কম ঘুমে স্মৃতিশক্তি কমে যাওয়ার আশঙ্কা আছে

ঢাকা, রবিবার, ২২ অক্টোবর ২০১৭ | ৭ কার্তিক ১৪২৪

কম ঘুমে স্মৃতিশক্তি কমে যাওয়ার আশঙ্কা আছে

পরিবর্তন ডেস্ক ১২:৪৯ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২২, ২০১৭

print
কম ঘুমে স্মৃতিশক্তি কমে যাওয়ার আশঙ্কা আছে

ঘুম মানে মস্তিস্কের বিশ্রাম৷ কিন্তু বর্তমান জীবনে এই ঘুমেরই দেখা মেলে না৷ প্রতিদিনের ইঁদুরদৌড়ে পিছিয়ে পড়েছে ঘুম৷ ঘুমকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে এগিয়ে গেছে টেনশন, ফ্রাস্টেশন, চাহিদা, আরো কত কী৷ ঘুমিয়ে সময় নষ্ট করতে কে চায়? তার চেয়ে খানিক্ষণ কাজ করতে ঘরে টাকা আসবে৷ ব্যাঙ্ক ব্যালেন্স বাড়লে সুখ আসবে জীবনে৷ ফলে মানুষ এখন ঘুমকে খুব একটা পাত্তা দেয় না৷ যতটুকু না হলেই নয়, ততটুকুই ঘুমাচ্ছে৷ কিন্তু জানেন কি? এই কম ঘুম আপনার স্মৃতিশক্তি কমিয়ে দিতে পারে?

অবাক লাগলেও এমনই অদ্ভুত ক্ষমতা আছে ঘুমের৷ বলছে গবেষণা৷ প্রত্যেক প্রাপ্তবয়স্ক মানুষের রাতে ঘুম ভীষণ জরুরি৷ নাহলে বয়স বাড়লে হতে পারে স্মৃতিভ্রম৷ তবে শুধু ঘুমোলে হবে না৷ ঘুম হতে হবে শান্তির৷ কোনও বিঘ্ন ঘটলে চলবে না৷ REM (rapid eye movement) কম সময়ের জন্য হলেও মুশকিল৷ এমনটা তখনই হয়, যখন কেউ ঘুমের মধ্যে স্বপ্ন দেখে৷ ঘুম কম হলে ৯ শতাংশ ক্ষেত্রে ডিমেনশিয়া হওয়া প্রবণতা দেখা যায়৷ ৮ শতাংশ প্রবণতা থাকে অ্যালঝাইমারের৷ বোস্টন ইউনিভার্সিটি স্কুল অফ মেডিসিনের ডক্টরেটের ছাত্র ম্যাথু ফেজ জানিয়েছেন, ঘুমের বিভিন্ন ধাপ অ্যালঝাইমারের বিভিন্ন ধাপের উপর প্রভাব ফেলে৷ তাঁদের গবেষণা ডিমেনশিয়ায় REM-এর মেকানিজমের উপর৷

নিউরোলজির একটি জার্নালে এই গবেষণাপত্রটি প্রকাশ পেয়েছে৷ ৩২১ জনকে নিয়ে গবেষণাটি করা হয়েছিল৷ গবেষণায় যারা অংশ নিয়েছিল, তাদের প্রত্যেকেরই বয়স ছিল ৬০৷ দেখা যায়, যাদের মধ্যে ডিমেনশিয়া আছে তাদের ঘুমের মধ্যে ব্যাঘাত ঘটে৷ তবে ডিমেনশিয়ার কারণে ঘুমে ব্যাঘাত ঘটে নাকি ঘুমে ব্যাঘাত ঘটার কারণে ডিমেনশিয়া হয়, তা এখনও পরিষ্কার নয়৷ জানিয়েছেন গবেষকরা৷

এর আগে একটি গবেষণায় দেখা গিয়েছিল, যারা প্রতিরাতে ৯ ঘণ্টার বেশি ঘুমোয়, তাদের ডিমেনশিয়া হওয়ার সম্ভাবনা প্রবল৷ অপেক্ষাকৃতভাবে যারা ৯ ঘণ্টা বা তার কম ঘুমোয়, তাদের ডিমেনশিয়া হওয়ার প্রবণতা ততটা থাকে না৷ এবার আবার গবেষণায় দেখা গেল কম ঘুমোলে ডিমেনশিয়া হওয়ার প্রবণতা থাকে৷ এনিয়ে আরো গবেষণার প্রয়োজন রয়েছে বলে জানিয়েছেন গবেষকরা৷

তথ্য : কেএন

ইসি/

print
 

আলোচিত সংবাদ

nilsagor ad