নারী ও শিশু নির্যাতন ট্রাইব্যুনালে বিচারাধীন মামলা দেড় লাখেরও বেশি

ঢাকা, রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ | ১৩ ফাল্গুন ১৪২৪

নারী ও শিশু নির্যাতন ট্রাইব্যুনালে বিচারাধীন মামলা দেড় লাখেরও বেশি

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক ৩:১৭ পূর্বাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১৫, ২০১৮

print
নারী ও শিশু নির্যাতন ট্রাইব্যুনালে বিচারাধীন মামলা দেড় লাখেরও বেশি

সারা দেশে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে গত ২০১৭ সালের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত ১ লাখ ৬৫ হাজার ৫৫০ টি বিচারাধীন মামলা  রয়েছে বলে জানিয়েছেন আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক।

বুধবার সাংসদ দিদারুল আলমের (চট্টগ্রাম-৪) এক লিখিত প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এ তথ্য জানান। আইন  মন্ত্রীর দেয়া তথ্য অনুযায়ী এসব মামলার মধ্যে ঢাকা বিভাগে ৪৪ হাজার ৫৪৬ টি, চট্টগ্রাম বিভাগে ৪৩ হাজার ৩০ টি, রাজশাহী বিভাগে ১৬ হাজার ১২৮ টি, খুলনা বিভাগে ১৯ হাজার ১৩৮ টি, বরিশাল বিভাগে ১০ হাজার ১৬৩ টি, সিলেট বিভাগে ১১ হাজার ৮০৭ টি এবং রংপুর বিভাগে ২০ হাজার ৭৩৮ টি মামলা বিচারাধীন রয়েছে।

মন্ত্রী জানান, এসব মামলা জট দ্রুত নিষ্পত্তির জন্য আরো ৪১ টি ট্রাইব্যুনাল সৃষ্টির মঞ্জুরী প্রদান করা হয়েছে। এবং উক্ত ট্রাইব্যুনালসমূহের জন্য ২০৫ টি সহায়ক পদ সৃষ্টি করা হয়েছে।  এ সব পদে নিয়োগ দিয়ে মামলাগুলো দ্রুত নিষ্পত্তি করা সম্ভব হবে বলেও জানান তিনি।

গোলাম মোস্তফা বিশ্বাসের ( চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২) এক প্রশ্নের জবাবে আনিসুল হক জানান, ২০০৫ সালের ১৭ আগস্ট সারাদেশে ৫০০ টি স্থানে সিরিজ বোমার হামলার ঘটনায় বর্তমানে বিচারাধীন মামলার সংখ্যা ৩০ টি। ২৯ টি মামলা সাক্ষ্যগ্রহণ পর্যায়ে রয়েছে। ১টি মামলার কার্যক্রম আদালত স্থগিত করেছে।

মনিরুল ইসলামের (যশোর-২) প্রশ্নের জবাবে আনিসুল হক জানান,  দেশের বিভিন্ন আদালতে জমে থাকা মামলাগুলো নিষ্পত্তির জন্য বিচারকের শুন্য পদ পূরণ সহ নতুন পদ সৃষ্টির কার্যক্রম গ্রহন করা হয়েছে। দেশের ৬৪ জেলায় লিগ্যাল এইড অফিস  স্থাপণ, সুপ্রিম কোর্টে ডিজিটাল কজলিস্ট চালু, এডিআর এর মাধ্যমে মামলার জটকমানোর পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে।

তিনি জানান, এ সরকারের আসার পর থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত নিম্ম আদালতে ৬৮৪ জন বিচারক নিয়োগ দেয়া হয়েছে। বিচারকদের দক্ষতা উন্নয়নের লক্ষ্যে অস্ট্রেলিয়ার ওয়েস্টার্ন সিডনী ইউনির্ভাসিটিতে ৫৪০ জন বিচারককে প্রশিক্ষণের কার্যক্রম চালু রয়েছে এবং ইতিমধ্যে ৬৩ জন প্রশিক্ষণ সমাপ্ত করেছেন এবং আরো ১৬০ জন বিচারকের প্রশিক্ষণ গ্রহনের সরকারি আদেশ হয়েছে। ভারতের ভূপালে ৭৬ জন বিচারক প্রশিক্ষণ নিয়েছেন এবং জাইকার অর্থায়নে ১৫ জন জাপানে প্রশিক্ষণ নিচ্ছেন।

আনিসুল হক জানান,  নারী ও শিশু নির্যাতন বন্ধে আরো ৫টি সন্ত্রাস বিরোধী বিশেষ ট্রাইব্যুনাল, ৭টি সাইবার ট্রাইব্যুনাল, ৮টি মানিন্ডারিং ট্রাইব্যুনাল, ৩টি শ্রম আদালত, ১১২ টি অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা  জজ আদালত, ১৫৯ টি যুগ্ম-জেলা জজ পদ সৃষ্টি, ১৯ টি পরিবেশ আদালত, ৬টি পরিবেশ আপীল আদালত, ২১৪ টি সহকারি জজ আদালত সৃষ্টির বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে । এছাড়া সারা দেশে ৩৬০ টি মেট্রোপলিটন ম্যাজিট্রেট, সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিট্রেট ও জুডিশিয়াল ম্যাজিট্রেট ও সহকারী জজ আদালত পদ সৃষ্টি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলে জানান আইনমন্ত্রী।

এইচএস/আরজি

 
.

আলোচিত সংবাদ

nilsagor ad