ফের বিয়ে করায় ছেলেদের পিটুনিতে হাসপাতালে বৃদ্ধ

ঢাকা, সোমবার, ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০ | ৫ ফাল্গুন ১৪২৬

ফের বিয়ে করায় ছেলেদের পিটুনিতে হাসপাতালে বৃদ্ধ

যশোর ব্যুরো ৯:২২ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৫, ২০২০

ফের বিয়ে করায় ছেলেদের পিটুনিতে হাসপাতালে বৃদ্ধ

প্রথম স্ত্রীর দুই ছেলেকে তিন বিঘা জমি দিয়েছেন আবদুল মালেক (৮৮)। বাকি পাঁচ বিঘা নিজেরই আছে। সন্তানরা খোঁজ-খবর না নেয়ায় সম্প্রতি তিনি বিয়ে করেছেন।

জমির জন্য  প্রথম স্ত্রীর দুই ছেলে ও তাদের স্ত্রীরা চাপ দিচ্ছিলেন। কিন্তু জমি দিতে রাজি হননি। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে বুধবার আবদুল মালেককে মুগুর দিয়ে পিটিয়ে আহত করে হাসপাতালে পাঠিয়েছে ছেলে ও তার স্ত্রীরা।

ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার সকালে যশোর সদর উপজেলার বাহাদুরপুর গ্রামের স্কুলপাড়ায়। তাকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আবদুল মালেক বলেন, আমার দুই ছেলে মারুফ ও মনিরুল মুগুর দিয়ে আমার শরীরের বিভিন্ন জায়গায় মেরেছে। তাদের স্ত্রীদের সহযোগিতায় আমাকে মারা হয়। পা ফেটে রক্ত বের হচ্ছে। আমি ওদের নামে মামলা করবো। আট বিঘে জমির মধ্যে তিন বিঘে ওদের দিয়েছি। এখন ওদের আরো জমি দিতে হবে বলে আমাকে মারলো।

স্থানীয়রা জানায়, আব্দুল মালেক ৮৮ বছর বয়সে আবার বিয়ে করেছেন। এতে তার ছেলেদের সম্মান গেছে। তাছাড়া ছেলেদের নতুন মা জমিসহ সম্পত্তির ভাগিদার হয়েছেন। এসব কারণে বেশ কিছুদিন ধরে বাবার সঙ্গে ছেলেদের বিরোধ চলছিল। এসব নিয়ে একাধিকবার শালিসও হয়েছে।

তারা জানায়, মালেকের আট বিঘে জমি আছে। এর মধ্যে নিজে পাঁচ বিঘা জমি ভোগ করেন। ছেলেদের দিয়েছেন তিন বিঘে; তবে তা মুখে মুখে। ছেলেদের জমি লিখে না দেয়ায় আজকের এই ঘটনা।

যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল  হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক আহম্মেদ তারেক শামস বলেন, আহত মালেকের শরীরে চাপা আঘাত করা হয়েছে। তার পায়ে অনেকটা ক্ষতও আছে। তবে তিনি শঙ্কামুক্ত আছেন।

উপশহর পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ এসআই আব্দুল লতিফ বলেন, এরকম ঘটনা আমাদের জানা নেই। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেবো।

এইচআর

 

সমগ্রবাংলা: আরও পড়ুন

আরও