তিন জেলায় ডেঙ্গুতে ৩ জনের মৃত্যু
Back to Top

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২ জুন ২০২০ | ১৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

তিন জেলায় ডেঙ্গুতে ৩ জনের মৃত্যু

পরিবর্তন ডেস্ক ৬:৪৭ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১৭, ২০১৯

তিন জেলায় ডেঙ্গুতে ৩ জনের মৃত্যু

ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত আজ শনিবার তিনজনের ‍মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে কিশোরগঞ্জের এক নারী ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এবং ফরিদপুর ও ঝিনাইদহে দুইজনের মৃত্যু হয়েছে।

আমাদের প্রতিবেদক ও জেলা প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর—

ঢাকা:

ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মনোয়ারা বেগম (৪৫) নামে আরও একজনের মৃত্যু হয়েছে।

আজ শনিবার বেলা ১১টার দিকে হাসপাতালের চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

তার স্বামীর নাম মো. সাইফুল ইসলাম। তাদের বাড়ি কিশোরগঞ্জ জেলার মিঠামইন থানার চমকপুর গ্রামে।

সাইফুল ইসলাম জানান, ১০ দিন আগে তার স্ত্রী ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হন। পরে তাকে কিশোরগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে থেকে গত ১৩ আগস্ট ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

ঢামেক হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বেলা ১১টায় চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ফরিদপুর

ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সুমন শেখ (২২) নামে এক কলেজছাত্রের মৃত্যু হয়েছে।

তিনি মাগুরা জেলার চাদঁপুর গ্রামের মিজানুর রহমানের ছেলে।

আজ শনিবার বেলা ১০টার দিকে তার মৃত্যু হয়। এ নিয়ে এই হাসপাতালে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন ৫ জন রোগী।

হাসপাতাল সহকারী পরিচালক মোস্তাফিজুর রহমান জানান, ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে গত ১২ আগস্ট সুমন শেখ ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হয়। এরপর থেকে তার অবস্থা অপরিবর্তিত ছিল। আজ সকালে হঠাৎ করেই অবস্থার অবনতি হয়ে তার মৃত্যু হয়।

ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাপসাতালের ডেঙ্গু কন্ট্রোল রুমের তথ্য মতে, গত ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে ফরিদপুরের হাসপাতালগুলোতে ভর্তি হয়েছেন ৭৭ জন। বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৩৬৬ জন। উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে ১১৮ জনকে। এরমধ্যে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে গত ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি হয়েছে ৪৬ জন রোগী।

গত ২০ জুলাই থেকে ১৭ আগস্ট পর্যন্ত ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে ফরিদপুরের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন মোট ১ হাজার ৪১ জন। এদের মধ্যে চিকিৎসায় সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৫৫৪ জন।

ঝিনাইদহ:

ঝিনাইদহে ডেংঙ্গু আক্রান্ত হয়ে যুবকের মৃত্যু হয়েছে।

শনিবার সকালে ঝিনাইদহের মধুহাটি ইউনিয়নের কান্তা গ্রামে তার মৃত্যু হয়।

মৃতের নাম মিজানুর রহমান (২০)। তিনি সদর উপজেলার কান্তা গ্রামের সুবহান মিয়ার ছেলে।

জানা যায়, মিজানুর ট্রাকের হেলপার ছিলেন। গত এক মাস আগে ঢাকা থেকে ফেরার পর থেকেই তার শরীরে প্রচণ্ড জ্বর আসতে থাকে। স্থানীয় ডাক্তারের কাছে চিকিৎসা নিয়েও তার জ্বর কমেনি। শুক্রবার থেকে বমি শুরু হয়। এরপর হাসপাতালে নেওয়ার পথে আজ ভোরে তার মৃত্যু হয়।

তবে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালের আরএমও ডা. অপূর্ব জানান, তিনি ১০/১২ দিন আগে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। তখন প্রাথমিক পরীক্ষায় তার ডেঙ্গু ধরা পড়েনি। পরে সে বাড়ি চলে যায়।

এসবি

আরও পড়ুন...
ডেঙ্গুতে এবার ঢামেক হাসপাতালে নারীর মৃত্যু
ফরিদপুরে ডেঙ্গুতে কলেজ ছাত্রের মৃত্যু
ঝিনাইদহে ডেংঙ্গুতে যুবকের মৃত্যু

 

: আরও পড়ুন

আরও