সম্রাট ও আরমানের বিরুদ্ধে চার্জশিট

ঢাকা, শনিবার, ২৫ জানুয়ারি ২০২০ | ১২ মাঘ ১৪২৬

সম্রাট ও আরমানের বিরুদ্ধে চার্জশিট

আদালত প্রতিবেদক ৬:৫০ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ০৯, ২০১৯

সম্রাট ও আরমানের বিরুদ্ধে চার্জশিট

যুবলীগের ঢাকা মহানগর দক্ষিণের বহিষ্কৃত সভাপতি ইসমাইল চৌধুরী সম্রাট ও সহ-সভাপতি এনামুল হক আরমানের বিরুদ্ধে রমনা থানায় মাদক আইনে করা মামলায় চার্জশিট দিয়েছে র‌্যাব।

সোমবার ঢাকা মহানগর হাকিম মাসুদুর রহমানের আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা র‌্যাব-১ এর উপ-পরিদর্শক আবদুল হালিম।

আদালত এ বিষয়ে শুনানির জন্য ১৫ ডিসেম্বর দিন ধার্য করেছেন।

চার্জশিটে তদন্ত কর্মকর্তা বলেন, ‘ইসমাইল চৌধুরী সম্রাট ঢাকার দক্ষিণ যুবলীগের সভাপতি হিসেবে ক্ষমতার অপব্যবহার করে রাজধানীর বিভিন্ন ক্লাব পরিচালনা করতেন। তার নিয়ন্ত্রিত ক্লাবগুলোতে ক্যাসিনোসহ জুয়ার আসর বসতো। জুয়া খেলা থেকে তিনি বিপুল অর্থ সম্পত্তির মালিক হন। তিনি প্রতিমাসে ক্যাসিনো খেলতে সিঙ্গাপুর যান। বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি আর্থিক প্রতিষ্ঠানে চাঁদাবাজি ও টেন্ডারবাজি করতেন সম্রাট। তার সহযোগী ছিলেন কাউন্সিলর মোমিনুল হক সাঈদ ও খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়া।

আসামিদের বিরুদ্ধে ১৯ বোতল বিদেশি মদ ও ১১৬০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট হেফাজতে রাখার অভিযোগ করা হয়েছে। আসামিরা একে অপরের সহযোগিতায় এবং পরস্পর যোগসাজসে এ মাদকদ্রব্য, বিদেশি মদ ও ইয়াবা ট্যাবলেট সংগ্রহ এবং সংরক্ষণ করে ২০১৮ সালের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন ৩৬(১) এর সারনী ২৪ (খ)/১০(ক)/৪১ ধারার অপরাধ করেছেন বলে চার্জশিটে বলা হয়।

এর আগে ৬ অক্টোবর কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামের আলকরা ইউনিয়নের কুঞ্জুশ্রীপুর গ্রামে আত্মগোপনে থাকা সম্রাটকে গ্রেফতার করে র‌্যাব। তার সঙ্গে আরমানকেও গ্রেফতার করা হয়। পরে ঢাকায় এনে তাদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ করে র‌্যাব।

র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলমের নেতৃত্বে র‌্যাবের একটি দল কাকরাইলে ভূঁইয়া ট্রেড সেন্টারে তালা ভেঙে সম্রাটের কার্যালয়ে ঢুকে অভিযান চালায়। এসময় পশুর চামড়া রাখার দায়ে ৬ মাসের জেল দিয়ে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম।

এমআই/এইচআর

 

আইন ও অপরাধ: আরও পড়ুন

আরও