আসলামুল, বিআরটিসির কর্তাদের ধমকালেন কাদের

ঢাকা, বুধবার, ২৫ এপ্রিল ২০১৮ | ১২ বৈশাখ ১৪২৫

আসলামুল, বিআরটিসির কর্তাদের ধমকালেন কাদের

কাজী এহসান বিন দিদার ২:৫৯ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ১৭, ২০১৭

print
আসলামুল, বিআরটিসির কর্তাদের ধমকালেন কাদের

ঢাকা-১৪ আসনের সংসদ সদস্য আসলামুল হক এবং বিআরটিসির কর্মকর্তাদের ধমকিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। রোববার সকালে গাবতলীতে বিআরটিসির বাস ডিপো উদ্বোধন করার পর বক্তৃতার মঞ্চে যান তিনি। সেখানে তার চোখে পড়ে বিশেষ অতিথির (আসলামুল হক) চেয়ারসহ অনেকগুলো চেয়ার খালি।

তখন মন্ত্রী রাগান্বিত কন্ঠে নিজের আর অন্য তিন অতিথির চেয়ার মঞ্চে রেখে বাকিগুলো নামিয়ে ফেলতে বলেন। এসময় তিনি অনুষ্ঠানের আয়োজক বিআরটিসির কর্মকর্তাদের আসলামুল হকের কথা জিজ্ঞেস করেন। 

ওবায়দুল কাদের বিআরটিসির কর্মকর্তাদের বলেন, কী ব্যাপার, তোমাদের সম্মানিত বিশেষ অতিথি কোথায়?’ 

আসলামুল হকের আসতে হবার কারণে ওবায়দুল কাদের অপেক্ষা না করে তার বক্তব্য প্রদান করেন। তার বক্তব্য শেষ হবার মুহুর্তে আসলামুল হক অনুষ্ঠানস্থলে পৌঁছান। তাকে মন্ত্রী ডেকে নিজের পাশের চেয়ারে বসান। এসময় মন্ত্রীকে বারবারই তাকে (আসলামুল) কিছু বলতে দেখা যায়। আর আসলামুল কিছু বলতে গেলেই তিনি হাত দেখিয়ে থামিয়ে দেন। 

পরে ওবায়দুল কাদের অনুষ্ঠানস্থল ত্যাগ করার সময় আসলামুলকে বলেন, ‘সবাই ভিআইপি। তোমরা তো তুলনাহীন। ভিআইপিরা অনুষ্ঠানে আসতে দেরি করে। চিফ গেষ্ট এসে বসে থাকে। আর অন্যদের খবর থাকে না।  তোমার কী এমন ব্যস্ততা? কেনো দেরি করে আসছো?’ 

এ প্রসঙ্গে আসলামুল হক পরিবর্তন ডটকমকে বলেন, ‘দোষ আমারই। আমার কখনো দেরি হয় না। আজ হলো। আর কাদের ভাই খুব পাংচুয়াল। যেকোনো প্রোগ্রামে একদম ইন-টাইমে পৌছান। তিনি কোনো ধরনের অনিয়মই পছন্দ করেন না। আমার উচিত ছিলো আরো আগে বের হওয়া।’ 

অনুষ্ঠান চলাকালীন বিআরটিসি বাস চালকরা ওবায়দুল কাদেরের কাছে নিজেদের ছয় মাসের বকেয়া বেতনও দাবী করেন। পরে মন্ত্রী বকেয়া বেতন পরিশোধে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়ার নির্দেশ দেন। 

মন্ত্রী বিআরটিসি কর্মকর্তাদের বলেন, ‘যে টাকা দিয়ে মঞ্চ বানাইছো, সে টাকা দিয়ে তো ওদের বেতন হয়ে যেতো। সবাই ভালো হয়ে যাও। বেতন ঝুলে আছে, এ খবর আমার কানে যাতে আর না আসে।’ 

এছাড়া, অনুষ্ঠানে খাবারের আয়োজনে ক্ষুব্ধ হয়ে তিনি বিআরটিসির কর্মকর্তাদের বলেন, ‘তোমরা খাবারের আয়োজন করেছো আলাদা আলাদাভাবে। আমার জন্য একরকম মেন্যু, বাকিদের জন্য আরেকরকম। এটা ঠিক না। আল্লাহ্ও নারাজ হয়ে যাবেন। সবাই যা খাবে, আমরাও তাই খাবো। আর এরকম করবা না। কেউ শুধু শাক ভাজি, আর কেউ মুরগি ভাজি খাবে, এটা হতে পারে না।’ 

কেইবিডি/এএসটি
আরও পড়ুন...
আমরা সুপারম্যান না : কাদের

 
.

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ





আলোচিত সংবাদ

nilsagor ad