আবারও ‘ভালো খেলে ড্র’র রোগে আক্রান্ত রিয়াল
Back to Top

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২ এপ্রিল ২০২০ | ১৮ চৈত্র ১৪২৬

আবারও ‘ভালো খেলে ড্র’র রোগে আক্রান্ত রিয়াল

পরিবর্তন ডেস্ক ১০:২৬ পূর্বাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১৭, ২০২০

আবারও ‘ভালো খেলে ড্র’র রোগে আক্রান্ত রিয়াল

এই মৌসুমে এমনটা অনেক ম্যাচেই হয়েছে। মাঠে বল দখলের লড়াইয়ে একচ্ছত্র আধিপত্য রিয়াল মাদ্রিদের। কিন্তু ফল, হার নয়তো ড্র। তবে এই রোগ থেকে বেরিয়ে এসেছে লা লিগায় টানা ৫ ম্যাচে জয় তুলে নিয়েছিল রিয়াল।

কিন্তু কাল রাতে আবারও সেই ভালো খেলে ড্র হতাশার রোগে আক্রান্ত রিয়াল। মাঠে একচ্ছত্র আধিপত্য দেখিয়েও জিনেদিন জিদানের দল পুঁচকে সেল্টা ভিগোর সঙ্গে ২-২ গোলের ড্র হতাশায় পুড়েছে। সেটাও নিজেদের দূর্গ সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে।

এই ড্রয়ের পরও অবশ্য লা লিগার পয়েন্ট তালিকার শীর্ষেই অবস্থান করছে জিদানের দল। ২৪ ম্যাচে ৫৩ পয়েন্ট নিয়ে এক নম্বরে রিয়াল মাদ্রিদ। ১ পয়েন্ট কম মানে ৫২ পয়েন্ট নিয়ে তাদের ঘাড়ে তপ্ত নিঃশ্বাস ফেলছে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী বার্সেলোনা।

দুর্দান্ত দাপটের সঙ্গে টানা ৫ ম্যাচে জয়। যার সুবাদে বার্সেলোনাকে টপকে রিয়াল মাদ্রিদ উঠে আসে পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে। কালও বার্নাব্যুতে তাই জয়ের স্বপ্ন নিয়েই মাঠে নেমেছিল রিয়াল। পয়েন্ট তালিকার ১৭ নম্বর দলের বিপক্ষে জয়ের স্বপ্ন দেখাটা বাস্তব সম্মতও ছিল। কিন্তু ওই যে এ মৌসুমে রিয়ালকে পেয়ে বসেছে ‘ভালো খেলেও পয়েন্ট হারানোর’ রোগ।

বার্নাব্যুতে কাল আবার সেই রোগের শিকার হতে হলো জিদানের দলকে। ম্যাচে রিয়ালের বল পজেশন ছিল ৬৫.৮ শতাংশ। সেখানে সেল্টা ভিগোর বল পজেশন ছির মাত্র ৩৪.২ শতাংশ। প্রতিপক্ষের গোলমুখে রিয়াল শট নিয়েছে মোট ১৫টি। বিপরীতে সেল্টা ভিগো শট নিয়েছে মাত্র ৫টি। এই সব পরিসংখ্যান স্পষ্টই বলছে, ম্যাচে একচ্ছত্র রাজত্ব করেছে স্বাগতিক রিয়াল।

কিন্তু গোল করার দৌড়ে? পুঁচকে সেল্টা ভিগো দক্ষতা দেখিয়েছে সমানে সমানে। একটু ভুলই হলো। আসলে ফিল্ড গোলের দক্ষতায় অতিথি সেল্টা ভিগোই বেশি দক্ষতা দেখিয়েছে। তাদের দুটি গোলই ফিল্ড গোল। বিপরীতে রিয়াল দুই গোলের একটি করেছে পেনাল্টি থেকে।

টানা ষষ্ঠ জয় তুলে নেওয়ার পণ করেই মাঠে নামে রিয়াল। কিন্তু ম্যাচের ৭ মিনিটেই বার্নাব্যুর গর্জন থামিয়ে দেন ফেদর স্মোলোভ। রিয়ালের দুই ডিফেন্ডার রাফায়েল ভারানে ও ড্যানি কারবাহালের ফাঁক গলে দুর্দান্ত দক্ষতায় সেল্টা ভিগোকে এগিয়ে দেন তিনি।

রিয়ালের হয়ে এই গোলটি শোধ করেন টনি ক্রুস। জার্মান মিডফিল্ডার রিয়ালকে সমতায় ফেরান ৫২ মিনিটে। এরপর ৬৫ মিনিটে এগিয়েও যায় রিয়াল। পেনাল্টি থেকে গোল করে দলকে ২-১ গোলের লিড এনে দেন অধিনায়ক সার্জিও রামোস।

তার এই গোলে রিয়াল জয় পেতে যাচ্ছিল বলেই মনে হচ্ছিল। কিন্তু ৮৫ মিনিটে অসাধারণ এক গোল করে সেল্টা ভিগোকে সমতায় ফেরান সান্তি মিনা। ফল, ঘরের মাঠে ভালো খেলেও রিয়ালকে মাঠ ছাড়তে হয় মহামূল্যবান ২ পয়েন্ট হারানোর বেদনা নিয়ে।

কেআর

 

খেলাধুলা: আরও পড়ুন

আরও