রান্না ছাড়াও পেঁয়াজের আছে ঔষুধি গুণ

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৪ অক্টোবর ২০১৭ | ৯ কার্তিক ১৪২৪

রান্না ছাড়াও পেঁয়াজের আছে ঔষুধি গুণ

পরিবর্তন ডেস্ক ১:৩৮ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৩, ২০১৭

print
রান্না ছাড়াও পেঁয়াজের আছে ঔষুধি গুণ

রান্না মানেই তেলের পর আসে পেঁয়াজের নাম। ভাত বাদে যেকোনো রান্নায় পেঁয়াজ ছাড়া আমাদের চলে না। পেঁয়াজ দিয়ে রান্না, কতই না মজাদার। সালাদ, মুড়ি মাখা -কতো কিছুতেই যে অপরিহার্য তা অনেকেই টের পাই৷ শুধু তো খাওয়া নয়, রূপচর্চা থেকে শরীরকে সুস্থ রাখাতেও তো এর জুড়ি মেলা ভার৷ পেঁয়াজ শুধু রান্নার স্বাদই বাড়ায় না সেই সাথে আমাদের দেহের অনেক উপকার করে থাকে। চলুন তবে আজকে জেনে নেয়া যাক পেঁয়াজের স্বাস্থ্য উপকারিতা সম্পর্কে।

১. পেঁয়াজকে মনে করা হয় ন্যাচরাল পেইনকিলার৷ তাই পেঁয়াজ খেলে পিরিয়ডের ব্যথাতে উপশম হয়।

২. গলার ব্যথা হলে পেঁয়াজ ফোটানো পানি খেলে আরাম পাওয়া যায়৷

৩. আবার ঠাণ্ডায় সর্দি বা গরমে নাক থেকে রক্তপাত, এ সময় পেঁয়াজের গন্ধই হয় ম্যাজিকের কাজ করে।

৪. পেঁয়াজের রসে হলুদ মিশিয়ে তা ত্বকে লাগালে, ত্বকের দাগ ধীরে ধীরে মিলিয়ে যেতে পারে, ফিরে আসতে হারানো লাবণ্য৷

৫. অনেকেই আবার বলেন, মশা বা মৌমাছি কামড়ালে সে স্থানে পেঁয়াজ ঘষলে, তার মধ্যে থাকা সালফার এই চুলকুনি বন্ধ করে স্বস্তি দেয়৷

৬. পেঁয়াজে অবস্থিত ফাইটোকেমিক্যাল (ভিটামিন, প্রোটিন, মিনারেল) আমাদের দেহে ভিটামিন সি এর যোগান দিয়ে থাকে ও দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে। পেঁয়াজের সবুজ পাতা (পেঁয়াজ পাতা) গুলোতেও আছে প্রচুর পরিমানে ভিটামিন-এ। যা আমাদের চোখের জন্য বেশ উপকারী।

৭. পেঁয়াজে বিদ্যমান ক্রোমিয়াম আমাদের দেহে রক্তে চিনির পরিমাণ নিয়ন্ত্রণে রাখে।

৮. শত শত বছর ধরেই পেঁয়াজ আমাদের বুকের জ্বালাপোড়া ও যেকোনো ধরণের ইনফেশন সারিয়ে তুলতে সাহায্য করে। পেঁয়াজে আছে এমন উপাদান যার জন্য দেহে গ্যাস্ট্রিক আলসার হওয়ার ঝুঁকি কম থাকে।

৯. অনেকেই খবারের সাথে কাঁচা পেঁয়াজ খেতে পছন্দ করেন, যা স্বাস্থ্যের জন্য বেশ উপকারী। কাঁচা পেঁয়াজ আমাদের দেহের কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণে রাখে ও আমাদের হৃদপিণ্ড সুস্থ রাখে।

১০. পেঁয়াজের কিউরেকটিন আমাদের দেহে ক্যান্সার কোষ গঠন প্রতিরোধ করতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

তবে অনেকেই হয়তো এই বিষয়ে একমত হবেন না, কারণ সবার ওপর সব জিনিস একইভাবে কাজ করবে, এমনো তো নয়৷ তাই ব্যতিক্রম থাকবেই৷

তথ্য : কেএন

ইসি/

print
 

আলোচিত সংবাদ

nilsagor ad