এই আক্ষেপে আর কত পুড়বেন রোনালদো!

ঢাকা, শুক্রবার, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০ | ৯ ফাল্গুন ১৪২৬

এই আক্ষেপে আর কত পুড়বেন রোনালদো!

পরিবর্তন ডেস্ক ১০:৫৫ পূর্বাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১৪, ২০২০

এই আক্ষেপে আর কত পুড়বেন রোনালদো!

দলে পাওলো দিবালা, গঞ্জালো হিগুয়েইনের মতো দুজন পরীক্ষিত ফরোয়ার্ড আছেন। তারপরও জুভেন্টাস যেন এক ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোর উপরই নির্ভরশীল। দলকে জেতানোর সব দায়িত্ব যেন পর্তুগিজ সুপারস্টারের কাঁধে। অবিশ্বাস্য কারিশমায় রোনালদো কখনো তা পারছেন, কখনো নিজে গোল করেও দলকে জেতাতে পারছেন না। সর্বশেষ ৪ ম্যাচের মধ্যের মধ্যে ৩ ম্যাচেই এই না পারার আক্ষেপে পুড়তে হলো রোনালদোকে। গতকাল রাতেও রোনালদো নিজে গোল করলেও দল জুভেন্টাসকে জেতাতে পারেননি।

তবে জেতাতে না পারলেও জয় সমান ড্র এনে দিতে পেরেছেন। তার শেষ মুহূর্তের পেনাল্টি গোলেই ১০ জনের দল এসি মিলানের বিপক্ষে কোপা ইতালিয়ার সেমিফাইনালের প্রথম লেগে ১-১ গোলের ড্র করতে পেরেছে জুভেন্টাস। সমতা এনে দেওয়া গোলটি করে রোনালদো ভালোভাবেই জিঁইয়ে রাখলেন জুভেন্টাসের ফাইনালের আশা।

আগামী ৪ মার্চ সেমিফাইনালের ফিরতি লেগটি জুভেন্টাসের ঘরের মাঠে। ফলে এক হিসেবে রোনালদোর একার কাঁধে সওয়ার হওয়া জুভেন্টাসের ফাইনালে পা রাখার সম্ভাবনাই বেশি। তবে সেই সম্ভাবনাকে বাস্তবে রূপ দিতে হলো যা করার করতে হবে রোনালদোকেই। দিবালা-হিগুয়েইনসহ জুভেন্টাসের অন্য ফরোয়ার্ডরা যে গোল করাই ভুলে গেছেন।

৩৫ বছর বয়সী রোনালদো এই মুহূর্তে অবিশ্বাস্য ফর্মে রয়েছেন। মাঠে নামলেই পাচ্ছেন গোল। গড়ছেন একের পর এক রেকর্ড। কিন্তু অন্যদের ব্যর্থতায় সর্বশেষ ৪ ম্যাচের ৩টিতেই তাকে মাঠ ছাড়তে হলো হতাশা নিয়ে। ফলে ‘গোল করেও দলকে জেতাতে না পারার রোগে’ ভুগতে হচ্ছে তাকে।

কাল কোপার সেমিফাইনালেল প্রথম লেগটিতে নিজেদের মাঠ এস্তাদিও সান সিরোতে এসি মিলানই দাপট দেখিয়েছে বেশি। মাঠে বল দখলের রাজত্বের সুবাদেই ৬১ মিনিটে এগিয়ে যায় এসি মিলান। আন্তে রেবিচের এনে দেওয়া লিডটা ৯০ মিনিট পর্যন্ত ধরেও রেখেছিল মিলান। কিন্তু ইনজুরি সময়ের প্রথম মিনিটেই পেনাল্টি পেয়ে যায় জুভেন্টাস। ফর্মের তুঙ্গে থাকা রোনালদো সুযোগটা হাতছাড়া করেননি।

রোনালদোর এই সমতা ফেরানো গোলের আগেই অবশ্য অন্য একটা সুবিধা পেয়ে যায় জুভেন্টাস। ম্যাচের ৭৫ মিনিটে লালকার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন মিলানের থিও হার্নান্দেজ। ফলে মিলানকে ম্যাচের বাকি সময়টুকু খেলতে হয়েছে ১০ জন নিয়ে। তারপরও জুভেন্টাস এর ফায়দা তুলতে পারছিল না। তবে রোনালদোর কাঁধে চেয়ে শেষ পর্যন্ত ফায়দাটা ঠিকই তুলে নিয়েছে জুভেন্টাস।

কেআর

 

খেলাধুলা: আরও পড়ুন

আরও