মেডিকেল রিপোর্টের ভিত্তিতেই খালেদার জামিন নাকচ: আইনমন্ত্রী

ঢাকা, সোমবার, ২৭ জানুয়ারি ২০২০ | ১৪ মাঘ ১৪২৬

মেডিকেল রিপোর্টের ভিত্তিতেই খালেদার জামিন নাকচ: আইনমন্ত্রী

সচিবালয় প্রতিবেদক ৪:২০ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ১২, ২০১৯

মেডিকেল রিপোর্টের ভিত্তিতেই খালেদার জামিন নাকচ: আইনমন্ত্রী

মেডিকেল রিপোর্ট বিবেচনা করেই আপিল বিভাগ বিএনপি চেয়ারপারসনের জামিন আবেদন নাকচ করে দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়কমন্ত্রী আনিসুল হক।

বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে নিজ দফতরে খালেদা জিয়ার জামিনের বিষয়ে সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে তিনি এসব বলেন।

আইনমন্ত্রী বলেন, ‘আদালতের কাছে তারা জামিন চেয়েছিলেন, জামিনের দরখাস্তের প্রেক্ষিতে ৫ ডিসেম্বর আদালত বলেছিলেন যে একটি মেডিকেল রিপোর্ট তাদের সামনে উপস্থাপন করার জন্য এবং সেই মেডিকেল রিপোর্ট উপস্থাপন করার পরে সেটা বিবেচনা করবেন। আমি যতটুকু জেনেছি আপিল বিভাগ এই মেডিকেল রিপোর্ট পড়েছেন এবং তারা তাদের বিবেচনায় দেখেছেন যে এখানে চিকিৎসা করা যায়, এটা তাদের অবজারভেশনে আছে বলে আমি শুনেছি।’

তিনি জানান, ‘জামিনের আবেদন নাকচ করে দিয়েছেন আপিল বিভাগ। ৬ জন বিচারপতি এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, তারা নিশ্চয়ই যথেষ্ট বিবেচনা করেছেন এবং বিবেচনায় তারা সে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। আমরা যেহেতু আইনের শাসনে বিশ্বাস করি সেটা আমাদেরকে মানতে হবে।’

মন্ত্রী  বলেন, ‘আমি মনে করি অবজারভেশন যেটা হয়েছে তার আলোকে খালেদা জিয়ার চিকিৎসার ব্যাপারে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল কলেজের কিছু করণীয় থাকলে তারা নিশ্চয়ই তা করবেন।’

বিএনপি বলেছে আদালতে যে মেডিকেল রিপোর্ট উপস্থাপন করা হয়েছে সেটি সঠিক নয় এমন মন্তব্যের জবাবে আইনমন্ত্রী বলেন, ‘গত শুনানির প্রথম দিন আপনারা দেখেছেন তারা আদালত কক্ষে কি তাণ্ডব সৃষ্টি করেছিল। আমি তখন বলেছিলাম যে, যখনই এমন কিছু হয় যেটা তাদের পক্ষে যায় না, তা যত যুক্তিযুক্ত থাকুক এটা ওনারা (বিএনপি) অভ্যাসগতভাবে বলেন এটা ঠিক না। এই ক্ষেত্রে ৬ জন ডাক্তার পরীক্ষা করে তাদের মতামত দিয়েছেন বলে আমি শুনেছি। তারা (বিএনপি নেতা) কেউ ডাক্তার না। আসল ডাক্তার যারা তারা যেহেতু প্রতিবেদন দিয়েছেন এবং সেটা সর্বোচ্চ আদালতে দিয়েছেন সেই ক্ষেত্রে সেটা সম্পর্কে সন্দেহ তারা করতে পারেন, আমি করি না।’

আনিসুল হক বলেন, ‘আদালত মেডিকেল রিপোর্ট বিবেচনা করেছেন এবং সর্বোচ্চ আদালত বিবেচনা শেষে এই সিদ্ধান্তে উপনীত হয়েছেন যে, মেডিকেল রিপোর্ট অনুযায়ী তার (খালেদা) যে অবস্থা সেখানে জামিন দিয়ে তাকে অন্য কোথাও চিকিৎসা করার প্রয়োজন নেই। বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজে যে চিকিৎসা হচ্ছে সেটাই যথেষ্ট।’

যে মেডিকেল রিপোর্ট দেয়া হয়েছে তা ভুলভাবে উপস্থাপন করা হবে বলে ফখরুলের মন্তব্যের জবাবে আইনমন্ত্রী বলেন, ‘তাদের পছন্দমতো রিপোর্ট যেটি হবে না, সেটাই ভুল। তাদের পছন্দমতো যদি অন্যায় কিছু হয়, সেটা সঠিক। তার ওপরে ভরসা করে কেউ সিদ্ধান্ত দেবে না।’

যে কাগজপত্র আছে সেটা দেখিয়ে উচ্চ আদালত নিশ্চয়ই সিদ্ধান্ত দিয়েছেন এবং আমি যেহেতু আইনের শাসনে বিশ্বাস করি, তাই মনে করি সর্বোচ্চ আদালত যে সিদ্ধান্ত দিয়েছেন সেটাই আমাকে মেনে নিতে হবে বলে জানান আইনমন্ত্রী আনিসুল হক।

এসএস/এইচআর

 

জাতীয়: আরও পড়ুন

আরও