যশোরে সালিশ থেকে ডেকে নিয়ে যুবক খুন

ঢাকা, বুধবার, ২৯ জানুয়ারি ২০২০ | ১৬ মাঘ ১৪২৬

যশোরে সালিশ থেকে ডেকে নিয়ে যুবক খুন

যশোর ব্যুরো ১:১৭ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ১০, ২০১৯

যশোরে সালিশ থেকে ডেকে নিয়ে যুবক খুন

যশোরে সালিশি বৈঠক থেকে ডেকে নিয়ে বুকে ছুরিকাঘাত করে জনি হোসেন (২৮) নামে এক যুবককে হত্যা করা হয়েছে। সোমবার রাতে সদর উপজেলার নরেন্দ্রপুর  গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।

নিহত জনি একই এলাকার সিরাজুল ইসলামের ছেলে। ঘটনাস্থল থেকে একটি মোটরসাইকেল উদ্ধার করা হয়েছে।

নিহতের স্বজনরা জানান, নরেন্দ্রপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি জিএম সবুজ হাসান ও বর্তমান সভাপতি শাহিন আলম মাটি কেনাবেচার ব্যবসা করেন। তারা বিভিন্ন গ্রাম থেকে মাটি কিনে ইটভাটাসহ বিভিন্ন স্থানে বিক্রি করেন।

সম্প্রতি নরেন্দ্রপুরের হাসিবের জমির মাটি কিনতে চান দুইজনই। এনিয়ে বিরোধের সৃষ্টি হলে সোমবার সন্ধ্যার পর নরেন্দ্রপুর মাস্টারপাড়ায় দুই পক্ষ সমঝোতা বৈঠকে বসে। সেখানে শাহিন মোটরসাইকেল, ইজিবাইকে করে ২০ থেকে ২২ জন নিয়ে আসে।

বৈঠকে সবুজের পক্ষে ছিল জনি। বৈঠক চলাকালে শাহিনের পক্ষের কয়েকজন জনিকে ডেকে পাশে নিয়ে বুকে ছুরিকাঘাত করে। ঘটনাস্থলে তার মৃত্যু হয়।

এসময় গ্রামবাসী ধাওয়া করলে শাহিন ও তার পক্ষের লোকজন পালিয়ে যায়। তবে শাহিনের একটি পায়ে সমস্যা থাকায় তিনি তাৎক্ষণিক তার মোটরসাইকেল নিতে না পেরে অন্য বাহনে পালিয়ে যায়। ঘটনাস্থল থেকে তার মোটরসাইকেল উদ্ধার হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে কোতয়ালি  থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুজ্জামান বলেন, এলাকায় দুই পক্ষের দ্বন্দ্বের জেরে জনিকে ছুরিকাঘাতে খুন করেছে প্রতিপক্ষের লোকজন। মাটি বেচা-কেনা নিয়ে দ্বন্দ্ব ছিল। তারই জেরে হত্যাকাণ্ড ঘটেছে।

তিনি বলেন, এই ঘটনায় কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি। নিহতের পিতা থানায় এসেছিল এখনও মামলা রেকর্ড হয়নি। তবে ঘটনাস্থল থেকে একটি মোটরসাইকেল উদ্ধার করা হলেও মালিক সনাক্ত হয়নি।

আইআর/জেডএস

 

খুলনা: আরও পড়ুন

আরও