‘ফেসবুকে রোহিঙ্গা নির্যাতনের ছবি সরানো হচ্ছে’

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৭ | ৩০ অগ্রহায়ণ ১৪২৪

‘ফেসবুকে রোহিঙ্গা নির্যাতনের ছবি সরানো হচ্ছে’

পরিবর্তন প্রতিবেদক ৫:৩৮ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৩, ২০১৭

print
‘ফেসবুকে রোহিঙ্গা নির্যাতনের ছবি সরানো হচ্ছে’

মিয়ানমারে নির্যাতনের শিকার রোহিঙ্গাদের বিভৎস ছবি বাংলাদেশের ফেসবুক ব্যবহারকারীরা ছড়িয়ে দিচ্ছে। এ থেকে যে কোনো ধরনের সাম্প্রদায়িক উস্কানী ও হাঙ্গামার সৃষ্টি হতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন সরকারের ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম।

.

দেখা গেছে, রোহিঙ্গা নির্যাতনের কিছু ছবি বাংলাদেশে ব্যবহার করা ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে। সেই ছবির কমেন্টে অনেকে আবার ধর্ম নিয়েও নিজের মতামত প্রকাশ করেছেন।

এমন অনেক উস্কানীমূলক পোস্ট বেশ কয়েক মাস ধরে বাংলাদেশের ফেসবুক ব্যবহারকারী অনেকের ওয়ালে দেখা গেছে বা যাচ্ছে।

ফেসবুক থেকে এ সব বিভৎস ছবি ও উস্কানীমূলক পোস্ট সরিয়ে ফেলছে। বাংলাদেশ সরকারও ফেসবুক থেকে কিছু ছবি সরিয়ে ফেলার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ করেছে।

শনিবার বিটিআরসি কনফারেন্স রুমে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম বলেন, রোহিঙ্গা নির্যাতনের কিছু বিভৎস ছবি ফেসবুক সরিয়ে ফেলছে। আমরাও কিছু ছবি ফেসবুক থেকে সরিয়ে ফেলার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে লিংক দিয়ে অনুরোধ করেছি।

তিনি বলেন, সাম্প্রদায়িক উস্কানী দেওয়া কোনো পোস্ট ফেসবুকে ভাইরাল হতে দেওয়া যাবে না। তাহলে দেশের মধ্যে অস্থিরতা দেখা দিবে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, অনেক ক্ষেত্রে মনিটরিং করা সম্ভব হচ্ছে না। দেশের বাইরে থেকে ধারাবাহিকভাবে অনেক পোস্ট দিচ্ছে। তবুও ফেসবুক ও আইআইডি লকের সমন্বয়ে আমরা বিভৎস ছবি সরিয়ে ফেলার কাজ চালিয়ে যাচ্ছি।

সরকারের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ থেকে জানা গেছে, বর্তমানে দেশে ২ কোটি ৩৩ লাখের উপরে মানুষ ফেসবুক ব্যবহার করছে। আর দেশের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহারকারীদের মধ্যে ফেসবুক ব্যবহারকারী ৯৯ শতাংশ। যাদের অধিকাংশের বয়স ১৮ থেকে ৩৪ বছরের মধ্যে।

এতো লোকের ফেসবুক থেকে যদি ছবি ছড়িয়ে পড়ে তা কিভাবে সরকার মোকাবেলা করবে, তাই এক্ষেত্রে এ ধরনের ছবি প্রচারে সচেতন হবার পরামর্শ দিয়েছেন প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম।

ফেসবুকে বিভৎস ছবি ছড়িয়ে পড়ার বিষয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থার নজরদারি অব্যাহত রয়েছে বলেও জানান তিনি।

এফবি/এসবি

শরণার্থী ক্যাম্পগুলোতে বসছে টেলিটক বুথ

print
 

আলোচিত সংবাদ

nilsagor ad