৫ গুণ বেতনের প্রস্তাবই ঘুরিয়ে দিয়েছিল ডেম্বেলের মাথা!

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৪ অক্টোবর ২০১৭ | ৯ কার্তিক ১৪২৪

৫ গুণ বেতনের প্রস্তাবই ঘুরিয়ে দিয়েছিল ডেম্বেলের মাথা!

পরিবর্তন ডেস্ক ১২:০৬ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৩, ২০১৭

print
৫ গুণ বেতনের প্রস্তাবই ঘুরিয়ে দিয়েছিল ডেম্বেলের মাথা!

নেইমারের বিকল্প হিসেবে শেষ পর্যন্ত বরুসিয়া ডর্টমুন্ড থেকে উসমানে ডেম্বেলেকে দলে ভিড়িয়েই ছেড়েছে বার্সেলোনা। তবে তার আগে নাটক হয়েছে অনেক। ২০ বছর বয়সী ফরাসি তরুণের জন্য ডর্টুমন্ড তিন তিন বার ফিরিয়ে দেয় বার্সেলোনার প্রস্তাব। শেষ পর্যন্ত ডর্টমুন্ডের ‘না’ ‘হ্যাঁ’তে পরিণত হয় বিশাল অঙ্কের চতুর্থ প্রস্তাবে। সেটাও সম্ভব হয়েছে আসলে ডেম্বেলের কারণেই। ফরাসি তরুণ বার্সেলোনায় যোগ দিতে মরিয়া হয়ে উঠেছিলেন। ক্লাব ডর্টুমন্ডের সঙ্গে ঘোষণা করেছিলেন বিদ্রোহ। অনুশীলন বয়কট করেন। খেলেননি ম্যাচও। কেন ডেম্বেলে বার্সায় যোগ দিতে এতোটা মরিয়া ছিলেন? দেরিতে হলেও কারণটা আবিষ্কার করেছে জার্মান সাপ্তাহিক ম্যাগাজিন স্পেইজেল। ডর্টমুন্ডে যা বেতন পেতেন, বার্সেলোনা ডেম্বেলেকে রাজি করাতে প্রস্তাব করে তার পাঁচ গুণ বেতন। বিশাল অঙ্কের সেই বেতনের প্রস্তাবই ঘুরিয়ে দিয়েছিল ডেম্বেলের মাথা!

সত্যিই তাই। বার বার প্রস্তাব পাঠিয়েও যখন ডর্টমুন্ডকে রাজি করাতে পারছিল না, বার্সেলোনা তখন হাঁটে দলবদলের ‘কুৎসিত’ বা ‘কালো’ পথে। বেছে নেয় ব্যক্তিগতভাবে খেলোয়াড়কে প্ররোচিত করার পথ। যার মধ্যে প্রধানতম টোপ ছিল ৫ গুণ বেতেনর প্রস্তাব। ডর্টমুন্ডে ফরাসি তরুণের বার্ষিক বেতন ছিল ২.৪ মিলিয়ন পাউন্ড বা ২.৭ মিলিয়ন ইউরো। বার্সা ডেম্বেলেকে প্রস্তাব করে তার ৫ গুণ, মানে বার্ষিক ১২ মিলিয়ন পাউন্ড বা ১৩.৫৫ মিলিয়ন ইউরো!

এমনিতেই বার্সেলোনা তার স্বপ্নের ক্লাব। লিওনেল মেসি তার স্বপ্নের তারকা। সেই ছোটবেলা থেকেই মেসির সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে বার্সেলোনায় খেলার স্বপ্ন দেখে বড় হয়েছেন। সেই প্রিয় ক্লাবে প্রিয় তারকার সঙ্গে খেলার হাতছানীই ডেম্বেলেকে উজ্জীবিত করার জন্য যথেষ্ট ছিল। তার সঙ্গে বিশাল অঙ্কের বেতনের প্রস্তাব, এক লাফেই বড় লোক বনে যাওয়ার হাতছানী তরুণ ডেম্বেলের মাথাটা আক্ষরিক অর্থেই ঘুরিয়ে দেয়। উপরে উঠার এই সিঁড়িতে চড়ার জন্য মরিয়া হয়ে উঠেন। ডেম্বেলের জেদের কাছে শেষ পর্যন্ত ডর্টমুন্ডও হার মানে। ‘বেচব না’ ‘বেচব না’ করেও শেষ পর্যন্ত ডেম্বেলেকে বিক্রি করতে বাধ্য হয়েছে জার্মান ক্লাবটি। সুযোগ বুঝে ডর্টমুন্ডও ভরে নিয়েছে নিজের অর্থ ভান্ডার।

এক বছর আগে যে ডেম্বেলেকে কিনেছিল মাত্র ১২ মিলিয়ন ইউরো দিয়ে, বছর ঘুরে সেই ডেম্বেলেকেই ডর্টমুন্ড বিক্রি করেছে ১৪৭ মিলিয়ন ইউরোতে! এর মধ্যে নগদই পেয়েছে ১০৫ মিলিয়ন ইউরো। বাকি ৪২ মিলিয়ন ইউরো পাওয়ার কথা বিভিন্ন শর্ত সাপেক্ষে। এর মধ্যে প্রথম শর্তের ১০ মিলিয়ন ইউরো বুঝি হারাতেই হচ্ছে ডর্টমুন্ডকে। শর্ত আছে প্রথম মৌসুমে ডেম্বেলে ৫০ ম্যাচ খেলতে পারলে বাড়তি ১০ মিলিয়ন ইউরো পাবে ডর্টমুন্ড। কিন্তু বার্সায় যোগ দেওয়ার পরপরই গুরুতর চোটে পড়েছেন ডেম্বেলে। করাতে হয়েছে অস্ত্রোপচার। এ বছরই আর মাঠে নামতে পারবেন বলে খবর। যার অর্থ, মৌসুমে ডেম্বেলের ৫০ ম্যাচ খেলার কোনো সম্ভাবনাই নেই। ফলে বেচে যাচ্ছে বার্সেলোনা ১০ মিলিয়ন ইউরো।

কেআর

 

print
 

আলোচিত সংবাদ

nilsagor ad