যে জুতোয় ফুটে উঠল মেসির জীবনের স্মৃতি

ঢাকা, সোমবার, ২২ জানুয়ারি ২০১৮ | ৯ মাঘ ১৪২৪

যে জুতোয় ফুটে উঠল মেসির জীবনের স্মৃতি

পরিবর্তন ডেস্ক ৪:৩০ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৪, ২০১৮

print
যে জুতোয় ফুটে উঠল মেসির জীবনের স্মৃতি

কিছুদিন আগেই ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোর জন্য বিশেষ ধরনের এক সুপারসনিক জুতো বানিয়েছে নাইকি। সেই জুতো থেকে আলোর বিচ্ছুরণ ঘটবে। ফ্ল্যাট লাইটের আলোতে খেলতে নামলে নাকি পুরো শরীরই আলোকিত হবে রোনালদোর। বিশ্বখ্যাত ক্রীড়া সামগ্রি প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠানটি নেইমারের জন্যও বিশেষ এক জুতো বানিয়েছে। গোল করার পর সেই জুতো কপালের উপর বসিয়ে বিশেষ ঢঙে উদযাপন করে আলোচনার ঝড়ও ‍তুলেছিলেন পিএসজির ব্রাজিলিয়ান তারকা। তবে বিস্ময়ে রোনালদো-নেইমারের জুতোকেও বুঝি পেছনে ফেলে দিল লিওনেল মেসির বিশেষ জুতো জোড়া!

বার্সেলোনার আর্জেন্টাইন সুপারস্টারের জন্য বানানো বিশেষ এই ‍জুতো জোড়ায় যে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে তার জীবনের স্মৃতি! আক্ষরিক অর্থেই তাই। মেসির ক্যারিয়ার এবং জীবনের গুরুত্বপূর্ণ মুহূর্তগুলোর দৃশ্যই ফুটিয়ে তোলা হয়েছে জুতোর গায়ে।

না, বিশ্বের কোনো নামাদামী ক্রীড়া সামগ্রি প্রস্তুককারক প্রতিষ্ঠান বা জুতো কোম্পানি এই জুতো বানায়নি। ৫ বারের ব্যালন ডি’অর জয়ী মেসির সম্মানে বিশেষ এই জুতো জোড়ার ডিজাইন করেছেন একজন মহিলা ফ্যাশন ডিজাইনার। নাম লিলি কান্তেরো। যিনি আদলে একজন শিল্পী।

রঙ তুলির আঁচড়ে দেশ প্যারাগুয়ের প্রায় সব কিংবদন্তি ফুটবলারকেই চিত্রকর্মে রূপ দিয়েছেন লিলি। সেসব করতে গিয়েই একজন সখ জাগে, মেসিকে নিয়েও কিছু একটা করবেন। সেই ভাবনা থেকেই একদিন পেয়ে গেছেন অদ্ভুত এই ধারণা। মেসির ক্যারিয়ার ও পারিবারিক জীবনের স্মৃতিগুলো ফুটিয়ে তুলবেন জুতোর গায়ে। তারপর সেই জুতো উপহার দেবেন মেসিকে।

ধারণাটা মাথায় আসতেই নেমে পড়েন কাজে। নিজের কাজের দক্ষতার প্রমাণ করতে প্রথমে যোগাযোগ করেন স্থানীয় এক জুতো কোম্পানির সঙ্গে। ব্যস, তাদের সহায়তায় লিলি নিজ হাতের নিপূণ দক্ষতায় জুতোর গায়ে এঁটে দেন মেসির জীবনের স্মৃতিগাথা মুহূর্তগুলো।

মেসির পারিবারিক জীবন এবং ক্যারিয়ারে স্মরণীয় সব মুহূর্তগুলোই স্বাক্ষী হয়েছে জুতো জোড়ায়। মাত্র ৪ বছর বয়সেই মেসি যোগ দেন আর্জেন্টিনার বুয়েনস এইরেসের রোজারিও স্থানীয় ক্লাব গ্র্যান্ডোলিতে। সেই গ্র্যান্ডোলি থেকে শুরু করে আর্জেন্টাইন ক্লাব নিউ ওল্ড বয়েস ও বার্সেলোনা এবং আর্জেন্টিনা জাতীয় দল-ক্যারিয়ারে যেখানেই খেলেছেন, সব জায়গার স্মরণীয় মুহূর্তগুলোই ঠাই পেয়েছে জুতো জোড়াতে।

গ্র্যান্ডোলিতে ৪ বছর বয়সে খেলার দৃশ্য, বার্সেলোনার মূল দলের হয়ে অভিষেক, ব্রাজিলিয়ান কিংবদন্তি রোনালদিনহোর সঙ্গে প্রথম পেশাদার গোলের সেই উদাপন, আর্জেন্টিনা জাতীয় দলের হয়ে দেশের পতাকা হবহন করা, স্ত্রী আন্তোনেল্লা রোকুজ্জোর সঙ্গে চুমু খাওয়ার দৃশ্য, দুই ছেলে থিয়াগো ও মাতেও-এর সঙ্গে মধুর সময় পার, বাদ যায়নি কোনো কিছুই।

বিশেষ এই জুতো জোড়া মেসির কাছে পাঠিয়েও দিয়েছেন লিলি। দারুণ এই উপহার পেয়ে মেসি এতোটাই আপ্লুত যে, সঙ্গে সঙ্গেই জুতো জোড়া নিয়ে ছবি তুলে পোস্ট দিয়েছেন ইনস্টাগ্রামে। তবে যিনি বিশেষ এই উপহার পাঠিয়েছেন সেই লিলিকে এখনো ধন্যবাদ, অভিনন্দন নাকি জানাননি মেসি।২৫ বছর বয়সী লিলি নিজেই বলেছেন, মেসির কাছ থেকে এখনো কোনো রকম প্রতিক্রিয়া পাননি।

তবে মেসি যে ইনস্টাগ্রামে জুতোর ছবি পোস্ট করেছেন, সেটা দেখেছেন লিলি। সেটা দেখেই লিলি আশাবাদী মেসি ঠিকই বুট জোড়া পরবেন, ‘ঈশ্বরকে ধন্যবাদ, আমার ছোট্ট প্রচেষ্টার অসাধারণ পরিণতি দেওয়ার জন্য। আমি জানি না, সে এই জুতো ব্যবহার করবে কিনা। আশা করি সে ব্যবহার করবে।’

কেআর

print
 
.

আলোচিত সংবাদ

nilsagor ad