সুপ্রিম কোর্ট বারের সভাপতি আমিন, সম্পাদক কাজল
Back to Top

ঢাকা, মঙ্গলবার, ৩১ মার্চ ২০২০ | ১৬ চৈত্র ১৪২৬

সুপ্রিম কোর্ট বারের সভাপতি আমিন, সম্পাদক কাজল

পরিবর্তন ডেস্ক ২:৫৭ অপরাহ্ণ, মার্চ ১৩, ২০২০

সুপ্রিম কোর্ট বারের সভাপতি আমিন, সম্পাদক কাজল

সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতির (সুপ্রিমকোর্ট বার) নির্বাচনে সভাপতি পদে টানা দ্বিতীয়বার নির্বাচিত হয়েছেন সিনিয়র এডভোকেট এএম আমিন উদ্দিন। আর সম্পাদক পদে নির্বাচিত হয়েছে ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল।

বৃহস্পতিবার রাতে ভোট গণনার পর আজ শুক্রবার সকালে ফলাফল ঘোষণা করা হয়।

এর আগে বুধবার সকাল ১০টা থেকে মাঝে ১ ঘণ্টার বিরতি দিয়ে বিকেল ৫টা পর্যন্ত দুই দিনব্যাপী এই ভোটগ্রহণ চলে।

২০২০- ২০২১ সেশনের এই নির্বাচনে মোট ১৪টি পদের মধ্যে ৮টি পদে নির্বাচিত হয়েছেন নীল প্যানেল। আর সাদা প্যানেলের আইনজীবীরা নির্বাচিত হয়েছেন ৬টি পদে।

জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য প্যানেল (নীল প্যানেল) থেকে নির্বাচিতরা হলেন মো. আব্দুল জব্বার ভূঁইয়া (সহ-সভাপতি), ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল (সম্পাদক), ব্যারিস্টার রাগীব রউফ চৌধুরী (কোষাধ্যক্ষ), মার-ই-আম খন্দকার (সদস্য), আমিরুল ইসলাম খোকন (সদস্য), মোহাম্মদ মোহাদ্দেস-উল-ইসলাম টুটুল (সদস্য), মোহাম্মদ মহসিন কবির (সদস্য), মোহাম্মদ শরিফ উদ্দিন রতন (সদস্য)।

নির্বাচনে বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী সমন্বয় পরিষদের প্যানেল (সাদা প্যানেল) থেকে নির্বাচিতরা হলেন এএম আমিন উদ্দিন (সভাপতি), মো. মনিরুজ্জামান (সহ সভাপতি), মোহাম্মদ ইমতিয়াজ ফারুক (সহ-সম্পাদক), মোহাম্মদ বাকির উদ্দিন ভূঁইয়া (সহ-সম্পাদক), মো. হুমায়ুন কবির (সদস্য), মোহাম্মদ মশিউর রহমান (সদস্য)।

এবারের নির্বাচনে মোট ৭ হাজার ৭ শত ৮১ ভোটারের মধ্যে ভোট দিয়েছেন ৫ হাজার ৯ শত ৪০ জন আইনজীবী। মোট ১৪টি পদের বিপরীতে এবার প্রার্থী হয়েছিল ৩১ জন।

দুই প্যানেলের বাইরে এবার সভাপতি পদে আইনজীবী ইউনুছ আলী আকন্দ, সহ-সম্পাদক পদে ফরহাদ উদ্দিন আহমেদ ভূঁইয়া ও সদস্য পদে তপন কুমার দাস প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

দুই দিনব্যাপী অনুষ্ঠেয় এই নির্বাচন পরিচালনায় সাত সদস্যের নির্বাচন উপ-কমিটি গঠন করা হয়। জ্যেষ্ঠ আইনজীবী এ এফ হাসান আরিফের নেতৃত্বে গঠিত এই কমিটির সদস্য ছিলেন মো. জসীম উদ্দিন, শরীফ ইউ আহমেদ, মুহাম্মদ সালেহ উদ্দিন, মোহাম্মদ ইলিয়াছ ভূঁইয়া (বিএম ইলিয়াছ কচি), মো. জাহাঙ্গীর আলম ও মোহাম্মদ আশরাফ উজ জামান খান। খবর: বাসস

এইচআর

 

আইন ও অপরাধ: আরও পড়ুন

আরও