সু চিকে দেয়া পদক ফিরিয়ে নিল যুক্তরাষ্ট্রের হলোকাস্ট মিউজিয়াম

ঢাকা, সোমবার, ২৫ জুন ২০১৮ | ১১ আষাঢ় ১৪২৫

সু চিকে দেয়া পদক ফিরিয়ে নিল যুক্তরাষ্ট্রের হলোকাস্ট মিউজিয়াম

পরিবর্তন ডেস্ক ৪:৫০ পূর্বাহ্ণ, মার্চ ০৯, ২০১৮

print
সু চিকে দেয়া পদক ফিরিয়ে নিল যুক্তরাষ্ট্রের হলোকাস্ট মিউজিয়াম

মায়ানমারের নেত্রী অং সান সুচিকে দেওয়া পদক প্রত্যাহার করে নিয়ছে যুক্তরাষ্ট্রের হলোকাস্ট মেমোরিয়াল মিউজিয়াম। রাখাইনে রোহিঙ্গাদের উপর সেনাবাহিনীর অভিযান বন্ধ ও তাদের জাতিগত নিধনযজ্ঞের কথা স্বীকার না করায় এমন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানায় মিউজিয়াম কর্তৃপক্ষ।

জাদুঘর কর্তৃপক্ষ বুধবার এক চিঠিতে জানিয়েছে, ‘এটা খুবই অনুতাপের বিষয় যে, আমরা এখন এই পদক প্রত্যাহার করছি। এটি আমাদের জন্য সিদ্ধান্ত ছিল।’

সু চির পদক প্রত্যাহারের বিষয়টি জানিয়ে তার উদ্দেশে লেখা চিঠিটি নিজেদের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করেছে হলোকাস্ট মেমোরিয়াল মিউজিয়াম। এতে বলা হয়েছে, ‘সু চি ও তার দল ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমোক্র্যাসি জাতিসংঘের প্রতিনিধিদের সহযোগিতা করতে অস্বীকার করেছে, রোহিঙ্গাদের ওপর আক্রমণে ইন্ধন দিয়েছে এবং আক্রান্ত এলাকায় সাংবাদিকদের যেতে দেয়নি।’

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে নাৎসিদের হিংসার শিকারদের স্মরণে ওয়াশিংটনে যাদুঘরটি প্রতিষ্ঠিত হয়। নোবেলজয়ী উইসেল ছিলেন এই জাদুঘর প্রতিষ্ঠাতাদের একজন। জার্মান নাৎসিদের নির্যাতন থেকে বেঁচে যাওয়া উইসেলকেই প্রথম এই পদক দেওয়া হয়েছিল। তার পরে ২০১২ সালে দ্বিতীয় ব্যক্তি হিসেবে সম্মানজনক এলি উইসেল পদক দেওয়া হয়েছিল মিয়ানমারে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার সংগ্রামে দেড় দশক গৃহবন্দিত্বে কাটানো সু চিকে।

গত বছর ২৫ আগস্ট থেকে মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গা মুসলিম জনগোষ্ঠীর ওপর শুরু হওয়া জাতিগত নিধনে সাড়ে ছয় লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে।

মিয়ানমার সেনাবাহিনী ও স্থানীয় উগ্রবাদী বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের অভিযানে এখন পর্যন্ত ১০ হাজারও বেশি মানুষ নিহত হয়েছে বলে দাবি করেছে রোহিঙ্গা সংগঠকরা। লুটপাট, অগ্নিসংযোগ, জমি দখলসহ নারী ও শিশুরা নির্যাতন ও গণধর্ষণেরও শিকার হয়েছে বলে ওঠে এসেছে আন্তর্জাতিক সংস্থাসমূহের প্রতিবেদনে।

যদিও মিয়ানমারের স্টেট কাউন্সিলর নোবেল বিজয়ী অং সান সূ চি বরাবরের মতো দেশটির বিরুদ্ধে এ সকল অভিযোগ অস্বীকার করে আসছেন। সেইসাথে পরিস্থিতির জন্য রোহিঙ্গা বিদ্রোহীদের দায়ী করছেন।

বিশ্বব্যাপী নিন্দা ও প্রতিবাদের মুখেও রোহিঙ্গাদের ওপর জাতিগত নিধন বন্ধ না হওয়ায় শান্তিতে নোবেলজয়ী সু চিকে দেয়া আরও কিছু পদক প্রত্যাহার করা হয়। ব্রিটেনের দুই শহর কর্তৃপক্ষের দেয়া ‘ফ্রিডম অব দ্য সিটি অব অক্সফোর্ড অ্যাওয়ার্ড’, ‘ফ্রিডম অব দ্য সিটি অব ডাবলিন’ পদক ফিরিয়ে নেয় তারা। এছাড়া ব্রিটেনের দ্বিতীয় বৃহত্তম ট্রেড ইউনিয়ন- ইউনিসনও এক যুগ আগে সু চিকে দেওয়া সম্মান ফিরিয়ে নেয়।

আরজি/

 
.




আলোচিত সংবাদ