আবরারের ‘খুনীদের’ কেউ কাঁদছিল, কেউ ছিল বিমর্ষ, ৫ দিনের রিমান্ড (ভিডিও)
Back to Top

ঢাকা, শুক্রবার, ৫ জুন ২০২০ | ২২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

আবরারের ‘খুনীদের’ কেউ কাঁদছিল, কেউ ছিল বিমর্ষ, ৫ দিনের রিমান্ড (ভিডিও)

আদালত প্রতিবেদক ৪:০১ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ০৮, ২০১৯

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ছাত্র আবরার ফাহাদকে (২১) হত্যার আসামি ছাত্রলীগের ১০ নেতার পাঁচ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

মঙ্গলবার বিকাল ৩টার পর ঢাকা মহানগর হাকিম সাদবীর ইয়াছির আহসান চৌধুরীর আদালত রিমান্ডের এ আদেশে দেন।

এর আগে চক বাজার থানার পরিদর্শক কবির হোসেন আসামিদের আদালতে হাজির করে ১০ দিনের রিমান্ড চেয়ে আবেদন করেন।

শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর হাকিম সাদবীর ইয়াসির আহসান চৌধুরী এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

যাদের রিমান্ড দেওয়া হয়েছে তারা হলেন— বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ফুয়াদ হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক মেহেদী হাসান ওরফে রবিন, গ্রন্থ ও প্রকাশনা সম্পাদক ইশতিয়াক আহমেদ ওরফে মুন্না, ছাত্রলীগের সদস্য মুনতাসির আল জেমি, খন্দকার তাবাখখারুল ইসলাম ওরফে তানভীর, মোহাজিদুর রহমান, অনীক সরকার, মেফতাহুল ইসলাম ও ইফতি মোশারেফ।

এর আগে গত রোববার দিবাগত রাত ৩টার দিকে বুয়েটের সাধারণ ছাত্র ও বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ফাহাদকে শেরেবাংলা হলের দ্বিতীয় তলা থেকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে যান। পরে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে মরদেহের ময়নাতদন্ত শেষে ঢামেক ফরেনসিক মেডিসিন বিভাগের প্রধান ডা. মো. সোহেল মাহমুদ বলেন, সম্ভবত বাঁশ বা স্ট্যাম্প দিয়ে পেটানো হয়েছে। অতিরিক্ত আঘাত ও রক্তক্ষরণের কারণে ফাহাদের মৃত্যু হয়েছে।

এ ঘটনায় আবরারের বাবা বরকত উল্লাহ সোমবার রাতে বাদী হয়ে চক বাচার থানায় ১৯ জনের বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

এমআই/এসবি

আড়ও পড়ুন...
আবরার হত্যাকাণ্ডে গ্রেপ্তারদের ১০ দিনের রিমান্ডে চায় পুলিশ

 

: আরও পড়ুন

আরও