কমিয়ে ফেলুন বাড়তি ঝামেলা প্রতিদিনের সাজে

ঢাকা, রবিবার, ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ | ৬ ফাল্গুন ১৪২৪

কমিয়ে ফেলুন বাড়তি ঝামেলা প্রতিদিনের সাজে

পরিবর্তন ডেস্ক ১০:০৮ পূর্বাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ০১, ২০১৮

print
কমিয়ে ফেলুন বাড়তি ঝামেলা প্রতিদিনের সাজে

প্রতিদিন বাহিরে বা অফিসে যাওয়ার জন্য টুকটাক সাজগোজ করে তৈরি হতে হয় আমাদের সবাইকে। অনেকেই সাজতে পছন্দ করলেও সবাই কিন্তু প্রতিদিন সাজতে বা সব অনুষঙ্গ মিলিয়ে তৈরি হতে বিরক্ত বোধ করেন। কিন্তু বাধ্য হয়েই তাকে তৈরি হতেই হয় অন্য কোনো উপায় না থাকায়। তবে যদি আপনি ছোট ছোট কিছু টেকনিক প্রয়োগ করেন তাহলে কিন্তু আপনার ঝামেলা অনেক কমে যায়। আসুন তাহলে আজ আমরা জেনে নেই কি কি টেকনিক প্রয়োগ করলে আপনার প্রতিদিনের সাজ সজ্জায় অনেক ঝামেলা কমে যাবে।

প্রথমেই আপনার সকালেই দরকার হয়। এমন সকল জিনিস যেমন, মেকআপ বক্স, জুয়েলারি, স্কিন কেয়ার, বডি কেয়ার পোশাক এমন ভাবে রাখুন যেন সকালে উঠেই আপনি সব হাতের কাছে পান। নয়তো এগুলো আলাদাভাবে খুঁজতে যেয়েই আপনার অনেক সময় নষ্ট হয়ে যাবে।

কোন একটি গয়না বা অনুষঙ্গ বাছাই করুন একদিনের জন্য। খুব নজরকাড়া হতে হবে, তেমন তো কথা নেই। কিন্তু ছিমছাম সুন্দর কোনো একটা জিনিষই আপনার সাজের ষোলকলা পূরণ করে দিতে পারে।

চুল বাঁধতে করতে পারেন:
হেয়ারব্যান্ড বা ক্লিপ, চুলের এমন অনুষঙ্গগুলো হতে পারে আপনার সাজের উপকরণ।
রঙেঢঙে বৈচিত্র্যময় সব অনুষঙ্গ সংগ্রহে রাখতে পারেন চুলের জন্য।
খোলাচুল, পরিপাটি খোঁপা বা এলোমেলো বেণি যাই হোক আপনার কেশবিন্যাস, সাথে মানানসই একটি ব্যান্ড বা ক্লিপ আপনার সাজের মাধ্যম হয়ে উঠবে।
বর্ণিল কয়েকটি হেয়ারব্যান্ড দিয়ে কয়েক ধাপের পনিটেইলেই আপনার সাজের উচ্ছাস প্রকাশ পাবে।

হাতের সাজে:
একহাত ভরে চুড়ি পরতে পারেন একদিন।
সালোয়ার-কামিজ হোক বা জিন্স-কুর্তি, সবকিছুর সাথেই চুড়ি বা ব্রেসলেট মানিয়ে যায় বেশ।
চিকন চুড়ি পরলে হাত খানিকটা ভর্তি করেই পরুন.
একটু চওড়া ব্রেসলেটের ক্ষেত্রে একটি বা দুটি বেছে নিন।
পোশাকের রঙের বিপরীত রঙের চুড়ি অথবা ব্রেসলেট পরুন।
বড়সড় একটা আংটি গলিয়ে নিন আঙ্গুলে।
চাইলে দুই/তিনটি আংটিও পরতে পারেন, একেক রকমের।
হাতে তখন চুড়ির গোছা থাকুক বা না থাকুক, কেবল আংটিও আপনার সাজের আয়োজনে প্রভাব খাটাতে সক্ষম।

নাকের সাজ:
নাকফুল ভালো লাগে? তাহলে কিন্তু প্রায়দিনই নাকফুল পরতে পারেন আপনি। অন্য কোন গয়না ছাড়াই নাকের ডগায় একটা নাকফুলে আপনাকে স্নিগ্ধ সুন্দর লাগবে।

গলার সাজে:
একরঙা কুর্তির সাথে গলায় হরেক রঙের পুঁতির একটা মালা পরতে পারেন।
অথবা বেছে নিতে পারেন রঙিন সুতোর মাঝে ধাতব উপাদানের লকেট।
এই একটি জিনিষেই আপনি নিজেকে পুরোপুরি সাজিয়ে তুলতে পারেন একদিন।

এছাড়াও করতে পারেন:
চিরায়ত গহনা বাদ দিয়ে সাজসজ্জায় ভিন্ন কিছু যোগ করতে চাইলে তাও সম্ভব। হালের ট্রেন্ড রিস্টব্যান্ড জিনিষটা কিন্তু ফ্যাশন অনুষঙ্গ হিসেবে চমৎকার। কয়েকটি রিস্টব্যান্ডেই আপনার সাজ পূর্ণ করুন। ধারার বাইরে থেকে সবার নজর কাড়বেন আপনি।

চাইলে এবং কৌশল খাটালে সবকিছুই আপনার সাধ্যের সীমায় ধরা দেবে। এমন স্বল্প আয়োজনে নিত্যদিনের তৈরি হওয়া তবে এখন আপনার হাতের মুঠোতেই। একটু সময় নিজের জন্য ব্যয় করুন এবং সারাদিন প্রাণন্ত থাকুন।

ইসি/

 
.

আলোচিত সংবাদ

nilsagor ad