবন্দরে ‘পাসপোর্ট রিডার’-এর সঙ্গে তারবিহীন যোগাযোগ নিশ্চিত করতে হবে। কারণ বিমানের টিকেটের কিউআর কোডের মতো কাগজবিহীন পাসপোর্টের তথ্যগুলো প্রকাশ্যে পর্দায় ভেসে উঠলে সেগুলোর অনুলিপি তৈরি বা অন্যান্য প্রতারণামূলক কর্মকাণ্ডের আশঙ্কা বেড়ে যাবে বলেও জানান তিনি।

‘কাগজবিহীন পাসপোর্ট’ সেবার ব্যবহার এরইমধ্যে পরীক্ষামূলকভাবে চালু হয়েছে।

এনকে/এসজে

 

print
 

আলোচিত সংবাদ