ব্যাংকের টাকা লুটপাট, দুই কর্মকর্তার সাজা

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০ | ১৩ ফাল্গুন ১৪২৬

ব্যাংকের টাকা লুটপাট, দুই কর্মকর্তার সাজা

আদালত প্রতিবেদক ৩:২৩ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২২, ২০২০

ব্যাংকের টাকা লুটপাট, দুই কর্মকর্তার সাজা

এক কোটি ১০ লাখ অর্থ আত্মসাতের মামলায় ব্র্যাক ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ের সিনিয়র কর্মকর্তা সুকুমার রায় ও নাফিসা ট্রেডার্সের মালিক মো. নুর আলম হক প্রামাণিককে ভিন্ন মেয়াদে সাজা দিয়েছেন আদালত।

বুধবার ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৯ এর বিচারক শেখ হাফিজুর রহমান এ রায় ঘোষণা করেন।

এর মধ্য কুমার রায়কে ৫ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড এবং ৬৯ লাখ ২২৮৪ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। নুর আলম হক প্রামাণিককে তিন বছরের সশ্রম কারাদণ্ড এবং ৪১ লাখ ৪১ হাজার ৩৭০ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

রায় ঘোষণার সময় নুর আলম হক আদালতে হাজির ছিলেন। রায় ঘোষণার পর সাজা পরোয়ানা দিয়ে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

সুকুমার রায় পলাতক থাকায় আদালত তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছেন।

মামলার বিবরণ থেকে জানা যায়, ব্র্যাক ব্যাংক কর্মকর্তা সুকুমার রায় ক্ষমতার অপব্যবহার করে মো. নুর আলমের সঙ্গে যোগসাজশে ব্যাংকের প্রধান কার্যালয় থেকে এক কোটি টাকার বেশি অর্থ আত্মসাৎ করেন।

বহুজাতিক প্রতিষ্ঠান ইউনিলিভার বাংলাদেশ লিমিটেডের অনুকূলে ইস্যু করা এক কোটি ২৪ লাখ ৫০ হাজার টাকার তিনটি ডিম্যান্ড ড্রাফট (ডিডি) ও একটি পে-অর্ডার প্রতিষ্ঠানটির হিসাবে জমা না করে অন্য দু’টি হিসাবে স্থানান্তর করেন আসামিরা।

পরে চেক ও ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে এক কোটি ১০ লাখ ৪৩ হাজার ৬৫৫ টাকা তুলে নিয়ে আসামিরা আত্মসাৎ করেছেন।

এ ঘটনায় ২০১৬ সালের জুলাই মাসে তাদের বিরুদ্ধে রাজধানীর তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানায় একটি অর্থ আত্মসাতের মামলা করেন দুদকের সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ সিরাজুল হক।

এমআই/এএসটি

 

আইন ও অপরাধ: আরও পড়ুন

আরও