এল ক্লাসিকো নিয়ে ‘দুই ক্ষোভে’ পুড়ছে রিয়াল

ঢাকা, সোমবার, ২৭ জানুয়ারি ২০২০ | ১৪ মাঘ ১৪২৬

এল ক্লাসিকো নিয়ে ‘দুই ক্ষোভে’ পুড়ছে রিয়াল

পরিবর্তন ডেস্ক ১১:৩৭ পূর্বাহ্ণ, ডিসেম্বর ১০, ২০১৯

এল ক্লাসিকো নিয়ে ‘দুই ক্ষোভে’ পুড়ছে রিয়াল

আগামী ১৮ ডিসেম্বর মর্যাদার এল ক্লাসিকো। ন্যু-ক্যাম্পে মুখোমুখি হচ্ছে বিশ্বের সবচেয়ে বড় দুই ক্লাব বার্সেলোনা ও রিয়াল মাদ্রিদ। ধ্রুপদী সেই লড়াইয়ের আগে দুই দলই রয়েছে দুর্দান্ত ফর্মে। সুতরাং, এবারের ‘এল ক্লাসিকো’ আরও বেশি আগুন-তপ্ত হবে বলেই আভাস। তবে বাইরে যতই আভাস-রোমাঞ্চ ছড়াক, ভেতরে ভেতরে রিয়াল মাদ্রিদ পুড়ছে ‘দুই অসন্তুষ্টির আগুনে।

১৮ ডিসেম্বরের এল ক্লাসিকো নিয়ে সত্যিকার অর্থেই ‘দুই ক্ষোভ’ রিয়াল শিবিরে। ক্ষোভ, হতাশা, অসন্তুষ্টি— যাই বলুন, তার প্রথম কারণ হলো, এল ক্লাসিকো পরিচালনার দায়িত্বে নিয়োজিত রেফারি। এবারের মর্যাদার এল ক্লাসিকো পরিচালনার জন্য মূল রেফারি হিসেবে নিয়োগ করা হয়েছে আলেজান্দ্রো হোসে হার্নান্দেজ হার্নান্দেজকে। কিন্তু রেফারি হার্নান্দেজ হার্নান্দেজকে একদমই পছন্দ নয় রিয়ালের। বরং রেফারি হার্নান্দেজ হার্নান্দেজকে ‘চরম শত্রু’ মনে করে রিয়াল।

রিয়ালের দ্বিতীয় ক্ষোভ, এল ক্লাসিকোর আগে প্রতিপক্ষ বার্সেলোনা তাদের চেয়ে পূর্ণ একটা দিন বেশি বিশ্রাম পাবে! বুঝতেই পারছেন, রিয়ালের দুটি ক্ষোভই লা লিগা কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে। লিগ কর্তৃপক্ষের নির্ধারিত সূচিই বার্সেলোনাকে সুবিধা করে দিয়েছে। লিগ কর্তৃপক্ষই এমন একজনকে মূল রেফারি নিয়োগ করেছে, যিনি বার্সেলোনার পক্ষের লোক হিসেবেই বিবেচিত! অতীত অভিজ্ঞতার ভিত্তিতে রিয়াল অন্তত মনে করে সেটাই।

আগামী ১২ দিনের মধ্যে ৪টি ম্যাচ রিয়ালের। যার একটি মর্যাদার এল ক্লাসিকো। ন্যু-ক্যাম্পের সেই মর্যাদার যুদ্ধে নামার ৩ দিন আগে, মানে ১৫ ডিসেম্বর রোববার শক্তিশালী ভ্যালেন্সিয়ার মুখোমুখি হবে জিনেদিন জিদানের রিয়াল। মানে ভ্যালেন্সিয়ার ম্যাচটি খেলার পর ‘এল ক্লাসিকোর আগে মাত্র দুদিন, সোমবার ও মঙ্গলবার বিশ্রাম পাবে রিয়ালের খেলোয়াড়রা। এরপর বুধবারই নেমে পড়তে হবে এল ক্লাসিকোর মহারণে।

