ঈদ ফ্যাশনের অনুসঙ্গ এখন ছাতা

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৪ আগস্ট ২০১৭ | ৯ ভাদ্র ১৪২৪

ঈদ ফ্যাশনের অনুসঙ্গ এখন ছাতা

কামরুল হিরন ৬:৪৫ অপরাহ্ণ, জুন ১৯, ২০১৭

print
ঈদ ফ্যাশনের অনুসঙ্গ এখন ছাতা

ঈদকে ঘিরে কেনাকাটায় পুরোদমে ব্যস্ত রাজধানীবাসী। তবে এবারের কেনাকাটায় নারীদের পোশাকের সঙ্গে অত্যাবশ্যকীয়ভাবে যুক্ত হয়েছে একটি বাড়তি আইটেম। সময়ের প্রয়োজনে তারা এখন নতুন পোশাকের রঙে মিলিয়ে কিনছেন ছাতা। যেন বর্ষার ঈদে  নিজেকে ফুটিয়ে তুলতে ছাতাও একটি গুরুত্বপূর্ণ অনুসঙ্গ।

ঋতু বৈচিত্র্যে এসেছে আষাঢ়, চলছে বর্ষাকাল। গল্পের মতই আষাঢ়ের আকাশে নেই কোনো ভরসা। তার ওপর ভর করেছে জলবায়ু বিবর্তনে প্রকৃতির নানা বিরুপ আচরণ। এই বৃষ্টি তো পরক্ষণেই প্রখর রোদ। এই  রোদ-বৃষ্টি থেকে নিজেকে রক্ষার একমাত্র উপায় ছাতা মাথায় পথচলা। তাই বর্ষার এই ঈদে ছাতাও হয়ে উঠেছে যেন ফ্যাশনেরই অনুসঙ্গ। সেই সঙ্গে রজধানীর দোকানগুলোতে বেড়েছে ছাতার বেচাকেনা।

বায়তুল মোকাররম মার্কেটের সামনে অস্থায়ী এক ছাতার দোকানে দীর্ঘক্ষণ ধরে টিপ ছাতা পছন্দ করছেন একজন নারী ক্রেতা। বিক্রেতাও হাসি মুখে তাকে দেখিয়ে চলেছেন বিভিন্ন রঙের ছাতার কালেকশন। একটা ছাতা কিনতে এতো দেখার কি আছে! আর বিক্রেতাই বা বিরক্ত না হয়ে হাসিমুখ কেন! ক্রেতা নারী বলে! এসব আত্মজিজ্ঞাসার উত্তর মিলে রহিম নামে ওই বিক্রেতার সঙ্গে আলাপচারিতায়।

হাসি মুখে ওই ক্রেতাকে বিদায় দেওয়ার পর বিষয়টি জানতে চাইলে বিক্রেতা রহিম এ প্রতিবেদককে বলেন, একসঙ্গে তিনডা ছাতা লইছেন ওই আফাই তার ঈদের পোশাকের সঙ্গে মিল কইরা। এ্যাতক্ষণ ধইরা নতুন জামার সঙ্গে ছাতার রঙ মিলাইতেছিলেন ওই আফাই।       

এদিকে শ্যামলীর কয়েকটি ছাতার দোকানে গেলে জানা যায়, এবারের বর্ষা মৌসুমে তাদের ছোট সাইজের ছাতা (টিপ ছাতা) বেশি বিক্রি হচ্ছে। তবে ঈদকে ঘিরেও বেড়েছে এই ছাতা বিক্রি। দোকানে আসছেন নারী ক্রেতারা এবং কিনছেন বিভিন্ন রঙ্গের ছাতা। তবে বিক্রি কমেছে বড় সাইজ ছাতার।

শ্যামলী স্কয়ার মার্কেটে কথা হয় ছাতা কিনতে আসা পারভিন সুলতানার সঙ্গে। বেসরকারি একটি ফার্মে কর্মরত পারভিন বললেন, বর্ষার জন্য ছাতা কিনতে এসেছি। নিয়মিত অফিস করতে এটি কেনা জরুরী হয়ে পড়েছে। দোকানিকে নির্দিষ্ট রঙের ছাতা দেখাতে বলার কারণ জানতে চাইলে তিনি বলেন, ওই রঙের ড্রেস কিনেছি এবার ঈদে তাই।

এখানকার ছাতা ব্যবসায়ী নজরুর ইসলাম পরিবর্তন ডটকমকে বলেন, এখন হাল ফ্যাশনের কারণে সবাই ছোট ছাতা ব্যবহার করে। তাছাড়া ১৩০ থেকে ৫০০ টাকা দামের মধ্যে ভালো মানের ছাতা পাওয়া যায়। বড় ছাতার দাম একটু বেশি। তবে সব জায়গায় ব্যবহার উপযোগী নয় বলে এখন কেউ বড় ছাতা ব্যবহার করতে চায় না।

তিনি আরও জানান, শংকর ব্রান্ডের ছাতা সব থেকে বেশি বিক্রি হচ্ছে।

কেএইচ/

print
 
nilsagor ad

আলোচিত সংবাদ

nilsagor ad