আ’লীগ নেতা রাশেকের জন্য দোয়া চাইলেন সাকিব

ঢাকা, শুক্রবার, ২৪ নভেম্বর ২০১৭ | ১০ অগ্রহায়ণ ১৪২৪

আ’লীগ নেতা রাশেকের জন্য দোয়া চাইলেন সাকিব

বেরোবি প্রতিনিধি ৭:১৮ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৩, ২০১৭

print
আ’লীগ নেতা রাশেকের জন্য দোয়া চাইলেন সাকিব

রংপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে মনোনয়ন প্রত্যাশী আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপ-কমিটির সাবেক সহ-সম্পাদক রাশেক রহমান।

.

বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান তার জন্য দোয়া চেয়েছেন।

বুধবার বেলা সোয়া ১১ টার দিকে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় (বেরোবি) খেলার মাঠে ক্রিকেট কথন ও কর্মশালায় তিনি এ দোয়া চেয়েছেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহর সভাপতিত্বে এ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়।

মেয়র মনোনয়ন আগ্রহী রাশেক রহমান সম্পর্কে সাকিব আল হাসান বলেন, রাশেক রহমান কথা দিয়ে কথা রাখেন। আপনারা তার জন্য দোয়া করবেন। তিনি রংপুর জেলাকে অনেক দূরে নিয়ে যেতে পারবেন।

সাকিব বলেন, আমি আগে কখনো রংপুরে আসিনি। প্রথমবারে এসেই আপনাদের ভালোবাসায় অভিভুত। আমি বিশ্বাস করি আপনাদের মত সমর্থক থাকলে ক্রিকেটে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হওয়া সম্ভব।

তিনি বলেন, আপনারা দোয়া করবেন যাতে আমরা ক্রিকেটে সারাবিশ্বে এক নম্বরে আসতে পারি।

রাশেক রহমান বলেন, রংপুরে নেতৃত্ব দেয়া মানুষের বেশ অভাব রয়েছে। একারণে এতদিনেও এখানে একটা ভালো স্টেডিয়াম করা সম্ভব হয়নি।

এসময় তিনি রংপুরে একটি ভালো স্টেডিয়াম ও একটি পাঁচ তারকা হোটেল তৈরির উদ্যোগ নেয়ার আশ্বাস দেন।

কথা ছিল বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে একটি ক্রিকেট কর্মশালা হবে। সেই কর্মশালায় ক্রিকেটারদের বিভিন্ন প্রশিক্ষণ দেবেন সাকিব আল হাসান। একথা বলেই গত প্রায় এক সপ্তাহ থেকে রংপুরে চলে জোর প্রচারণা।

সাকিব আল হাসানের আগমন উপলক্ষ্যে রংপুরের তরুণ-তরণীরা অপেক্ষার প্রহর গুনতে থাকে। সবার প্রত্যাশা ছিল সাকিব আল হাসানের ব্যাটিং-বোলিং খুব কাছ থেকে দেখবে। আর কর্মশালায় অংশ নেয়া ক্রিকেটারদের স্বপ্ন ছিল বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডারের কাছ থেকে ক্রিকেটের খুটি নাটি বিষয়গুলো রপ্ত করে নিজেকে মেলে ধরার।

বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে কোনো স্টেডিয়াম নেই। একটি মাঠেই খেলাধুলা করেন শিক্ষার্থীরা। সেখানেই আয়োজন করা হয় ক্রিকেট কর্মশালার।

প্রিয় তারকাকে দেখতে সকাল দশটার মধ্যেই মাঠে হাজির হন কয়েক হাজার দর্শক। কিন্তু মাঠকে যেভাবে প্রস্তুত করা হয়েছিল তা একটি রাজনৈতিক সমাবেশের জন্য উপযুক্ত হলেও খেলা বা অনুশীলনের তেমন সুযোগ ছিল না। দর্শক যাতে মাঠে প্রবেশ করতে না পারে সেজন্য তেমন ব্যবস্থা নেয়া হয়নি। একটি চিকন রশি দিয়ে মাঠকে ঘিরে রাখে আয়োজকরা।

বেলা সাড়ে ১১ টায় মঞ্চে উঠে আসেন সাকিব। তিনি আসা মাত্রই রশি ভেদ করে মাঠে প্রবেশ করে হাজার হাজার দর্শক। অবস্থা বেগতিক দেখে আর মাঠে নামেননি সাকিব। কিছুক্ষণ মঞ্চে থাকার পর তিনি মাঠ ত্যাগ করেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে কর্মমালায় অংশ নেয়ার প্রস্তুতি গ্রহণ করা কয়েকজন খেলোয়াড় বলেন, সাকিব আল হাসানকে ক্রিকেট শেখানোর উদ্দেশ্যে আনেননি আয়োজকরা। আনলে মাঠে পর্যাপ্ত নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা থাকত। দর্শকরা মাঠে প্রবেশ করতে পারত না। তাদের দাবি সাকিব আল হাসানকে মডেল হিসেবে ব্যবহার করে তার জনপ্রিয়তাকে কাজে লাগিয়ে হাজার হাজার তরুণ-তরুণীর সামনে রাশেক রহমান তার নির্বাচনী প্রচারণা করেছেন।

এছাড়া সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও বেশ কিছু শিক্ষার্থী বিরুপ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন।

শিক্ষার্থীরা বলেন, ‘ক্যাম্পাসে ক্লাস এবং পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে জোরে মাইক চালানো হয়। ফলে আমাদের ক্লাস এবং পরীক্ষায় ব্যাঘাত ঘটে।’

গণমাধ্যম কর্মীরা এ বিষয়ে রাশেক রহমান ও সাকিব আল হাসানের সাথে কথা বলতে চাইলে তাদের ব্যস্ততার কারণে তা সম্ভব হয়নি।

এর আগে বিভিন্ন স্থান থেকে রাশেক রহমানের সমর্থনে ব্যানার-ফেস্টুন সম্বলিত বেশ কিছু গাড়ি নিয়ে ক্যাম্পাসে প্রবেশ করেন তার সমর্থকরা।

উল্লেখ্য, আওয়ামী লীগের কোষাধ্যক্ষ ও রংপুর-৫ আসনের সংসদ সদস্য এইচ এন আশিকুর রহমানের ছেলে রাশেক রহমান আসন্ন রংপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মনোনয়ন প্রত্যাশী।

আগামী ডিসেম্বরে রংপুর সিটি করপোরেশনের নির্বাচন হওয়ার কথা রয়েছে।

এমএ/এসবি

print
 

আলোচিত সংবাদ

nilsagor ad