ধনী আরব দেশগুলো থেকে টাকা চান ট্রাম্প

ঢাকা, বুধবার, ২৩ মে ২০১৮ | ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫

ধনী আরব দেশগুলো থেকে টাকা চান ট্রাম্প

পরিবর্তন ডেস্ক ১০:০০ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ২৫, ২০১৮

print
ধনী আরব দেশগুলো থেকে টাকা চান ট্রাম্প

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, ‘আমেরিকান প্রোটেকশন অর্থাৎ যুক্তরাষ্ট্রের সুরক্ষা’ পেতে হলে মধ্যপ্রাচ্যের কয়েকটি দেশকে টাকা দিতে হবে। একইসঙ্গে তাদের নিজেদের সৈন্য সিরিয়ায় মোতায়েন করতে হবে। কাতারভিত্তিক গণমাধ্যম আলজাজিরা জানিয়েছে, মঙ্গলবার ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রনের সঙ্গে একটি সংবাদ সম্মেলনে ট্রাম্প বলেন, আরব দেশগুলো যুক্তরাষ্ট্রের সহায়তা ছাড়া ‘এক সপ্তাহও টিকবে না’।

তিনি বলেন, ‘ওই অঞ্চলের কয়েকটি অত্যন্ত ধনী দেশ রয়েছে এবং যুক্তরাষ্ট্র ও কিছুটা ফ্রান্সেরও সহায়তা ছাড়া সেগুলো ওখানে থাকবে না। আমরা তাদেরকে সুরক্ষা দিচ্ছি। এখন তাদেরকে এগিয়ে আসতে হবে এবং যা ঘটছে তার জন্য মূল্য দিতে হবে।’

ট্রাম্প কোনো দেশের নাম বলেননি। কিন্তু জোর দিয়ে বলেছেন, ‘ওরা মূল্য পরিশোধ করবে এবং ভূমিতেও সৈন্য মোতায়েন করবে।’

ট্রাম্প সিরিয়া থেকে যুক্তরাষ্ট্রের সৈন্য ফিরিয়ে আনার সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসে মঙ্গলবার জোর দিয়ে বলেছেন, ওই অঞ্চলে তারা ইরানকে আধিপত্য বিস্তার করতে দিবেন না।

আলজাজিরা জানিয়েছে, ট্রাম্পের মন্তব্যের পর সৌদি আরবের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আদেল আল-জুবায়ের বলেছেন, সিরিয়ায় যুক্তরাষ্ট্রের উপস্থিতির জন্য কাতারকে টাকা দিতে হবে। কাতারে যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক ঘাঁটি রয়েছে।

আল-জুবায়ের আরো বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্র সৈন্য সরিয়ে নিলে এক সপ্তাহের মধ্যে কাতার সরকারের পতন ঘটবে।’

দোহা থেকে ৩০ কিলোমিটার দূরে যুক্তরাষ্ট্রের একটি ঘাঁটি রয়েছে যেখানে বর্তমানে নয় হাজারেরও বেশি মার্কিন সৈন্য রয়েছে। সৈন্যদের বেশিরভাগই বিমান বাহিনীর আর সেখানে রয়েছে ১০০টি যুদ্ধবিমান। এটি সেখানে যুক্তরাষ্ট্রের সেন্ট্রাল কমান্ডের প্রধান বিমান আক্রমণ পরিচালনা কেন্দ্র।

এমআর/এমএসআই

 
.

Best Electronics Products



আলোচিত সংবাদ

nilsagor ad