ব্রেস্ট ক্যান্সার প্রতিরোধে গ্রিন টি
Back to Top

ঢাকা, সোমবার, ৩০ মার্চ ২০২০ | ১৬ চৈত্র ১৪২৬

ব্রেস্ট ক্যান্সার প্রতিরোধে গ্রিন টি

পরিবর্তন ডেস্ক ৯:৩৫ পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ০৪, ২০২০

ব্রেস্ট ক্যান্সার প্রতিরোধে গ্রিন টি

চা একটি জনপ্রিয় পানীয়। ঘরোয়া আড্ডায় ও সারাদিনের ক্লান্তি দূর করে দিতে পারে এককাপ চা। তবে চা যদি খেতেই হয় তবে গ্রিন টি খান। গ্রিন টি ওজন কমায়, শরীর ভালো রাখে ও রোগ-প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়।

গ্রিন টি কেনো পান করবেন?  গ্রিন টিতে রয়েছে ফ্লেভোনয়েড নামক একটি উপাদান, যা আসলে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। এটি এমন একটি শক্তিশালী উপাদান যা সব দিক থেকে শরীরকে চাঙ্গা রাখে। গ্রিন টি রোগ-প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। এছাড়া কেটেচিন নামেও একটি উপাদান থাকে এই চায়ে, যা ভিটামিন 'ই' ও 'সি'-এর থেকেও বেশি শক্তিশালী, যা শরীরে প্রবেশ করে একাধিক উপকার করে। তবে গ্রিন টির আরেকটি গুণের কথা আমরা অনেকেই হয়তো জানি না। গ্রিন টি নারীদের সুস্বাস্থ্যের জন্য বেশি প্রয়োজন। সাম্প্রতি অ্যান্টিক্যান্সার রিসার্চ জার্নালে প্রকাশিত গবেষণার তথ্য জানাচ্ছে, সকালে নিয়মিত গ্রিন টি পানে নারীদের মাঝে ব্রেস্ট ক্যান্সার প্রতিরোধে কাজ করে।

মিসৌরির সেইন্ট লুইস ইউনিভার্সিটির গবেষক ও ইন্টারনাল মেডিসিন বিভাগের অ্যাসোসিয়েট রিসার্চ প্রফেসর চুনফা হুয়াং, পিএইচডি বেশ কয়েক ধরণের চায়ের রস ও ব্রেস্ট ক্যান্সারের মাঝে পরীক্ষা করেছেন।

তবে অন্যান্য সকল চায়ের মাঝে গ্রিন টি সবচেয়ে বেশি কার্যকারিতা প্রকাশ করেছে। তার গবেষণার দেখা গেছে, গ্রিন টি ও অলং টি ব্রেস্ট ক্যান্সার সেল (কোষ) এর বৃদ্ধিতে বাধাদান করে। ডার্ক টি কিংবা অন্যান্য চায়ে তা নেই। মেডিকেল নিউজ টুডে কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে হুয়াং জানান, তার গবেষণার ফল প্রকাশ করে গ্রিন টি ও অলং টি ক্যান্সার কোষের বৃদ্ধি, বিস্তার অ টিউমারের অগ্রগতিকে প্রতিরোধ করে। শুধু ব্রেস্ট ক্যান্সার নয়। অতিরিক্ত ওজন, উচ্চ কোলেস্টেরল, ডায়বেটিসের প্রভাব থেকে নিজেকে দূরে রাখার ক্ষেত্রেও প্রয়োজন গ্রিন টি পান করা।

ইসি/

 

স্বাস্থ্য: আরও পড়ুন

আরও