যাদের কিনে দুই বছর নিষিদ্ধ ম্যান সিটি
Back to Top

ঢাকা, শুক্রবার, ৩ এপ্রিল ২০২০ | ২০ চৈত্র ১৪২৬

যাদের কিনে দুই বছর নিষিদ্ধ ম্যান সিটি

পরিবর্তন ডেস্ক ৪:৩২ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১৫, ২০২০

যাদের কিনে দুই বছর নিষিদ্ধ ম্যান সিটি

ম্যানচেস্টার সিটির বিরুদ্ধে উয়েফার ফেয়ার-প্লে নীতি ভঙ্গ করে খেলোয়াড় ক্রয়ে মাত্রাতিরিক্ত খরচ করার অভিযোগ ওঠে অনেক আগেই। তবে খেলোয়াড় ক্রয়ে অতিরিক্ত খরচ করে আর্থিক হিসেব গরমিল করে ফেলার অপরাধে ইংলিশ ক্লাবটির কি শাস্তি হয়, সেটিই ছিল দেখার। তা ইংলিশ ক্লাবটিকে কড়া শাস্তিই দিয়েছে ইউরোপিয়ান ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থা উয়েফা। ইউরোপিয়ান টুর্নামেন্ট থেকে দুই বছরের জন্য নিষিদ্ধ করেছে ম্যান সিটিকে।

গতকাল ১৪ ফেব্রুয়ারি বিশ্ব ভালোবাসা দিবসে সবাই যখন নিজেদের ভালোবাসার মুহূর্ত কাটাচ্ছিলেন, ম্যান সিটির খেলোয়াড়-কোচ-কর্মকর্তাদের তখন ‘নিষিদ্ধ’ হওয়ার দুঃসংবাদে সংবাদে দম বন্ধ হওয়ার জোগাড়। কারণ, ১৪ ফেব্রুয়ারি বিশ্ব ভালোবাসা দিবসেই ম্যান সিটিকে দুই বছরের জন্য নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে উয়েফা। মানে আগামী দুই মৌসুম ম্যান সিটি উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগ বা উয়েফা ইউরোপা লিগে খেলতে পারবে না।

ম্যান সিটি অবশ্য এই নিষেধজ্ঞার জন্য আন্তর্জাতিক ক্রীড়া আদালতে আপিল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তবে কাদের কিনে ম্যান সিটি এই শাস্তি পেল, সেটাই এখন বিশ্ব ফুটবলপ্রেমীদের মুখে মুখে। উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে রাজত্ব প্রতিষ্ঠার আশাতেই গত এক দশকে একের পর এক খেলোয়াড় কিনেছে ম্যান সিটি।

তবে সিটির বিরুদ্ধে আর্থিক গরমিলের অভিযোগটা ২০১২ থেকে ২০১৬, এই সময়ের মধ্যে। এই ৪ বছরে স্পন্সরশিপ খাত থেকে যতটা রাজত্ব আয় করেছে ম্যান সিটি, তার হিসাবে গরমিল পেয়েছে উয়েফা। গরমিলটা সৃষ্টি হয়েছে অতিরিক্ত খেলোয়াড় কেনার কারণেই। একের পর এক খেলোয়াড় কিনে দুহাতে টাকা খরচের কারণেই সিটি আর্থিক হিসাবটা ঠিকঠাক দেখাতে পারেনি। এমনকি তদন্ত কাজে উয়েফাকে যথাযথভাবে সহযোগিতাও করেনি ইংলিশ ক্লাবটি।

উয়েফার তদন্তের ভিত্তিতে জানা যাচ্ছে, উয়েফার ফেয়ার প্লে নীতি ভঙ্গ করে ২০১২ থেকে ২০১৬ সালের মাধ্য মোট ২৪ জন খেলোয়াড় কিনেছে ম্যান সিটি। মানে উয়েফার নীতি ভঙ্গ করে ম্যান সিটি ২০১২ সালে খেলোয়াড় কিনেছে ৩ জন, ২০১৩ সালে ৫ জন, ২০১৪ সালে ৩ জন, ২০১৫ সালে ৬ জন ও ২০১৬ সালে কিনেছে ৭ জনকে।

এই ২৪ জন খেলোয়াড় কেনার পেছনে ম্যান সিটি খরচ করেছে ৭০০ মিলিয়ন ইউরোরও বেশি। কোন সালে কাকে কাকে কিনে ম্যান সিটি এই নিষেধাজ্ঞার শাস্তি পেল, তাদের তালিকাটা সন অনুযায়ী নিচে তুলে ধরা হলো।

