নিস্তেজ চুলে স্টাইল করবেন কীভাবে?

ঢাকা, শুক্রবার, ২৮ জুলাই ২০১৭ | ১৩ শ্রাবণ ১৪২৪

নিস্তেজ চুলে স্টাইল করবেন কীভাবে?

পরিবর্তন ডেস্ক ১২:৪৭ অপরাহ্ণ, জুলাই ১৭, ২০১৭

print
নিস্তেজ চুলে স্টাইল করবেন কীভাবে?

সোজা এবং নিস্তেজ চুলে স্টাইল করা খুবই কঠিন কাজ। এই ধরনের চুলে ফোলাভাব আনতে রীতিমতো যুদ্ধ করতে হয়। সঠিক স্টাইল বাছাই করতে না পারলে চুল নিস্তেজ এবং প্রাণহীন দেখায়। এ সমস্যা দূর করার জন্য বেশকিছু কার্যকরী পরামর্শ দেওয়া হল-

শ্যাম্পুর আগে চুলে কন্ডিশনিং করা: সাধারণত আমরা শ্যাম্পু করার পর চুলে কন্ডিশনার ব্যবহার করি। তবে যাদের চুল নিস্তেজ ও প্রাণহীন তারা শ্যাম্পু করার আগে কন্ডিশনার ব্যবহার করবেন। প্রথমে চুলে কন্ডিশনার দিয়ে ৩-৫ মিনিট পর শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এতে আপনার চুল প্রাণবন্ত ও বাউন্সি দেখাবে।

মাথার ত্বক তৈলাক্তমুক্ত রাখা: মাথার ত্বক তৈলাক্ত হলে চুলও মৃসণ হয়। মাথার ত্বক সবসময় পরিষ্কার রাখতে হবে। চুলের তৈলাক্তভাব দূর করার জন্য দিনে অন্তত দুবার শ্যাম্পু করতে হবে। চুলে ব্যবহৃত প্রোডাক্ট প্রতিদিন পরিষ্কার করতে হবে।

উপযুক্ত হেয়ারকাট বাছাই করা: সঠিক হেয়ারস্টাইল সবকিছুই অন্যরকম করে দিতে পারে। হেয়ারস্টাইলিস্টের পরামর্শ নিতে পারেন। চুলের উপযোগী হেয়ারকাট বেছে নিন যাতে করে চুল ফোলা দেখায়। এজন্য লেয়ার বা অসম কাট দিতে পারেন।

চুলে স্প্রে ব্যবহার করা: চুলে ফোলাভাব আনতে স্প্রে ব্যবহার করতে পারেন।

ড্রাই শ্যাম্পু ব্যবহার করা: চুল ফোলাতে তাৎক্ষণিক সমাধান হল 'ড্রাই শ্যাম্পু' ব্যবহার করা। চুল কয়েক ভাগে ভাগ করে গোড়ায় ‘ড্রাই শ্যাম্পু’ স্প্রে করে নিন। কয়েক মিনিট অপেক্ষা করার পর চুল আঁচড়ে নি

চুলে সরাসরি হেয়ার প্রোডাক্ট না লাগানো: কখনোই চুলে সরাসরি প্রোডাক্ট ব্যবহার করবেন না। আগে হাতে নিন। তারপর আঙুল দিয়ে চুলে লাগান। এতে কেবল প্রোডাক্টের সাশ্রয়ই নয় চুলের গঠন বিন্যাসও ঠিক থাকে।

কেমিক্যালযুক্ত প্রোডাক্ট ব্যবহার না করা: অতিমাত্রায় স্টাইলিং প্রোডাক্ট ব্যবহারে চুল পড়ে যেতে পারে। উচ্চমাত্রায় কেমিক্যালযুক্ত প্রোডাক্ট ব্যবহারে চুল রুক্ষ্ম হয়। ফলাফল চুলপড়া ও চুল দেখতে নিস্তেজ ও পাতলা হয়ে পড়ে। সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া।

বিএইচ/

print
 

আলোচিত সংবাদ