বসনিয়ায় যুদ্ধাপরাধের দায়ে এক নারীর ১৪ বছর কারাদণ্ড

ঢাকা, শুক্রবার, ২৭ এপ্রিল ২০১৮ | ১৩ বৈশাখ ১৪২৫

বসনিয়ায় যুদ্ধাপরাধের দায়ে এক নারীর ১৪ বছর কারাদণ্ড

পরিবর্তন ডেস্ক ৮:৪৪ পূর্বাহ্ণ, ডিসেম্বর ২৮, ২০১৭

print
বসনিয়ায় যুদ্ধাপরাধের দায়ে এক নারীর ১৪ বছর কারাদণ্ড

বসনিয়ায় ১৯৯০ সালে সংঘটিত যুদ্ধাপরাধের দায়ে এক নারীকে ১৪ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে দেশটির আদালত। বলকান যুদ্ধের সময় নানা যুদ্ধাপরাধসহ সার্ব জাতিগোষ্ঠীর ওপর নির্যাতনের অভিযোগ আনা হয় আযরা বাসিস নামক এ নারীর বিরুদ্ধে।

আদালত জানায়, বসনিয়ান-ক্রোয়েট বাহিনী কর্তৃক আটককৃতদের হত্যাসহ তাদের প্রতি নিষ্ঠুর আচরণের জন্য দায়ী আসুস। ৫৮ বছর বয়সী এ নারী বসনিয়ান-ক্রোয়েট বাহিনীর সদস্য ছিলেন। দেশটির সার্ব জনগোষ্ঠীর নাগরিকদের ওপর পাশবিক নির্যাতন চালিয়েছি এ বাহিনী।

প্রত্যক্ষদর্শীরা আদালতে স্বাক্ষ্য দেয়ার সময় বলেন, আসুস বন্দিদের কপালে জোরপূর্বকভাবে ক্রস এঁকে দিতেন, পেট্রোল পান করতে বাধ্য করতেন, হাতে ও মুখে আগুন ধরিয়ে দিতেন, এমনকি ভাঙ্গা কাচের মধ্যে হামাগুড়ি দিতে বাধ্য করতেন। বসনিয়ার আদালত জানায়, তার বিরুদ্ধে আনা সবচেয়ে মারাত্মক অভিযোগ হচ্ছে, এক বন্দি নারীকে হাত পা বেঁধে তার গলায় ছুরিকাঘাত করে হত্যা করেন আসুস।

২০১১ সালে গ্রেফতারের আগ পর্যন্ত আসুস গত ২০ বছর ধরে ছদ্মনামে যুক্তরাষ্ট্রে বসবাস করে আসছিলেন। সেখানে তার প্রতিবেশী ও বন্ধুবান্ধবরা বলেন, 'তিনি অনেক উদারমনের এবং খুব চমৎকার একজন নারী।'

১৯৯২ সালের এপ্রিলে দেশটির ডেরভেনটা শহরের উত্তরাঞ্চলে সার্ব জনগোষ্ঠীর ওপর ক্রোয়েট বাহিনীর চালানো যুদ্ধাপরাধের জন্য দায়ী করা হয় আসুসকে। বসনিয়ার যুদ্ধে প্রায় এক লাখ মানুষ নিহত হয়। ১৯৯৫ সালে মার্কিন সহযোগিতায় চার বছর ধরে চলা এ যুদ্ধের অবসান ঘটে। বিবিসির সংবাদ।

আরজি/এএস

 
.




আলোচিত সংবাদ

nilsagor ad