জ্যাকেট, নাকি টপ? জানুন উইন্টার ফ্যাশনের গাইডলাইন

ঢাকা, সোমবার, ২৫ জুন ২০১৮ | ১০ আষাঢ় ১৪২৫

জ্যাকেট, নাকি টপ? জানুন উইন্টার ফ্যাশনের গাইডলাইন

পরিবর্তন ডেস্ক ৫:০৮ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১৭, ২০১৭

print
জ্যাকেট, নাকি টপ? জানুন উইন্টার ফ্যাশনের গাইডলাইন

শীত চলেই আসলো, তা জানান দিচ্ছে বাতাস। অনেকেই মর্নিংওয়াক করার সময় কিংবা খুব রাতে বাড়ি ফেরার পথে গায়ে একটা হালকা জাম্পার চাপাচ্ছেন। অর্থাৎ, শুরু হয়ে গিয়েছে প্রস্তুতিপর্ব। কেউ ছুটি কাটানোর প্ল্যান বানাচ্ছেন, কেউ ঠিক করছেন কোন কোন মেলায় যাওয়া যায়! আবার কেউ এখন থেকেই নলেন গুড়ের খোঁজ শুরু করে দিয়েছেন। কিন্তু তারও আগে প্রয়োজন কিছু বেসিক প্রস্তুতির। ফ্যাশন থেকে রূপচর্চা, সবকিছুরই রইল টিপস।

উইন্টার ওয়ারড্রোস:
প্রথমেই আলমারিটা নতুনভাবে গুছিয়ে ফেলুন। ফুলস্লিভ টি-শার্ট বা একটু মোটা কাপড়ের পোশাকগুলো সামনের দিকে রাখুন। জাম্পার, সোয়েটশার্ট, উলি-কট ড্রেস, লেদার জ্যাকেট পরার আগে একটু রোদে দিয়ে নিন। তবে কলকাতার শীতে অনেক গরম পোশাকেরই প্রয়োজন পড়ে না। কোথাও বেড়াতে যাওয়ার প্ল্যান না থাকলে এমন পোশাক বার করুন, যেগুলো মিক্স অ্যান্ড ম্যাচ করে বা লেয়ার করে নতুন লুক পেয়ে যাবেন।

অ্যাসিমেট্রিক্যাল শ্রাগ, পঞ্চো, হালকা শাল— এসবেই মোটামুটি ঠাণ্ডা কেটে যাবে। হালকা শীতে ওভারঅল ডেনিমের সাজও ভালো লাগে। ঠাণ্ডা পড়লেই আমাদের নতুন শীত-পোশাক কিনতে ইচ্ছে করে। তবে শপিংয়ে যাওয়ার আগে মাথায় রাখবেন, আমাদের শহরে শীতকাল খুবই ছোট। তাই খুব দামি শীত-পোশাকে বিনিয়োগ করবেন কি না, ভেবে দেখুন।

কেনার জন্য মাউসে ক্লিক করার আগে ভেবে দেখুন, আদৌ আপনি কতটা পার্টি পার্সন। আর পার্টিতে না গেলে এই জ্যাকেট কোথায় পরবেন? ক্যারি করতে পারলে অন্য জায়গাতেও অবশ্য পরতেই পারেন। তবে কেনার আগে সেগুলো ভালো করে পরিকল্পনা করে তবে শপিং শুরু করুন।

শীতের রং:
ডার্ক শে়ড পরার সেরা সময় শীতকাল। কালো, ধূসর, অলিভ গ্রিন, মেরুন, মাস্টার্ড ইয়েলো, ম্যাজেন্টা, প্লামের মতো রঙের পোশাক পরুন। চেক্‌স, টুইড পরুন। মোনোক্রোম বা আর্থলি কালার বেশ ভালো লাগে এই সময়। তবে গাঢ় রং মানেই যে বোরিং মিউটেড প্যালেট হতে হবে, তা নয়।

মিক্স অ্যান্ড ম্যাচ করে অনেক রকম শে়ড রাখুন পুরো গেটআপে। ধূসর শেডের পোশাকের সঙ্গে কালার পপ করার জন্য রঙিন স্কার্ফ ব্যবহার করুন। অনেক সময় দিনেরবেলা গলা মুড়ে স্কার্ফ পরলে গরম লাগে। সে ক্ষেত্রে রেট্রো স্টাইলে মাথার চারপাশে স্কার্ফ পরতে পারেন।

স্টাইলিং টিপ্‌স:
বিদেশি ফ্যাশন পত্রিকা বা ফ্যাশন সাইটগুলো অন্ধের মতো ফলো করতে যাবেন না। কারণ আমাদের শহরের আবহাওয়ার কথা মাথায় রেখে তারা ট্রেন্ড তৈরি করেন না। ধরুন খুব একটা ঠাণ্ডাই পড়েনি। অথচ আপনি নি-লেংথ বুট্‌স পরে রাস্তায় বেরিয়ে পড়লেন! দেখতে হাস্যকর তো লাগবেই, গরমে অস্বস্তিও হবে।
ফ্যাশনেবল ট্রেঞ্চ কোট পরতে ইচ্ছে করলে স্লিভলেস বা একটু হালকা ফ্যাব্রিকের মধ্যে খুঁজুন। ফার কোটের বদলে ব্ল্যাঙ্কেট স্টাইল র্যা্প ব্যবহার করুন। নিটেড উলেন ড্রেস পরতে হলে শর্ট ড্রেস পরতে পারেন। টুপি বা টেলর উলেন বিনি পরতে পারেন। এই সময় দারুণ মানিয়ে যায়।

অ্যাকসেসরি
জুতোর দিকে নজর দিন। হাই বুট্‌স না হলেও অ্যাঙ্কেল বুট্‌স পরতে পারেন। নাহলে এখন নানা স্টাইলের ফ্যাশনেবল স্নিকার্স পেয়ে যাবেন। কোনোটা আবার বুট্‌সের মতোই দেখতে। ব্লক হিল্‌স পরতে পারেন। বা গ্ল্যাডিয়েটর স্যান্ডেলও এই শীত-পোশাকের সঙ্গে ভালো লাগে। পা ফাটার সমস্যা যাদের বেশি, তারা নানা রকম কিউট মোজা পরতে পারেন। নি-লেংথ উলেন মোজা বা রঙিন স্টকিংস পরারও সেরা সময় শীতকাল।

তথ্য সূত্র : বিএস

ইসি/

 
.




আলোচিত সংবাদ