২০১২ সাল

জাভি গার্সিয়া : স্প্যানিশ মিডফল্ডার, বেনফিকা থেকে ১৭ মিলিয়ন পাউন্ডে

মাতিয়া নাসতাসিচ: সার্বিয়ান লেফটব্যাক, ১৫ মিলিয়ন পাউন্ড, ফিওরেন্তিনা থেকে

জ্যাক রডওয়েল : ইংলিশ মিডফিল্ডার, এভারটন থেকে ১৫ মিলিয়ন পাউন্ডে

২০১৩ সাল

জেসুস নাভাস : স্প্যানিশ উইঙ্গার, সেভিয়া থেকে ১৭ মিলিয়ন পাউন্ডে

স্তেভান ইয়েভেভিচ : মন্টেনিগ্রোর স্ট্রাইকার, ২২ মিলিয়ন পাউন্ড, ফিওরেন্তিনা থেকে

ফার্নান্দিনহো : ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার, ৩০ মিলিয়ন পাউন্ড, শাখতার থেকে

আলভারো নেগ্রেঁদো : স্প্যানিশ স্ট্রাইকার, ২০ মিলিয়ন পাউন্ড, সেভিয়া থেকে

মার্টিন ডেমিকেলিস : আর্জেন্টাইন ডিফেন্ডার, ৪ মিলিয়ন পাউন্ড, অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদ থেকে

২০১৪ সাল

ফার্নান্দো : ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার, ১২ মিলিয়ন পাউন্ড, পোর্তো থেকে

এলিয়াকুইম মাঙ্গালা : ফরাসি ডিফেন্ডার, ৪২ মিলিয়ন পাউন্ড, পোর্তো থেকে

উইয়ি ক্যাবায়েরো : আর্জেন্টাইন গোলরক্ষক, ৪.৪ মিলিয়ন পাউন্ড, মালাগা থেকে

২০১৫ সাল

কেভিন ডি ব্রুইন : বেলজিয়ান মিডফিল্ডার, ৫৫ মিলিয়ন পাউন্ড, ভলসবুর্গ থেকে

উইলফ্রায়েড বেনি : আইভরিকোস্টিয়ান স্ট্রাইকার, ২৫ মিলিয়ন পাউন্ড, সোয়ানসি সিটি থেকে

রাহিম স্টার্লিং : ইংলিশ ফরোয়ার্ড, ৫০ মিলিয়ন পাউন্ড, লিভারপুল থেকে

প্যাট্রিক রবার্টস : ইংলিশ স্ট্রাইকার, ১২ মিলিয়ন পাউন্ড, ফুলহাম থেকে

ফাবিয়ান ডেলফ : ইংলিশ মিডফিল্ডার, ৮ মিলিয়ন পাউন্ড, অ্যাস্টন ভিলা থেকে

নিকোলাস ওটামেন্ডি : আর্জেন্টাইন ডিফেন্ডার, ২৮.৪ মিলিয়ন পাউন্ড, ভ্যালেন্সিয়া থেকে

২০১৬ সাল

লেরয় শেন : জার্মান উইঙ্গার, ৩৭ মিলিয়ন পাউন্ড, শালকে জিরো ফোর থেকে

ক্লদিও ব্রাভো : চিলিয়ান গোলরক্ষক, ১৫.৪ মিলিয়ন পাউন্ড, বার্সেলোনা থেকে

জন স্টোনস : ইংলিশ ডিফেন্ডার, ৪৭.৫ মিলিয়ন পাউন্ড, এভারটন থেকে

মার্লোস মরেনো : কলম্বিয়ান স্ট্রাইকার, ৫ মিলিয়ন পাউন্ড, অ্যাটলেটিক ন্যাসিওনাল থেকে

নলিতো : স্প্যানিশ উইঙ্গার, ১৩.৮ মিলিয়ন পাউন্ড, সেল্টা ভিগো থেকে

ইলকায়ে গুন্ডোগান : জার্মান মিডফিল্ডার, ২০ মিলিয়ন পাউন্ড, ডর্টমুন্ড থেকে

ওলেকসান্দার জিনচেঙ্কো : ইউক্রেনিয়ান ডিফেন্ডার, ১.৭ মিলিয়ন পাউন্ড, ইউএফএ থেকে

এই ২৪ জনের মধ্যে ১৫ জনই আজ ম্যান সিটিতে নেই। মানে পারফরম্যান্স প্রত্যাশিত মানের না হওয়ায় তাদের বিক্রি করে দিয়েছে ইংলিশ ক্লাবটি। চড়া দামে কেনা এই ২৪ জনের মধ্যে ৯ জন বর্তমানে আছেন। তারা হলেন ক্লদিও ব্রাভো, জন স্টোনস, কেভিন ডি ব্রুইন, ওলেকসান্দার নিজচেঙ্কো, লেরয় শেন, ইলকায়ে গন্ডোগান, রাহিম স্টার্লিং, নিকোলাস ওটামেন্ডি ও ফার্নান্দিনহো। ভালো না করায় যাদের ছেড়ে দিয়েছে, তাদের যদি চড়া দামে না কিনত, তাহলে কিন্তু আজ ম্যান সিটিকে এমন চরম শাস্তি পেতে হতো না!

কেআর

 

খেলাধুলা: আরও পড়ুন

আরও