পারমাণবিক যুদ্ধ ঠেকিয়ে রাখার লাগামটি ছিঁড়ে গেল: জাতিসংঘ
Back to Top

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৬ মে ২০২০ | ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

পারমাণবিক যুদ্ধ ঠেকিয়ে রাখার লাগামটি ছিঁড়ে গেল: জাতিসংঘ

পরিবর্তন ডেস্ক ৯:৪৯ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ০৩, ২০১৯

পারমাণবিক যুদ্ধ ঠেকিয়ে রাখার লাগামটি ছিঁড়ে গেল: জাতিসংঘ

জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস বলেছেন, বিশ্বে সম্ভাব্য পারমাণবিক যুদ্ধ ঠেকিয়ে রাখার লাগাম ছিঁড়ে গেছে। আমেরিকা একতরফাভাবে রাশিয়ার সঙ্গে স্বাক্ষরিত ইন্টারমিডিয়েট রেঞ্জ নিউক্লিয়ার ফোর্সেস ট্রিটি বা আইএনএফ চুক্তি থেকে বেরিয়ে যাওয়ার পর এক প্রতিক্রিয়ায় গুতেরেস এ মন্তব্য করেন তিনি।

গুতেরেস শুক্রবার নিউ ইয়র্কে জাতিসংঘের সদরদপ্তরে এক সংবাদ সম্মেণে বলেন, আইএনএফ ছিল একটি গুরুত্বপূর্ণ চুক্তি যা ইউরোপে স্থিতিশীলতা প্রতিষ্ঠার পাশাপাশি শীতল যুদ্ধের অবসান ঘটিয়েছিল। এই চুক্তির অবসানে বিশ্বে পারমাণবিক যুদ্ধ ঠেকিয়ে রাখার মূল্যবান লাগামটিও ছিঁড়ে গেল। এর ফলে ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রের সাহায্যে পরমাণু অস্ত্রের হামলার হুমকি বেড়ে যাবে বলেও তিনি মন্তব্য করেন।

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও গতকাল শুক্রবার রাশিয়ার বিরুদ্ধে নিজের আগের অভিযোগের পুনরাবৃত্তি করে আইএনএফ চুক্তি থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে ওয়াশিংটনকে বের করে নেয়ার ঘোষণা দেন। পম্পেও টুইট করে এ ঘোষণা জানানোর পর পরই রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে আমেরিকার এ সিদ্ধান্তকে ‘ভুল’ আখ্যায়িত করে বলেছে, এ চুক্তি বাতিল হয়ে যাওয়ার জন্য আমেরিকা এককভাবে দায়ী থাকবে।

পার্সটুডে বলছে, দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ পরবর্তী সময়ে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র ও তৎকালীন সোভিয়েত ইউনিয়নের মধ্যে মধ্যে যে স্নায়ুযুদ্ধ বাঁধে সেটার সমাপ্তি টানতে অস্ত্র প্রতিযোগিতা নিয়ন্ত্রণের লক্ষ্যে ১৯৮৭ সালে ঐতিহাসিক আইএনএফ চুক্তি হয়েছিল। চুক্তিতে ইউরোপে পরমাণু অস্ত্রবাহী ব্যালিস্টিক ও ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র মোতায়েন করা থেকে বিরত থাকতে সম্মত হয়েছিল দুই পক্ষ।

কিন্তু চুক্তিটি বাতিল হয়ে যাওয়ার পর এখন গণবিধ্বংসী অস্ত্র প্রতিযোগিতা আবার ভয়ঙ্কর রূপ নিতে পারে বলে বিশ্লেষকরা মনে করছেন।

আরপি

 

: আরও পড়ুন

আরও