মেসিদের শরীরে ‘করোনা’ পরীক্ষা চালাবে নাপোলি!
Back to Top

ঢাকা, শুক্রবার, ৩ এপ্রিল ২০২০ | ২০ চৈত্র ১৪২৬

মেসিদের শরীরে ‘করোনা’ পরীক্ষা চালাবে নাপোলি!

পরিবর্তন ডেস্ক ১০:০৪ পূর্বাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০২০

মেসিদের শরীরে ‘করোনা’ পরীক্ষা চালাবে নাপোলি!

উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ম্যাচ খেলতে আজ ইতালিতে উড়ে যাচ্ছে বার্সেলোনা। তবে অনুশীলনের মাঠ বা হোটেল রোমে নয়, নেপলসের বিমানবন্দরে নেমেই লিওনেল মেসিসহ বার্সেলোনার খেলোয়াড়দের দৌড়াতে হবে পরীক্ষাগারের দিকে। মেসিরা স্পেন থেকে ভয়াবহ করোনা ভাইরাস বয়ে এনেছেন কিনা, সেটাই পরীক্ষা করে দেখা হেবে!

হতে পারেন তিন বিশ্বসেরা ফুটবলার। তাই বলে ভয়ঙ্কর করোনা ভাইরাসের সংশয় মুক্ত তো নন। মানুষ হিসেবে সন্দেহের তালিকায় তাই মেসিও। সেই সংশয় থেকেই মাঠে নামার আগে মেসিসহ বার্সেলোনার খেলোয়াড়দের স্বাস্থপরীক্ষা করবে নাপোলি!

চীনে জন্ম নেওংয়া মরণঘাতী করোনা ভাইরাস পুরো বিশ্বেই ছড়িয়ে পড়েছে। ছোঁয়া লেগেছে ইতালিতেও। এরই মধ্যে ইউরোপের এই দেশটিতে ৬০ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। যাদের দুজন মারাও গেছেন। মরণঘাতী এই ভাইরাসের ভয়াবহতা ঠেকাতে দেশটিতে তাই কড়াকাড়ি আরোপ করা হয়েছে। বাইরের দেশ আসা মানুষেরা যাতে করোনা ভাইরাস নিয়ে ইতালিতে ঢুকতে না পারে, সেজন্যই সবার জন্য বাধ্যতামূলক স্বাস্থ পরীক্ষার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

মেসিদের তাই নেপলস বিমানবন্দরে নেমেই ছুটতে হবে স্বাস্থপরীক্ষার জন্য। পরীক্ষায় ভাইরাসমুক্ত প্রমাণিত হলেই রাতে মাঠে নামতে পারবেন মেসিরা। কোনোভাবে ভাইরাস বাসা বেঁধে থাকলে পরীক্ষাগার থেকেই মেসিদের ফিরতে হবে স্পেনে। রাতে নাপোলির বিপক্ষে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ ষোলদের প্রথম লেগ ম্যাচটি আর খেলা হবে না!

করোনা আতঙ্কে স্বাস্থপরীক্ষা একটা আনুষ্ঠানিকতা মাত্র। মানবিক কারণে মেসিরাও হয়তো হাসিমুখেই নিজেদের স্বাস্থপরীক্ষা করাতে যাবেন। তবে তাদের ভাবনায় শুধুই রাতের ম্যাচ। ২০১৭-১৮ মৌসুমে এই ইতালিতে এসেই মেসিদের চ্যাম্পিয়ন্স লিগ শিরোপা স্বপ্ন খানখান হয়ে যায়।

সেবার কোয়ার্টার ফাইনালে নিজেদের ঘরের মাঠের প্রথম লেগে ৪-১ গোলে জয়ের পরও মেসিদের বার্সেলোনা এএস রোমার মাঠে গিয়ে ফিরতি লেগে হেরে যায় ৩-০ গোলে। দুই লেগ মিলিয়ে স্কোর ৪-৪ হলেও রোমা সেমিফাইনালে পা রাখে একটা অ্যাওয়ে গোল হাতে থাকায়। রোম থেকে মেসিদের ফিরতে হয় স্বপ্নভঙ্গের বেদনা নিয়ে।

গত মৌসুমেও এই অ্যাওয়ে ম্যাচেই কপাল পুড়েছে বার্সেলোনার। সেটি অবশ্য সেমিফাইনালে, ইংলিশ ক্লাব লিভারপুলের বিপক্ষে। তবে প্রতিপক্ষ যারাই হোক, স্বপ্নভঙ্গ তো হয়েছে অ্যাওয়ে ম্যাচেই। আজও সেই অ্যাওয়ে ম্যাচ। প্রতিপক্ষও সেই ইতালিয়ান ক্লাব, এএস রোমার পরিবর্তে নাপোলি। ফলে এবার ভয়টা আরও বেশি। কারণ, এবারের যুদ্ধটা কোয়ার্টার ফাইনালেরও এক ধাপ আগে, শেষ ষোলতে।

মেসিদের মাথায় তাই একটাই ভাবনা, যে করেই হোক ‘অ্যাওয়ে ট্র্যাজেডি’ এড়াতে হবে। আর সেটা করতে হলে সামনে থেকেই নেতৃত্ব দিতে হবে অধিনায়ক মেসিকে। ডিয়েগো ম্যারাডোনার স্বদেশি বলে যাকে নিয়ে নাপোলিতে শুরু হয়েছে আলাদা উন্মাদনা।

নাপোলিকে অখ্যাত থেকে বিখ্যাত বানিয়েছিলেন ম্যারাডোনা। আজ তার স্বদেশি মেসি তারই হাতে গড়া সেই নাপোলির বারোটা বাজাতে যাচ্ছেন। ফলে বিশ্বসেরা মেসিকে নিয়ে নাপোলিতে শুরু হয়েছে চুল-চেরা বিশ্লেষণ। তাকে কিভাবে আটকে রাখা যায়, হন্যে হয়ে সেই সূত্র খুঁজে ফিরছেন নাপোলির কোচ। মেসি পারবেন ‘করোনা পরীক্ষা’ এবং প্রতিপক্ষের সব গবেষণাকে অসাড় প্রমাণ করে বার্সেলোনাকে অ্যাওয়ে জয় এনে দিতে?

নাপোলি-বার্সেলোনার পাশাপাশি আজ রাতে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ম্যাচ আছে আরও একটি। মুখোমুখি হবে ২০১২ সালের চ্যাম্পিয়ন চেলসি ও ২০১৩ সালের চ্যাম্পিয়ন বায়ার্ন মিউনিখ। দুই দলের আজকের প্রথম লেগটি হবে চেলসির মাঠ স্টাম্পফোর্ড ব্রিজে।

কেআর 

 

খেলাধুলা: আরও পড়ুন

আরও