রোনালদোর এই কীর্তি ইতিহাসে আর কারো নেই

ঢাকা, সোমবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০ | ১২ ফাল্গুন ১৪২৬

রোনালদোর এই কীর্তি ইতিহাসে আর কারো নেই

পরিবর্তন ডেস্ক ১২:৩২ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২০, ২০২০

রোনালদোর এই কীর্তি ইতিহাসে আর কারো নেই

নিজের অবিশ্বাস্য ফর্মের চাকাটা ঘুরিয়েই যাচ্ছেন ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো। সাম্প্রতিক সময়ে যে স্বপ্নময় ফর্মে রয়েছেন সেটা অব্যাহত রেখে কাল পার্মার বিপক্ষে জোড়া গোল করেছেন জুভেন্টাসের পর্তুগিজ সুপারস্টার। ২ গোল করে তিনি জুভেন্টাসকে শুধু ২-১ গোলের জয়ই এনে দেননি, নিজেও গড়েছেন এত্তগুলো কীর্তি। তার মধ্যে এমন একটা কীর্তি কাল গড়েছেন রোনালদো, যে কীর্তি ইতিহাসে আর কোনো খেলোয়াড়ের নেই।

কালকের ২ গোল মিলিয়ে ইতালিয়ান সিরি আ’তে এ মৌসুমে ১৬ গোল হলো রোনালদোর। এ নিয়ে টানা সর্বশেষ ১৪ মৌসুমে লিগে অন্তত ১৫ গোল করার কৃতিত্ব দেখালেন রোনালদো। ইউরোপের শীর্ষ ৫টি লিগে (ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ, স্প্যানিশ লা লিগা, ইতালিয়ান সিরি ‘আ’, জার্মান বুন্দেসলিগা ও ফ্রেঞ্চ লিগ ওয়ান) ইতিহাসে কখনোই কোনো খেলোয়াড় এই কীর্তি গড়তে পারেননি।

ম্যারাডোনা, জর্জ বেস্ট, ফেরেঙ্ক পুসকাস, জার্ড মুলারদের মতো কিংবদন্তি গোল-স্কোরারদের থেকে শুরু করে নিকট অতীতের রোমারিও, রোনাল্ডো, বাতিস্তুতা, রবার্তো বেজ্জিওরাও যা কখনো করতে পারেননি, সেটাই করলেন রোনালদো। এমনকি হালের মেসিরও এই কীর্তি নেই।

অনন্য এই কীর্তির পাশাপাশি ছোটখাট কিছু রেকর্ডেও কাল নাম লিখিয়েছেন রোনালদো। এ নিয়ে জুভেন্টাসের হয়ে সিরি আ’র সর্বশেষ ৭ ম্যাচেই গোল করলেন তিনি। ২০০৫ সালে ফরাসি ফরোয়ার্ড ডেভিড ত্রেজেগের পর জুভেন্টাসের প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে এই কীর্তি গড়লেন তিনি।

জুভেন্টাসের ইতিহাসে পঞ্চম খেলোয়াড় হিসেবে লিগের প্রথম ২০ ম্যাচে ১৬ গোল করার কৃতিত্ব দেখালেন তিনি। তার আগে জুভেন্টাসের হয়ে আরও ৪ জন এই কীর্তি গড়েছেন। তবে তাদের মধ্যে সর্বশেষ এই কৃতিত্ব দেখিয়েছেন ওমর সিভোরি, সেটা সেই ১৯৬০ সালে। মানে গত ৬০ বছরে জুভেন্টাসের প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে রোনালদো লিগের প্রথম ২০ ম্যাচে ১৬ গোল করলেন।

এই ২ গোলের মধ্যদিয়ে ইউরোপিয়ান গোল্ডেন বুটের দৌড়েও চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী লিওনেল মেসির চেয়ে ২ গোলে এগিয়ে গেলেন রোনালদো। মেসি বার্সেলোনার হয়ে মেসি মৌসুমে এ পর্যন্ত করেছেন ১৪ গোল। গোল্ডেন বুটের দৌড়ে রোনালদোর উপরে কেবল সিরো ইমোবাইল ও রবার্ট লেভান্ডভস্কি।

গোল্পের বুটের দৌড়ে সবার উপরে ইতালিয়ান তরুণ ফরোয়ার্ড সিরো ইমোবাইল। ইতালিয়ান সিরি আ’তে লাৎসিও’র হয়ে তিনি এ পর্যন্ত করেছেন ২৩ গোল! দ্বিতীয় স্থানে থাকা বায়ার্ন মিউনিখের পোলিশ ফরোয়ার্ড লেভান্ডভস্কি করেছেন ২০ গোল।

যাই হোক, কাল নিজেদের ঘরের মাঠে জুভেন্টাস ম্যাচের শুরু থেকেই প্রতিপক্ষ পার্মার ওপর চাপ সৃষ্টি করে খেলতে থাকে। একের পর এক আক্রমেণ পার্মার রক্ষণ কাঁপিয়ে দেন রোনালদো, পাওলো দিবালারা। কিন্তু গোলের দেখা পেতে জুভেন্টাসকে অপেক্ষা করতে হয়েছে ৪৩ মিনিট পর্যন্ত।

বিরতির আগে আগে জুভেন্টাস প্রথম লিডটা অবশ্য পায় রোনালদো-দিবালার ‘পর্তুগিজ-আর্জেন্টাইন’ রসায়নেই। দিবালার পাস থেকে দারুণ এক গোল করে দলকে এগিয়ে দেন রোনালদো। জুভেন্টাস এই লিডটা ধরে রাখতে পারে মাত্র ১২ মিনিট। ৫৫ মিনিটেই সফরকারী পার্মাকে সমতায় ফেরান কমেলিয়াস। কিন্তু ৫৮ মিনিটেই আবার জুভেন্টাস সমর্থকদের আনন্দে নাচিয়ে তোলেন রোনালদো। জুভেন্টাসকে এগিয়ে দেন ২-১ গোলে। শেষ পর্যন্ত এই ব্যবধান ধরে রেখেই মাঠ ছেড়েছে জুভেন্টাস।

দারুণ এই জয়ে শীর্ষস্থানটা কিছুটা সংহত করল জুভেন্টাস। কারণ, কাল টানা দ্বিতীয় ম্যাচে হোচট খেয়েছে কদিন আগেও শীর্ষে থাকা ইন্টার মিলান। ১১ জানুয়ারি আটালান্টার সঙ্গে ১-১ গোলে হতাশায় পোড়া ইন্টার মিলান কালও একই ভাগ্য বরণ করেছে। পুঁচকে লেচ্চের সঙ্গে ড্র করেছে সেই ১-১ গোলেই। এর ফলে ২০ ম্যাচে ৫১ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে রোনালদো-দিবালাদের জুভেন্টাস। সমান ম্যাচে ৪৭ পয়েন্ট নিয়ে দুই নম্বরে ইন্টার মিলান।

কেআর

 

খেলাধুলা: আরও পড়ুন

আরও