মুসলিম বিশ্বে সৌদি আরবকে গুরুত্বপূর্ণ করে তুলতে ট্রাম্পের সফর

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ অক্টোবর ২০১৭ | ৪ কার্তিক ১৪২৪

মুসলিম বিশ্বে সৌদি আরবকে গুরুত্বপূর্ণ করে তুলতে ট্রাম্পের সফর

পরিবর্তন ডেস্ক ১:৪৬ পূর্বাহ্ণ, মে ২০, ২০১৭

print
মুসলিম বিশ্বে সৌদি আরবকে গুরুত্বপূর্ণ করে তুলতে ট্রাম্পের সফর

আরব ও মুসলিম বিশ্বের প্রধান সহযোগী হিসেবে যুক্তরাষ্ট্র প্রশাসনকে আরো শক্তিশালী করার বিষয়টিই প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ট ট্রাম্পের প্রথম সৌদি আরব সফরে প্রাধান্য পাচ্ছে। সেইসাথে সৌদি আরব যেন মুসলিম বিশ্বে রাজনৈতিকভাবে নেতৃত্ব দেয়, যুক্তরাষ্ট্রের এ মনোভাব তুলে ধরতে চান ট্রাম্প।  

রিয়াদে ট্রাম্পের দু'দিনের এ সফরে সৌদি সরকারের সঙ্গে সামরিক, অর্থনৈতিক ও সন্ত্রাসবিরোধী দ্বিপাক্ষিক চুক্তি স্বাক্ষর করার পরিকল্পনা রয়েছে। এবং ওবামার মেয়াদে রিয়াদ এবং ওয়াশিংটনের মধ্যকার দূরত্ব নিরসনের ইঙ্গিত দেন তিনি।

গত সপ্তাহে ওয়াশিংটন সফরকালে, এটিকে যে কোন দিক দিয়ে ঐতিহাসিক সফর হিসেব মন্তব্য করেন সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রী আদেল আল জাবির। তিনি আরো বলেন, “বিশ্বের সন্ত্রাসবাদ ও চরমপন্থার মোকাবেলায় সোদি আরব যুক্তরাষ্ট্রের নিকটতম মিত্র। আমরাই আরব বিশ্বে শান্তি প্রতিষ্ঠায় ফিলিস্তিনের সংঘাত নিরসনে প্রস্তাব দিয়েছি। সৌদি আরব মার্কিন অর্থনীতিতে বিপুল পরিমান বিনিয়োগ করে থাকে এবং যৌথ অংশীদার। সেইসাথে আমরা বিশ্বের সবচেয়ে বেশি তেল রপ্তানিকারক দেশও।”

দুই দিনের এ গুরুত্বপূর্ণ সফরে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প দ্বিপাক্ষিক বৈঠকের পাশাপাশি ছয়টি উপসাগরীয় অঞ্চলের সিক্স গালফ কোঅপারেশন কাউন্সিলের সম্মেলনে উপস্থিত থাকবেন। সৌদি আরবের আমন্ত্রণে প্রায় ৫০ টিরও বেশি সংখ্যাগরিষ্ঠ মুসলিম দেশের নেতাদের সঙ্গে এক মধ্যাহ্নভোজেও বক্তব্য দিবেন তিনি।

ইসরায়েলের জেরুজালেম এবং ভ্যাটিকেন ঘুরে ট্রাম্পের নয় দিনের এ সফর শেষ হবে  ব্রাসেলসে  ন্যাটো এবং ইউরোপীয় ইউনিয়নের সদরদপ্তর পরিদর্শনের মাধ্যমে। সেইসাথে সিসিলিতে জি৭ এর এক সম্মেলনে যোগ দিবেন তিনি। ২৭ মে তিনি দেশে ফিরবেন। সূত্র:বিবিসি

আরজি

print
 

আলোচিত সংবাদ

nilsagor ad