'খুনের দায় নির্বাচন কমিশন নেবে না'

ঢাকা, রবিবার, ২৫ জুন ২০১৭ | ১১ আষাঢ় ১৪২৪

'খুনের দায় নির্বাচন কমিশন নেবে না'

পরিবর্তন প্রতিবেদক ৮:৪৬ পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ১১, ২০১৬

print
'খুনের দায় নির্বাচন কমিশন নেবে না'
ভোট কেন্দ্রের বাইরের সহিংসতা ও খুনের দায় নির্বাচন কমিশন নেবে না বলে মন্তব্য করেছেন নির্বাচন কমিশনার মোহাম্মদ আবু হাফিজ। রোববার দুপুরে লালমনিরহাট জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে চলমান নির্বাচনী আচরণবিধি ও আইন-শৃঙ্খলা বিষয়ক মত বিনিময় সভা শেষে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন। 

ভোট কেন্দ্রের বাইরের সহিংসতা ও খুনের দায় নির্বাচন কমিশন নেবে না বলে মন্তব্য করেছেন নির্বাচন কমিশনার মোহাম্মদ আবু হাফিজ। রোববার দুপুরে লালমনিরহাট জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে চলমান নির্বাচনী আচরণবিধি ও আইন-শৃঙ্খলা বিষয়ক মত বিনিময় সভা শেষে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, 'ভোট কেন্দ্রের বাইরের খুনের দায় নির্বাচন কমিশন নেবে না। যারা ভোট করেছেন, সহিংসতা করেছেন এই দায় তাদেরকেই নিতে হবে।'

স্থানীয় নির্বাচনে সহিংসতা কাম্য নয় উল্লেখ করে তিনি বলেন, 'এসব ঘটনার যাতে পুনরাবৃত্তি না ঘটে সেজন্যে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।' এছাড়া চলমান ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনী পরিবেশ স্বাভাবিক বলেও তিনি দাবি করেন।

সদ্য বিলুপ্ত ছিটমহলগুলোর ভোটের বিষয়ে জানতে চাইলে নির্বাচন কমিশনার বলেন, অধুনা বিলুপ্ত ছিটমহলগুলোর নির্বাচন আপাতত স্থগিত রয়েছে। ভোটার তালিকা হালনাগাদ কার্যক্রম শেষ হলেই এসব ইউনিয়নের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

লালমনিরহাট জেলা প্রশাসক হাবিবুর রহমানের সভাপতিত্বে মত বিনিময় সভায় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন লালমনিরহাট জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ফজলুল করীম, পুলিশ সুপার টিএম মোজাহিদুল ইসলাম, পাটগ্রাম উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নূর কুতুবুল আলম, কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহীনুর রহমান, আদিতমারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জহুরুল ইসলাম, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শফিকুল ইসলাম প্রমুখ।

আগামী ২৩ এপ্রিল তৃতীয় ধাপে ৬৮৫ ইউনিয়নে ভোটগ্রহণ হবে।

স্থানীয় সরকার (ইউনিয়ন পরিষদ) আইন, ২০০৯-এর ২৯ (৩) ধারা অনুযায়ী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের তারিখ পাঁচ বছর পূর্ণ হওয়ার আগের ১৮০ দিনের মধ্যে নির্বাচন করার বিধান রয়েছে। এ হিসাবে গত বছরের অক্টোবর থেকে চলতি বছরের জুনের মধ্যে সবগুলো ইউপির নির্বাচন শেষ করার বাধ্যবাধকতা রয়েছে।

দেশে ১৯৭৩, ১৯৭৭, ১৯৮৩, ১৯৮৮, ১৯৯২, ১৯৯৭, ২০০৩ এবং ২০১১ সালে মোট আটবার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন হয়েছে।

এআই/জেআই/একে

 

print
 

আলোচিত সংবাদ