বিচারপতির ছেলের বিরুদ্ধে করা রিট শুনতে হাইকোর্টের সম্মতি

ঢাকা, সোমবার, ২৭ জানুয়ারি ২০২০ | ১৪ মাঘ ১৪২৬

বিচারপতির ছেলের বিরুদ্ধে করা রিট শুনতে হাইকোর্টের সম্মতি

পরিবর্তন প্রতিবেদক: ১:২২ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ১৫, ২০১৯

বিচারপতির ছেলের বিরুদ্ধে করা রিট শুনতে হাইকোর্টের সম্মতি

পরীক্ষায় উত্তীর্ণ না হয়েও বিচারপতির ছেলেকে সরাসরি হাইকোর্টের আইনজীবী হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করে গেজেট প্রকাশের বৈধতা চ্যালেঞ্জের রিট শুনানি করতে সম্মত হয়েছেন হাইকোর্ট।

পর্যায়ক্রমে হাইকোর্টের চারটি পৃথক বেঞ্চ থেকে বিব্রত হওয়ার পর রোববার হাইকোর্টের বিচারপতি তারিক উল হাকিম ও বিচারপতি মো. ইকবাল কবীরের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ সম্মতি দেন।

এ সময় আদালত বলেন, মামলাটি শুনানির জন্য মঙ্গলবার (১৭ ডিসেম্বর) কার্যতালিকায় আসবে।

আদালতে রিটের পক্ষে শুনানিতে উপস্থিত ছিলেন ব্যারিস্টার অনিক আর হক, ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন ও অ্যাডভোকেট ইশরাত হাসান।

আইনজীবীরা জানান, রিট আবেদনটি নিয়ে আজ প্রথমে বিচারপতি মইনুল হোসেন চৌধুরীর হাইকোর্ট বেঞ্চে গেলে তারা শুনতে অপারগতা প্রকাশ করেন।

এর আগে ২১ ও ২৮ নভেম্বর এবং ১১ ডিসেম্বর হাইকোর্টের তিনটি বেঞ্চ ওই রিট শুনতে অপরাগতা প্রকাশ করেন।

গত ২১ নভেম্বর আইনজীবী অন্তর্ভুক্তির পরীক্ষায় বারবার অনুত্তীর্ণ হওয়ার পরও হাইকোর্টের এক বিচারপতির ছেলেকে সরাসরি হাইকোর্টের আইনজীবী ঘোষণার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে রিট করা হয়। আইনজীবী সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন ও ইশরাত হাসান বাদী হয়ে এ রিট করেন।

রিট আবেদনে বলা হয়, বাংলাদেশ বার কাউন্সিল পরীক্ষায় কয়েকবার অংশ নিয়েও কৃতকার্য হতে পারেননি হাইকোর্টের এক বিচারপতির ছেলে  জুম্মান সিদ্দিকী। অথচ ১৯ সেপ্টেম্বর জুম্মান সিদ্দিকীকে সরাসরি হাইকোর্টের আইনজীবী হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করে গত ৩১ অক্টোবর গেজেট প্রকাশ করা হয়েছে।

তাই রিটে ওই গেজেট এবং ১৯৭২ সালের বাংলাদেশ বার কাউন্সিল অর্ডারের ২১(১)(খ) ও ৩০(৩) নম্বর ধারা চ্যালেঞ্জ করা হয়েছে। জুম্মান সিদ্দিকীসহ বার কাউন্সিলের সংশ্লিষ্টদের রিটে বিবাদী করা হয়।

ওএস/পিএসএস

 

আইন ও অপরাধ: আরও পড়ুন

আরও