নিজ দপ্তরে ওবায়দুল কাদের, ফুলেল শুভেচ্ছা (ভিডিও)
Back to Top

ঢাকা, বুধবার, ২৭ মে ২০২০ | ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

নিজ দপ্তরে ওবায়দুল কাদের, ফুলেল শুভেচ্ছা (ভিডিও)

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক ১০:৪৪ পূর্বাহ্ণ, মে ১৯, ২০১৯

দীর্ঘ দুই মাসেরও বেশি সময় পর সচিবালয়ের নিজ দপ্তরে গেলেন সড়ক পরিবহন ‍ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। আজ রোববার সকাল ১০টার কিছু পর তিনি তার দপ্তরে যান।

এ সময় মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা তাকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান। নিজ দপ্তরে পৌঁছে কিছু গুরুত্বপূর্ণ ফাইলে স্বাক্ষরও করেন ওবায়দুল কাদের।

সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ তথ্য কর্মকর্তা আবু নাসের বলেন, মন্ত্রী মহোদয় অফিসে এসেছেন। সচিবালয়ে সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সভাকক্ষে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন চলমান উন্নয়ন প্রকল্পের অগ্রগতি বিষয়ক সভা এবং গণমাধ্যমের সঙ্গে মতবিনিময় করবেন।

বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে সেতুমন্ত্রীর আসার কথা ছিল। কিন্তু বাসায় দলীয় নেতাকর্মীদের সাক্ষাৎ ও বিশ্রামে থাকায় আসতে পারেননি। অসুস্থতার পর রোববারই হবে সচিবালয়ে তার প্রথম অফিস। 

জানা গেছে, এখন সীমিত পরিসরে কাজ করবেন ওবায়দুল কাদের। দল ও মন্ত্রণালয়ে সাধ্যমতো সময় দেবেন তিনি। তবে পুরোদমে কাজ শুরু করতে আরও মাসখানেক সময় লাগবে। 

দেশে ফেরার পর শুক্রবার আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে দলীয় কর্মসূচিতে অংশ নেন ওবায়দুল কাদের। নেতাদের সঙ্গে নিয়ে দলীয় প্রধানকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছাও জানান এদিন।

প্রসঙ্গত, সিঙ্গাপুরে চিকিৎসা শেষে গত বুধবার ২ মাস ১১ দিন পর দেশে ফেরেন ওবায়দুল কাদের। ওইদিন সন্ধ্যা ৬টার দিকে তাকে বহনকারী বিজি-০৮৫ ফ্লাইটটি হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে।

বাইপাস সার্জারির পর সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতাল থেকে ওবায়দুল কাদের গত ৫ এপ্রিল ছাড়পত্র পান। এর পর থেকে দেশে ফেরার আগ পর্যন্ত তিনি হাসপাতালের কাছেই একটি ভাড়া বাসায় ছিলেন।

গত ২০ মার্চ মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে ওবায়দুল কাদেরের বাইপাস সার্জারি হয়।

তার আগে গত ৩ মার্চ সকালে বুকের ব্যথা নিয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালের করোনারি কেয়ার ইউনিটে (সিসিইউ) ভর্তি হন ওবায়দুল কাদের।

পরে উপমহাদেশের বিখ্যাত হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. দেবী শেঠির পরামর্শে উন্নত চিকিৎসার জন্য ৪ মার্চ তাকে সিঙ্গাপুর নেয়া হয়। ওই রাতেই মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে ডা. ফিলিপ কোহের নেতৃত্বে ওবায়দুল কাদেরের চিকিৎসায় একটি মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়।

পরে গত ২০ মার্চ ওই হাসপাতালে তার বাইপাস সার্জারি করেন মেডিকেল বোর্ডের সিনিয়র সদস্য কার্ডিওথোরাসিক সার্জন ডা. সিবাস্টিন কুমার সামি। শারীরিক অবস্থার উন্নতি হলে গত ২৬ মার্চ ওবায়দুল কাদেরকে হাসপাতালের আইসিইউ থেকে কেবিনে নেয়া হয়।

এসএস/এইচকে/আরপি

 

: আরও পড়ুন

আরও