সেই লিঁ’ওর বিপক্ষে খেলছেন না নেইমার, কেন?

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৪ মে ২০১৮ | ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫

সেই লিঁ’ওর বিপক্ষে খেলছেন না নেইমার, কেন?

পরিবর্তন ডেস্ক ৩:৫৩ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২১, ২০১৮

print
সেই লিঁ’ওর বিপক্ষে খেলছেন না নেইমার, কেন?

পিএসজি ও অলিম্পিক লিঁ’ওর মধ্যকার সেই ম্যাচটির কথা মনে আছে নিশ্চয়। মনে থাকারই কথা। কারণ, যে ম্যাচে ঘটে যাওয়া ঘটনার রেশ এখনো কাটেনি, বরং নবরূপে আবার চাঙ্গা হয়েছে, সেই ম্যাচের কথা ফুটবলপ্রেমীরা ভুলবে কিভাবে! গত ১৭ সেপ্টেম্বর মৌসুমে প্রথম বারের মতো মুখোমুখি হয়েছিল পিএসজি ও অলিম্পিক লিঁ’ও। নিজেদের ঘরের মাঠে পিএসজির ২-০ গোলের জয় ছাপিয়ে বেশি আলোড়ন তুলেছিল নেইমার ও এডিনসন কাভানির মধ্যকার অহংবোধের যুদ্ধ।

ফ্রি কিক ও পেনাল্টি নেওয়া নিয়ে মাঠেই বাক-বিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েন নেইমার ও কাভানি। যে ঘটনা বিশ্ববাসীর সামনে তুলে আনে পিএসজির দুই তারকার অন্দরমহলের দ্বন্দ্বকে। সেই ঘটনা নিয়ে আলোচনা-সমালোচনা হয়েছে অনেক। তা কেন্দ্র করে গজিয়েছে নতুন নতুন গুঞ্জনের ডালপালা।

নতুন সেই গুঞ্জনের প্রসঙ্গে না-ই বা গেলাম। এতোদিন পর আবার সেই ম্যাচটিকে সামনে আসার কারণ, সেই লিঁ’ওর বিপক্ষে আজ আবার মাঠে নামছে পিএসজি। কিন্তু লিঁ’ওর মাঠে আজকের ফিরতি লেগটিতে খেলছেন না সেই ঘটনার অন্যতম নায়ক নেইমার।

কেন খেলছেন না নেইমার? কারণ ব্যাখ্যায় পিএসজির কোচ উনাই আমরি জানিয়েছেন চোটের কথা। ডান উরুর চোটই নাকি নেইমারকে ছিটকে ফেলেছে দলের বাইরে। কিন্তু পিএসজির স্প্যানিশ কোচের দেখানো এই কারণটা পুরোপুরি সন্তুষ্ট করতে পারেনি ফ্রান্সের গণমাধ্যমকে। বরং উঠে গেছে প্রশ্ন!

ফরাসি গণমাধ্যমের সংশয়মিশ্রিত প্রশ্নটা একেবারে অমূলও নয়। নেইমার ডান উরুতে হালকা চোট পেয়েছিলেন গত সপ্তাহে নতের বিপক্ষে ম্যাচে। সেই চোট কাটিয়ে গত বুধবার দিজোঁর বিপক্ষে ম্যাচটা খেলেছেনও ব্রাজিল তারকা। যে ম্যাচে পায়ের জাদু ছড়িয়ে নেইমার একাই করেছেন ৪ গোল! সতীর্থদের দিয়েও করিয়েছেন আরও দুটি গোল। মানে এক ম্যাচে মোট ৬ গোলে প্রত্যক্ষ অবদান। গড়েছেন ফ্রেঞ্চ লিগ ওয়ানের ইতিহাসের প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে এক ম্যাচে বেশি গোলে প্রত্যক্ষ অবদান রাখার অনন্য কীর্তি।

বুধবার যিনি কোনো রকম সমস্যা ছাড়াই খেললেন পুরো ম্যাচ, মাঠ ছাড়লেন সুস্থ শরীর নিয়ে, হঠাৎ করে পুরোনো চোটটা আবার মাথা চাড়া দিয়ে উঠল কিভাবে? সত্যিই কি চোটের কারণে নেইমার বাদ, নাকি দিজোঁর বিপক্ষে ম্যাচে নতুন করে বিতর্কের ঝড় তোলার কারণে?

বুদবার দিজোঁর বিপক্ষে ম্যাচটিতেই আবার নতুন করে ফিরে আসে গত ১৭ সেপ্টেম্বরের লিঁ’ওর বিপক্ষে ম্যাচের সেই বিতর্ক। না, বুধবার নেইমারকে পেনাল্টি নিতে কোনো রকম বাধা দেননি কাভানি। তবে পিএসজি পেনাল্টি পাওয়ার পরপরই কাভানিকে শট নিতে দেওয়ার দাবি তুলেন পিএসজির সমর্থকরা।

গ্যালারিতে ‘কাভানি, কাভানি’ বলে চিৎকার করার কারণও ছিল। ম্যাচে তার আগেই একটি গোল করে পিএসজির হয়ে জ্লাতান ইব্রাহিমোভিচের সর্বোচ্চ গোলের রেকর্ডটা ছুঁয়ে ফেলেন কাভানি। আর একটা গোল হলেই ইব্রাহিমোভিচকে টপকে কাভানি পিএসজির হয়ে সর্বোচ্চ গোলের নতুন রেকর্ড গড়তে পারতেন। এই রেকর্ডের জন্যই পিএসজির সমর্থকরা চেয়েছিল পেনাল্টিটা কাভানিই নিক।

তাছাড়া নেইমার তার আগেই হ্যাটট্রিক করে ফেলেছেন। সমর্থকরা তাই আশা করেছিল, রেকর্ডের কথা মনে করে নেইমারও হয়তো শটটা কাভানিকেই নিতে দেবেন।

কিন্তু সমর্থকদের চাওয়া-প্রত্যাশার দাম না দিয়ে পেনাল্টিটা নেন নেইমারই। তাতে গোলও করেছেন তিনি। কিন্তু তার এই স্বার্থবাদী আচরণে ক্ষুব্ধ পিএসজির সমর্থকেরা। ৪ গোল করার পরও তাই দুয়ো দিয়েছেন নেইমারকে! নেইমারের এই কাণ্ড পুরোনো সেই বিতর্কটাকে নতুন করে উসকে দিয়েছে।

এই অবস্থায় নেইমার দল থেকে ছিটকে পড়ার পেছনে তাই অন্য অন্য গন্ধই খুঁজে পাচ্ছে ফরাসি গণমাধ্যম।  

কেআর

 
.

Best Electronics Products



আলোচিত সংবাদ

nilsagor ad