অথচ বার্সেলোনা বিশ্রাম পাবে একদিন বেশি। কারণ, লিগে বার্সেলোনা তাদের আগের ম্যাচটা খেলবে ১৪ ডিসম্বের, শনিবার। মানে এল ক্লাসিকোর আগে রোববার, সোমবার ও মঙ্গলবার, পূর্ণ ৩ দিন বিশ্রাম পাবে বার্সেলোনার খেলোয়াড়েরা। আক্ষরিক হিসেবে বার্সেলোনা আসলে ২৯ ঘণ্টা বেশি বিশ্রাম। কারণ, ১৪ ডিসেম্বর শনিবার বার্সেলোনা তাদের ম্যাচটা খেলবে সন্ধ্যায়। বিপরীতে রোববার তারও ৫ ঘণ্টা পর মানে মধ্য রাতে মাঠে নামবে রিয়াল।

স্বাভাবিকভাবেই বার্সেলোনাকে বাড়তি সুবিধা করে দেওয়ায় লিগ কর্তৃপক্ষের ওপর অসন্তুষ্ট রিয়াল। তাদের সেই অসন্তোষের আগুন আরও বেশি করে জ্বেলে দিয়েছে হোসে হার্নান্দেজ হার্নান্দেজকে মূল রেফারি নিয়োগ দেওয়ায়।

স্প্যানিশ এই রেফারি এর আগে ৪টি এল ক্লাসিকো পরিচালনা করেছেন। সেই ৪টি ম্যাচেই তিনি রিয়ালের বিরুদ্ধে বিতর্কিত সিদ্ধান্ত দিয়েছেন। এক ম্যাচে গ্যারেথ বেলের একটা গোল বিতর্কিতভাবে বাতিল করে দিয়েছিলেন। এক ম্যাচে রিয়াল অধিনায়ক সার্জিও রামোসকে লালকার্ড দেখিয়েছিলেন। আরেক ম্যাচে ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোর ন্যয্য পেনাল্টির দাবি নাকচ করে দিয়েছিলেন।

রিয়ালের ক্ষোভ, অসন্তুষ্টি, হতাশার এখানেই শেষ নয়। এল ক্লাসিকোর জন্য ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারি হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে যাকে, সেই রিকার্ডো ডি বার্গোস বেনগোয়েতক্সাকে নিয়েও অভিযোগ আছে রিয়ালের। ২০১৭ সালে সুপারকোপা ডি এস্পনার প্রথম লেগে এই রিকার্ডো ডি বার্গোস বেনগোয়েতক্সা ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোকে বিতর্কিতভাবে লালকার্ড দেখিয়েছিলেন। যার প্রতিক্রিয়ায় তাকে ধাক্কা মেরে ৫ ম্যাচ নিষিদ্ধ হন রোনালদো!

মোদ্দা কথা, এল ক্লাসিকোর পুরো রেফারিং প্যানেল নিয়েই অসন্তুষ্ট রিয়াল। সঙ্গে প্রতিপক্ষ দল ২৯ ঘণ্টা বেশি বিশ্রাম পাওয়ার বিষয়টি তো আছেই। তাছাড়া ম্যাচটাও তাদের খেলতে হবে বার্সেলোনার মাঠে গিয়ে। সব মিলে ১৮ ডিসেম্বরের ‘এল ক্লাসিকো’ নিয়ে রিয়ালের অসন্তুষ্টিটা বড়ই। মজার ব্যাপার হলো, রিয়াল যতটা অস্বস্তিতে, ঠিক ততটাই স্বস্তিতে বার্সেলোনা! সব কিছুই যে হচ্ছে তাদের পছন্দমতো!

এখন দেখার বিষয়, ম্যাচের ফলটা কাদের চাওয়া মতো হয়!

কেআর

 

ফুটবল: আরও পড়ুন

আরও