পুরনো পোশাককে নতুনভাবে ব্যবহার করুন

ঢাকা, সোমবার, ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০ | ৪ ফাল্গুন ১৪২৬

পুরনো পোশাককে নতুনভাবে ব্যবহার করুন

পরিবর্তন ডেস্ক ২:৩০ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ০৯, ২০২০

পুরনো পোশাককে নতুনভাবে ব্যবহার করুন

শপিং করতে কার না ভালো লাগে! তবে নতুন জামাকাপড় কেনার সঙ্গে সঙ্গে বাড়িতে জমে যায় পুরনো জামার পাহাড়। তবে এইসব পুরনো জামাকে বাতিলের খাতায় না ফেলে দিয়ে ব্যবহার করতে পারেন একেবারে অন্যরকমভাবে। আজ আপনাদের জন্য রইল এক্সক্লুসিভ কিছু উপায়ের খোঁজ, যার সাহায্যে আপনি আপনার পুরনো পোশাককে অভিনবভাবে ব্যবহার করতে পারবেন নতুনের মতো করে।

প্রসঙ্গত, একটা সময় ছিল যখন আনারকলি কুর্তি ছিল ফ্যাশানে ইন। আর এখন আনারকলি স্টাইলের কুর্তি সেই অর্থে ট্রেন্ডি নয় বলে অনেকেই তা আর পরেন না। তবে ওয়ার্ড্রোব খুঁজলে সকলের কাছেই একটি আনারকলি কুর্তি খুঁজে পাওয়া যাবে। এই কুর্তি এতটাই দামী যে, তা বাতিল করতে সত্যিই গায়ে লাগবে। দরকারও নেই বাদ দেওয়ার। কেনো? কারণ এটিকে নানাভাবে আপনারা পরতে পারেন নতুন স্টাইলে।

১. ফ্লোর লেন্থ আনারকলি কুর্তি হতে পারে লেহেঙ্গা

আনারকলির ইউএসপি হল এর ঘের। কিছু কিছু আনারকলির ঘের এতটাই সুন্দর হয় যে, কোমরের অংশ যেখান থেকে ঘেরটা শুরু হচ্ছে, সেখান থেকে কেটে নিলেই তা কিন্তু একটা আস্ত লেহেঙ্গায় পরিণত হতে পারে। এরজন্য টেলারকে দিয়ে ব্লাউজের নীচের অংশ থেকে কেটে নিন। এবার কোমরের অংশে ইলাস্টিক লাগিয়ে মনের মতো করে ডিজাইনার লেস বসিয়ে নিন। তাতে করে আপনার লেহেঙ্গা দৈর্ঘ্যেও অনেকটা বেড়ে যাবে।

২. কুর্তি থেকে ব্লাউজ

অনেক আনারকলি কুর্তির বুকের কাছে কিন্তু ঠাসা কাজ থাকে, যা থেকে আপনি অনায়াসে বানিয়ে ফেলতে পারেন একটি ব্লাউজও।

সেক্ষেত্রে একইভাবে আনারকলির বুকের অংশটুকু কেটে নিয়ে, কাটা অংশ থেকে একটু চওড়া করে মানানসই ব্রোকেটের লেস লাগিয়ে নিলেই তৈরি ব্লাউজ, যা অন্য কোনো ডিজাইনার শাড়ির সঙ্গে খুব সহজেই পরতে পারবেন।

৩. আনারকলি হতে পারে প্লাজো বা সারারা

আনারকলি এখন আউট অব ফ্যাশন হয়ে গেলেও প্লাজো কিন্তু এখন খুবই ট্রেন্ডি। তাই আপনার একসময়ে প্রিয় আনারকলি থেকে খুব সহজেই কিন্তু বানিয়ে নিতে পারেন একটা সুন্দর প্লাজো বা সারারা।

এর জন্য আপনাকে যেটা করতে হবে তা হল, প্রথমে লেহেঙ্গার মতো করে আনারকালি কুর্তি থেকে কেটে নিতে হবে, তবে নিজে না চেষ্টা করে কাজটা টেলরকে দিয়ে করানোই ভালো।

এরপর কাটা অংশটি প্যান্টের মতো করে সেলাই করে নিন। আপনার প্লাজো বা সারারা তৈরি। আলিয়া ভাটের সোশ্যাল মিডিয়া পেজ ফলো করলে এমনই ডিজাইনার সারারা সেট দেখতে পাবেন।

এ তো গেল ডিজাইনার কুর্তির গল্প। তবে এমন অনেক পুরনো কুর্তি আপনার ওয়াড্রোব খুঁজলেই পাবেন যা আপনার গায়ে এখন আর হয় না। কিন্তু এর খুব সুন্দর কারুকাজের জন্য সেটা ফেলে দিতেও মন চায় না। সেক্ষেত্রে কী করবেন রইল টিপস-

৪. লং কুর্তি হয়ে উঠুক লং জ্যাকেট

স্ট্রেট-কাটের পুরনো কুর্তি (সাইড স্লিট/কাট হলেও চলবে) একেবারে মাঝ বরাবর লম্বা করে কেটে ফেলুন। এরপর কাটা অংশ ভেতরের দিকে মুড়ে সেলাই করে নিন।

তাহলে আপনার পুরনো কুর্তি পরিণত হবে স্টাইলিশ লং জ্যাকেটে।

৫. পুরনো কুর্তি হয়ে উঠতে পারে শর্ট জ্যাকেটও

শর্ট এথনিক জ্যাকেট একদিকে যেমন স্টাইলিশ তেমনই বর্তমানে তা কিন্তু খুব ট্রেন্ডিও। তাই পুরনো লং কুর্তি পরে যদি একঘেয়েমি এসে থাকে তাহলে তা থেকেই বানিয়ে নিতে পারেন শর্ট জ্যাকেট। এর জন্য প্রথমে কুর্তিটি কোমর বরাবর কেটে নিন, তারপর বুক বরাবর লম্বা-লম্বিভাবে কেটে নিন।

এরপর টেলারকে দিয়ে সেলাই করে চাইলে বোতাম বসাতেও পারেন আবার নাও বসাতে পারেন।

৬. লং কুর্তি হতে পারে টপ

অনেকসময়ে এক ঘেয়ে লঙ কুর্তি পরে পরে পুরনো হয়ে গেলে, তা কেটে-ছেঁটে শর্ট করে বানিয়ে নিতে পারেন টপ।

এরজন্য কুর্তির কোমরের অংশ বরাবর কেটে নিন লম্বা করে। এরপর কোমরের কাছে কুচি কুচি করে লেস বসিয়ে নিন। এতে করে আপনার পুরনো জামা পেয়ে যাবে এক্কেবারে নতুন লুক। এবার এই শর্ট টপ আপনি কোনো লেহেঙ্গা, প্লাজো, সারারা বা জিন্সের সঙ্গে মানিয়ে পরতে পারেন।

ইসি

 

জীবনযাত্রা: আরও পড়ুন

আরও