ক্যাসিনো ‘গডফাদার’ ছিলেন সম্রাট
Back to Top

ঢাকা, বুধবার, ৮ এপ্রিল ২০২০ | ২৫ চৈত্র ১৪২৬

ক্যাসিনো ‘গডফাদার’ ছিলেন সম্রাট

পরিবর্তন প্রতিবেদক ১:৪২ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ০৬, ২০১৯

ক্যাসিনো ‘গডফাদার’ ছিলেন সম্রাট

ক্যাসিনোবিরোধী অভিযানের ২১ দিন পর সুনির্দিষ্ট তথ্যের ভিত্তিতেই র‌্যাবের হাতে ধরা পড়লেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সভাপতি ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাট। রাজধানীর প্রায় সব ক্যাসিনো ছিল সম্রাটের নিয়ন্ত্রণে।তার ইশারায় চলত এসব অবৈধ ক্যাসিনো। ক্যাসিনো থেকে আয় করা কোটি কোটি টাকা প্রতিদিনই চলে যেত ক্যাসিনোর গডফাদার হিসেবে পরিচিত দক্ষিণ যুবলীগের এই নেতার পকেটে।তিনিই ছিলেন মূলত ক্যাসিনোর গডফাদার।

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে নানা অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগের মুখে গত ১৪ সেপ্টেম্বর ছাত্রলীগ সভাপতি শোভন ও সাধারণ সম্পাদক রাব্বানীকে পদ থেকে অপসারণের পর যুবলীগ নেতারাও বিভিন্ন অপকর্মে জড়িত সেই ব্যাপারে ব্যবস্থা নিতে কড়া নির্দেশনা প্রদান করেছিলেন তিনি। এর পর থেকেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম, গণমাধ্যমসহ নানা মহলে আলোচনায় আসতে শুরু করে যুগলীগ নেতাদের নানা অপকর্ম। এসবের মধ্যেই গত ১৮ সেপ্টেম্বর ক্যাসিনোবিরোধী অভিযানের মধ্য দিয়ে প্রথম দিনই গ্রেফতার হন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়া।তাকে গ্রেফতারের মধ্য দিয়ে বের হয়ে আসতে থাকে অবৈধ ক্যাসিনোর সাথে জড়িতদের নাম। তার পরই গ্রেফতার হয় আরো দুই ক্যাসিনো ব্যবসায়ী শফিকুল আলম ফিরোজ ও জি কে শামীম। এরপর অনলাইস ক্যাসিনো পরিচালনার প্রধানকেও সহযোগিসহ গ্রেফতার করা হয়।

কিন্তু তাদের দেয়া তথ্যে ভিত্তিতে ক্যাসিনোর গডফাদার হিসেবে চিহ্নিত ঢাকা দক্ষিণ যুবলীগের সভাপতি ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাট ছিলেন অধরা। নানা সময় তার নাম আলোচনায় আসলেও এতোদিন ধরাছোঁয়ার বাইরে ছিলেন তিনি।

ক্যাসিনোর এই গডফাদারকে নিয়ে জানা যায়, সিঙ্গাপুরে প্রথম সারির জুয়াড়ি হিসেবে পরিচিতি রয়েছে সম্রাটের। রাজধানীর সব ক্যাসিনোও চলে সম্রাটের ছত্রছায়ায়। প্রতি মাসে চাঁদা বাবদ তার আয় কোটি কোটি টাকা। ক্যাসিনো কাণ্ডে সম্পৃক্ততার অভিযোগ উঠার পর সম্রাট ও তার স্ত্রীর ব্যাংক হিসাব জব্দ করা ও দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়। এর মধ্যে ২৮ সেপ্টেম্বর সম্রাটকে গ্রেফতারের ইঙ্গিত দিয়ে গণমাধ্যমে কথা বলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

এমকে/আরপি

 

রাজধানী: আরও পড়ুন

আরও