আ’লীগ নেতার কর্মিসভায় বিরিয়ানী খেয়ে অসুস্থ ৫ শতাধিক

ঢাকা, বুধবার, ২৩ মে ২০১৮ | ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫

আ’লীগ নেতার কর্মিসভায় বিরিয়ানী খেয়ে অসুস্থ ৫ শতাধিক

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি ২:৪৩ অপরাহ্ণ, মে ১৭, ২০১৮

print
আ’লীগ নেতার কর্মিসভায় বিরিয়ানী খেয়ে অসুস্থ ৫ শতাধিক

এবার ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুরে আওয়ামী লীগের সাবেক সংসদ সদস্য ও ঝিনাইদহ- ৩ আসনের মনোনয়ন প্রত্যাশী পারভীন তালুকদার মায়ার কর্মী সমাবেশে বিরিয়ানী খেয়ে প্রায় ৫ শতাধিক নেতাকর্মী অসুস্থ হয়ে পড়েছেন।

বৃহস্পতিবার দুপুর একটা পর্যন্ত কোটচাঁদপুর উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন প্রায় ২৫০ জন। পার্শ্ববর্তী কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সেও বেশ কয়েকজন চিকিৎসা নিচ্ছেন। বাকিরা বাড়িতে স্থানীয় গ্রাম্য চিকিৎসদের কাছে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

সবাই বমি, পেটে ব্যথা ও ডায়রিয়ায় আক্রান্ত। অনুষ্ঠানের আয়োজক পারভীন তালুকদার মায়া ও তার স্বামীও অসুস্থ হয়ে পড়েছেন বলে জানা গেছে।

এর আগে মঙ্গলবার মহেশপুর উপজেলায় কর্মী সমাবেশে খাবার খেয়ে প্রায় দেড় শতাধিক নেতাকর্মী অসুস্থ হয়ে পড়েন।

কোটচাঁদপুর হাসপাতালে গিয়ে রোগীদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, বুধবার দুপুরে পারভীন তালুকদার মায়া কোটচাঁদপুর শহরে একটি কর্মী সমাবেশ করেন।

সেখানে ৫টি ইউনিয়নের প্রায় হাজার খানেক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন। সবাইকে প্যাকেট বিরিয়ানী দেওয়া হয়। কেউ কেউ ঐ স্থানেই বিরিয়ানী খান এবং কেউ কেউ বাড়িতে নিয়ে যান। খাবার খাওয়ার পর পরই পেটে ব্যথা, বমি ও পায়খানা শুরু হয়। অসুস্থদের মধ্যে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী ও তাদের পরিবারের সদস্যরা রয়েছে।

কোটচাঁদপুর উপজেলার গুড়পাড়া গ্রামের তোফাজ্জল হোসেন বলেন, বুধবার বিকেলে কর্মীসভায় গিয়েছিলাম। সেখান থেকে দেওয়া বিরিয়ানী বাসায় নিয়ে যাই। আমার স্ত্রী ও মেয়ে সেই খাবার খেয়ে অসুস্থ হয়ে পড়ে। রাত সাড়ে ১০টার দিকে তাদের হাসপাতালে ভর্তি করতে হয়।

দোড়া গ্রামের ১০ম শ্রেণির ছাত্র রাসেল হোসেন বলেন, এই খাবার খেয়ে ৫০ বারের বেশি পাতলা পায়খানা হয়েছে।

কোটচাঁদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক ফারহানা শারমিন জানান, বুধবার রাত ৮টার পর থেকে বৃহস্পতিবার দুপুর একটা পর্যন্ত ২৫০ জন রোগীকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। হাসপাতালে এত রোগী পা রাখার জায়গা নেই।

তিনি বলেন, রোগীদের সঙ্গে কথা বলে মনে হচ্ছে ফুড পয়জনিংয়ের কারণে এ সমস্যা হয়েছে।

ঝিনাইদহ- ৩ আসনের সংসদ সদস্য নবী নেওয়াজ জানান, বুধবার মহেশপুরে শতাধিক মানুষ অসুস্থ হয়েছিল খাবার খেয়ে। বৃহস্পতিবার আবার কোটচাঁদপুর আওয়ামী লীগের মনোয়ন প্রত্যাশী পারভীন তালুকদারের কর্মী সমাবেশে বিরিয়ানী খেয়ে কয়েকশ নারী-পুরুষ-শিশু অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছে।

বিষয়টি জানার পরই তিনি ঢাকা থেকে এসে রোগীদের খোঁজখবর নিয়েছেন। তার নেতাকর্মীরা অসুস্থ রোগীদের চিকিৎসার খোঁজ খবর নিচ্ছেন।

তিনি বলেন, এটা আওয়ামী লীগের জন্য ক্ষতি। শুধু আওয়ামী লীগ নয়, সাধারণ মানুষ এই খাবার খেয়ে অসুস্থ হয়েছে। আওয়ামী লীগের ব্যানারে এমন অনুষ্ঠান করে দলের বদনাম করা ব্যক্তিদের বিচার হওয়া উচিত।

এ ব্যাপারে পারভীন তালুকদার মায়া জানান, একই খাবার খেয়ে তিনি নিজে ও তার স্বামীও অসুস্থ হয়ে পড়েছেন।

তিনি অভিযোগ করেন, তার জনপ্রিয়তা দেখে কেউ ষড়যন্ত্র করে খাবারের সাথে বিষ মিশিয়ে দিতে পারে।

তিনি আরো বলেন, মহেশপুরে যারা অসুস্থ হয়েছিলেন তাতে মনে করেছিলাম ঘি দিয়ে বিরিয়ানী রান্নার কারণে এ সমস্যা। কিন্তু কোটচাঁদপুরে যখন একই অবস্থা তখন বুঝতে পেরেছি এটা একটি চক্রান্ত।

এ ঘটনায় ঝিনাইদহ জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কনক কুমার দাসকে প্রধান করে ৫ সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

এদিকে এই ঘটনার প্রতিবাদে কোটচাঁদপুর হাসপাতালের সামনে মানববন্ধন ও কালো পতাকা প্রদর্শন করেছে স্থানীয় আওয়ামী লীগ।

উল্লেখ্য, এর আগে গত মঙ্গলবার মহেশপুরে আওয়ামী লীগের কর্মীসভার বিরিয়ানী খেয়ে অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে শতাধিক নেতাকর্মী। 

এসএএস/বিএইচ/

 
.

Best Electronics Products



আলোচিত সংবাদ

nilsagor ad