বোমা সাদৃশ্য বস্তুটি  ঘিরে রেখেছে পুলিশ

ঢাকা, শুক্রবার, ২৪ জানুয়ারি ২০২০ | ১১ মাঘ ১৪২৬

বোমা সাদৃশ্য বস্তুটি  ঘিরে রেখেছে পুলিশ

মেহেরপুর প্রতিনিধি ৮:১৩ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ০৬, ২০১৯

বোমা সাদৃশ্য বস্তুটি  ঘিরে রেখেছে পুলিশ

মেহেরপুরে শহরে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলী অফিসের গেটের পাশে দুই দিন ধরে একটি ইলেকট্রিক ডিভিইস যুক্ত বোমা সাদৃশ্য বস্তটি ঘিরে রেখেছে পুলিশ।

গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে র‌্যাবের একটি দল এসে এক্সরেমেশিন ও বোমা সাদৃশ্য বস্তুটি বহন করার মতো ব্যাগ না থাকায় ফিরে যায়।

শুক্রবার সকাল থেকে সেনাবাহিনীর বোমা বিশেষজ্ঞ একটি দল আসার কথা ছিল। মেহেরপুর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শেখ জাহিদ হোসেন জানান, রাতে ঢাকা থেকে কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট রওনা দিবেন। আগামীকাল(শনিবার) সকালে তারা এটি পর্যবেক্ষণ করে তারপরে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন এবং নিষ্ক্রিয় করা হবে।

বোমার পাশে একটি চিরকুটে হাতে লেখা আনসারুল ইসলাম জঙ্গী দলের দায় স্বীকার। গতকাল দুপুর বারোটার দিকে অফিসের কর্মচারীরা গেটের পাশে প্রাচিরের সাথে একটি ব্যাগে বোমা সাদৃশ্য বস্ত দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেয়া হয়। পুলিশের একাধিক দল ঘটনাস্থলে যায়। পরে ব্যাগের ভিতরে একটি ইলেকট্রিক ডিভাইস যুক্ত বোমা দেখতে পায়।পাশে একটি হাতে লেখা চিরকুট পায় পুলিশ। 

মেহেরপুর পুলিশ সুপার এস এম মুরাদ আলী জানান, জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলী অফিসের গেটের পাশ থেকে একটি ইলেকট্রিক ডিভাইস যুক্ত বোমা সাদৃশ্য বস্তটি আমরা উদ্ধার করেছি। আসলে এটা বোমা কিনা সেটা বোম ডিস্প্রজল ইউনিট আসলে জানতে পারবো। আমরা ধারনা করছি আতঙ্ক সৃষ্টির জন্য কেউ রেখে যেতে পারে। উদ্ধার হওয়া চিরকুটে হাতে লেখা রয়েছে আনসারুল ইসলাম দল। এটা নিয়েও আমরা তদন্ত শুরু করেছি।

এমএইচ

 

খুলনা: আরও পড়ুন

আরও