শীতেও পানি পান পরুন সঠিক নিয়মে
Back to Top

ঢাকা, রবিবার, ২৯ মার্চ ২০২০ | ১৫ চৈত্র ১৪২৬

শীতেও পানি পান পরুন সঠিক নিয়মে

পরিবর্তন ডেস্ক ১০:১৫ পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ১১, ২০২০

শীতেও পানি পান পরুন সঠিক নিয়মে

খাবার ছাড়া কয়েকদিন হাবিজাবি খেয়ে বেঁচে থাকা যায়। কিন্তু পানি ছাড়া বেঁচে থাকা যায় না। ডাক্তাররা একজন সুস্থ মানুষকে প্রতিদিন ৩-৪ লিটার পানি পান করতে বলেন। পানি কম পান করা মানুষ অসুস্থ হয় বেশি। গরমকালে ঘাম বেশি হয় বলে মানুষের পানি খাওয়ার পরিমাণ বেশি থাকে। কিন্তু শীতে ঘাম কম হয় বলে পানি পানের চাহিদা ও পরিমাণ কমে যায়। শীতকালে পানি পান করলে ঠাণ্ডা লাগে, এজন্যও অনেকেই আলসেমি করে পানি পান করেন না। তবে পানি কম পান করলে কিন্তু শীতকালেও দেখা দিতে পারে একাধিক সমস্যা। শরীরে পানির জোগান ঠিক না থাকলে ব্যাহত হয় অনেক শারীরবৃত্তীয় প্রক্রিয়া। শীতকালে পানি কম পানে কি কি সমস্যা হতে পারে জানুন বিস্তারিত।

১. শুষ্ক ত্বক শীতকালে আবহাওয়ার জন্য ত্বক এমনিতেই কিছুটা শুষ্ক থাকে। তাই অনেকে এই বিষয়ে খুব একটা লক্ষ্য করেন না। কিন্তু যদি পানি কম পান করা হয়, তাহলে শরীরে টক্সিনের পরিমাণ অনেকটাই বেড়ে যায়। ফলে ত্বকে ব্রণের মতো একাধিক সমস্যা দেখা দিতে পারে।

২. মাইগ্রেন অনেকের মাইগ্রেন বা মাথা ব্যাথার সমস্যা এমনিতেই থাকে। কিন্তু শীতকালে পানি না খেলে সবার মধ্যেই এই সমস্যা দেখা দিতে পারে। অনেকে ভাবেন হয়তো বেশি কাজ করার জন্য মাথায় যন্ত্রণা করছে। কিন্তু আদতে কারণ অন্য। তাই বেশিক্ষণ মাথা যন্ত্রণা করলে সঙ্গে সঙ্গে বেশি পরিমাণ পানি পান করুন। তাহলে দেখবেন অনেকটা আরাম পাচ্ছেন।

৩. কোষ্ঠকাঠিন্য শীত হোক বা গ্রীষ্ম, পানি কম পান করলে কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা থাকবেই। গরমের সময় এই সমস্যা বাড়লেও শীতকালেও এই সমস্যা দেখা দিতে পারে। যাদের অর্শ বা অন্য কোনো সমস্যা রয়েছে তাদের তো আরো সতর্ক থাকা উচিত।

৪. কম পানি পানে প্রস্রাবের সমস্যা দেখা দিতে পারে। কারণ প্রস্রাবের সময় মূত্রণালী দিয়ে অনেকটা পরিমাণে টক্সিন বাইরে বেরিয়ে যায়। তাই প্রস্রাব করার সময় জ্বালাপোড়া বা ব্যাথা হতে পারে। পানি পর্যাপ্ত পরিমাণে পানে এই জ্বালার পরিমাণ কমে যায়। শরীরের প্রক্রিয়া সচল রাখার জন্য পর্যাপ্ত পানির খুব প্রয়োজন। তাই শীতকাল বলে পানি পানে মোটেও অবহেলা করা যাবে না।

ইসি/

 

স্বাস্থ্য: আরও পড়ুন

আরও