আসছে গরম চাই দুর্গন্ধহীন আন্ডার আর্ম
Back to Top

ঢাকা, শুক্রবার, ১০ জুলাই ২০২০ | ২৬ আষাঢ় ১৪২৭

আসছে গরম চাই দুর্গন্ধহীন আন্ডার আর্ম

পরিবর্তন ডেস্ক ১:৩৮ অপরাহ্ণ, মার্চ ০৪, ২০২০

আসছে গরম চাই দুর্গন্ধহীন আন্ডার আর্ম
বগলের দুর্গন্ধ দূর করতে এবং কাজের ব্যস্ততার মাঝে সারাদিনের সতেজতা ধরে রাখতে, বাসা থেকে বের হওয়ার আগে অনেকেই গোসল করে নেন। এরপরও প্রায়শই দুর্গন্ধযুক্ত বগলের জন্য লজ্জাজনক পরিস্থিতিতে পড়তে হয়। গরম আবহাওয়া ও কর্মব্যস্ত থাকার ফলে ঘেমে গিয়ে আন্ডার আর্ম থেকে বিশ্রী ঘামের গন্ধ বের হয়। পাউডার, বডি-স্প্রে ব্যবহার করেও সব সময় এই বগলের দুর্গন্ধ থেকে সহজে মুক্তি পাওয়া যায় না। তবে একটু সচেতন হলে, বাসায় বসেই সঠিক যত্নের মাধ্যমে আন্ডার আর্ম রাখা যায় দুর্গন্ধহীন।

১. বেকিং সোডা: বেকিং সোডা ময়লা দূর করার জন্য অনেক আগে থেকে ব্যবহার হয়ে আসছে। এছাড়াও আন্ডার আর্মের ঘামে যে ক্ষতিকর ব্যকটেরিয়া থাকে, তা বেকিং সোডা ব্যবহার করে প্রতিরোধ করা যায়। এটি অনেকটা ট্যালকম পাউডারের-মতো কাজ করে। তাই ঘাম হলেও সেখান থেকে দুর্গন্ধ ছড়ায় না।

কিভাবে করবেন ব্যবহার?

প্রথমে সাবান দিয়ে ভালোমতো বগল পরিষ্কার করে নিয়ে একটি তোয়াল দিয়ে মুছে ফেলুন। তারপর সেখানে শুষ্ক বেকিং পাউডার ব্যবহার করুন।

২. তুলসি পাতা: তুলসি পাতা দিয়ে বানানো চা প্রাকৃতিকভাবে অতিরিক্ত ঘাম হওয়া থেকে রক্ষা করে। প্রতিদিন এই চা পান করলে ঘাম কম হবে এবং ঘামে দুর্গন্ধ হবে না। তবে তুলসি পাতার চা দিয়ে বগল পরিষ্কার করলেও ভালো উপকার পাওয়া যায়।

কিভাবে করবেন ব্যবহার?

প্রথমে অল্প পরিমাণ তুলোর বল ঠাণ্ডা তুলসি পাতার চায়ে ভিজিয়ে নিয়ে বগলে হালকা ঘষে লাগান। এক পরতা চা লাগানোর পর না শুকানো পর্যন্ত কিছুক্ষণ অপেক্ষা করুন। এরপর আবার একই স্থানে চায়ে ভেজানো তুলো হালকাভাবে ঘষে লাগান। শেষে শুকিয়ে আসলে পানি দিয়ে ভালো করে ধুয়ে ফেলুন।

৩. শালগমের রস: আশ্চর্যজনক হলেও সত্যি যে শালগমের রস ব্যবহারের মাধ্যমে ঘামের বিশ্রী গন্ধ থেকে রক্ষা পাওয়া যায়। এটির রস ব্যবহার করলে অন্তত দশ ঘন্টার জন্য আপনার বগলের ঘাম থেকে বিশ্রী গন্ধ ছড়াবে না।

কিভাবে করবেন ব্যবহার?

শালগমের রস তুলার বলে নিয়ে আন্ডার আর্মে আলতো করে লাগান। ৫ মিঃ ম্যাসাজ-এর পর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

৪. চন্দন কাঠের গুঁড়ো: মোহনীয় সৌরভের জন্য চন্দন কাঠের জনপ্রিয়তা সব সময়ের মতো এখনো লক্ষ্য করা যায়। এটি দুর্গন্ধহীন আন্ডার আর্ম পেতে খুবই কার্যকরী ন্যাচারাল সল্যুশন।

কিভাবে করবেন ব্যবহার?

চন্দন কাঠ গুঁড়ো করে বগলে লাগান এবং প্রতিমূহুর্ত থাকুন সতেজ।

৫. আপেল সাইডার ভিনেগার: আপেল সাইডার ভিনেগার এমন একটি ভিনেগার যা তৈরি হয় আপেলের রস দিয়ে এবং অ্যাসিডিক হওয়ার কারণে এটি ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়া ধ্বংস করে আন্ডার আর্মকে দুর্গন্ধমুক্ত রাখরে পারে। ডিওডোরেন্ট-এর বিকল্প হিসেবে আপেল সাইডার ভিনেগার ব্যবহার করে প্রাকৃতিকভাবে আন্ডার আর্মকে সুরভিত রাখুন।

৬. লেবুর রস: অ্যাসিডিক বৈশিষ্ট্যের জন্য লেবুর রস আন্ডারামকে রাখে দুর্গন্ধহীন। এছাড়াও এই রস নিয়মিত ব্যবহার করলে আন্ডার আর্মের কালো দাগ ধীরে ধীরে কমে যায়।

৭. গোলাপ জল: গোলাপের মন মাতানো সৌরভের জন্য সৌন্দর্য সচেতন মানুষ সৌন্দর্যচর্চার অংশ হিসেবে বহুকাল থেকেই গোলাপ জল ব্যবহার করে আসছেন। তুলোর বল গোলাপ জলে ভিজিয়ে তা বগলে লাগিয়ে রাখুন। আন্ডারআর্মের ত্বককে মসৃণ ও কোমল রাখতে, বডি-স্প্রে ব্যবহারের পরিবর্তে গোলাপ জল ব্যবহার করুন।

সব সময় ত্বক পরিষ্কার রাখলে এবং হাওয়া চলাচল করতে পারে এমন জামা পড়লে ঘামের দুর্গন্ধ হয় না। এছাড়াও সুতি কাপড়ের জামা পরার চেষ্টা করুন। কারণ অন্য কাপড়ের চেয়ে সুতি কাপড় খুব দ্রুত ঘাম শুষে নেয়, যার ফলে দুর্গন্ধ কম হয়। কর্মব্যস্ততার মাঝেও সময় বের করে নিজের যত্ন নিন এবং বগলের দুর্গন্ধ দূর করে লজ্জাজনক পরিস্থিতি এড়িয়ে সতেজ থাকুন প্রতিদিন।

ইসি

 

: আরও পড়ুন

আরও