কুষ্টিয়ায় গৃহবধূ ধর্ষণে একজনের যাবজ্জীবন
Back to Top

ঢাকা, শুক্রবার, ১০ এপ্রিল ২০২০ | ২৬ চৈত্র ১৪২৬

কুষ্টিয়ায় গৃহবধূ ধর্ষণে একজনের যাবজ্জীবন

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি ৩:১২ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১৮, ২০২০

কুষ্টিয়ায় গৃহবধূ ধর্ষণে একজনের যাবজ্জীবন

কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা থানায় দায়েরকৃত গৃহবধূ ধর্ষণ মামলায় বিপ্লব দাস (৪৫) নামে একজনকে  যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা আদেশ দিয়েছেন আদালত।

মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টায় কুষ্টিয়া নারী ও শিশু নির্যাতন দমন বিশেষ আদালতের বিচারক মুন্সী মো. মশিয়ার রহমান জনাকীর্ণ আদালতে আসামির উপস্থিতিতে এই রায় ঘোষণা করেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত হলেন, ভেড়ামারা উপজেলার কারিকরপাড়া গ্রামের মৃত. মনোরঞ্জন দাসের ছেলে বিপ্লব দাস (৪৫)।

আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০১৯ সালের ২১ মে, রাত ১১টায় ওই গৃহবধূর স্বামী কুমার বিশ্বাসের অবর্তমানে কুমার বিশ্বাসের সম্পর্কে পালক বাবা বিপ্লব দাস ঘরে ঢুকে ধর্ষণ করে। এতে ওই গৃহবধূ লোকলজ্জার ভয়ে ভীত হয়ে পড়ে। পরদিন (২২ মে) দুপুর ১২টায় আসামি বিপ্লব দাস গৃহবধূকে তার বাবার বাড়ি ঝিনাইদহ জেলার শৈলকুপায় পৌঁছে দেয়ার কথা বলে গাড়িতে উঠিয়ে ঢাকার নবীনগর এলাকায় আসামির এক আত্মীয়ের বাসাতে ১৫ দিন আটকে রেখে একাধিকবার ধর্ষণ করে। পরে সুযোগ বুঝে ওই গৃহবধূ পালিয়ে এসে পরিবারের কাছে ঘটনা খুলে বলেন।

এ ঘটনায় ভুক্তভোগী ওই গৃহবধূর মা ঝিনাইদহ জেলার বাসিন্দা বুলবুলি রানী বিশ্বাস আসামি বিপ্লব দাসের বিরুদ্ধে ভেড়ামারা থানায় মামলা করেন। মামলাটি তদন্ত শেষে ২০১৭ সালের ৭ নভেম্বর বিপ্লব দাসের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে আদালতে চার্জশিট দেয় পুলিশ।

কুষ্টিয়া নারী ও শিশু নির্যাতন দমন বিশেষ আদালতের রাষ্ট্রপক্ষের কৌঁসুলি (পিপি) আব্দুল হালিম সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

এইচআর

 

সমগ্রবাংলা: আরও পড়ুন

আরও