চীনে বিশ্ববিদ্যালয়ে বার্ষিক ক্রীড়ায় বাংলাদেশিরা প্রথম

ঢাকা, বুধবার, ২৯ জানুয়ারি ২০২০ | ১৬ মাঘ ১৪২৬

চীনে বিশ্ববিদ্যালয়ে বার্ষিক ক্রীড়ায় বাংলাদেশিরা প্রথম

ছাইয়েদুল ইসলাম, চীন ৯:৫৯ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ০৮, ২০১৯

চীনে বিশ্ববিদ্যালয়ে বার্ষিক ক্রীড়ায় বাংলাদেশিরা প্রথম

চীনের ছংছিং মিউনিসিপালিটিতে অবস্থিত ‘ছংছিং ইউনিভার্সিটি অব পোস্টস অ্যান্ড টেলিকমিউনিকেশনস’ বিশ্ববিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা-২০১৯।

বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় সব ইভেন্টের গড় মার্কে ‘টিম বাংলাদেশ’ প্রথম স্থান অধিকার করেছে।

শনিবার নিউ ইয়ার উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক স্কুলের উদ্যেগে আন্তর্জাতিক ছাত্র-ছাত্রীদের অংশগ্রহণে এই বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়।

খেলা শেষে বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার তুলে দেন বিশ্ববিদ্যালয় ভিসি চাও হুয়া। সকাল ৯টায় শুরু হয়ে দুপুর ১২টা পর্যন্ত চলে ক্রীড়া অনুষ্ঠানটি।

এই আয়োজনে বাংলাদেশি ছাত্র-ছাত্রীরা প্রথম স্থান অধিকার করে। দ্বিতীয় স্থানে পাকিস্তানি ছাত্র-ছাত্রী এবং তৃতীয় স্থান অধিকার করে ভিয়েতনাম ছাত্র-ছাত্রীরা। বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি, বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক-শিক্ষিকা, চাইনিজ ছাত্র-ছাত্রী, আন্তর্জাতিক ছাত্র-ছাত্রীরা সবাই খেলা উপভোগ করেছে।

৫ ডিগ্রি তাপমাত্রার শীতের ভোরে বাংলাদেশি ছাত্র-ছাত্রীরা দেশের প্রতি মমতা আর ভালোবাসার বহিঃপ্রকাশ ঘটে চীনের পাহাড়ে ঘেরা ছংছিং শহরে। বাংলাদেশের লাল-সবুজ পতাকাটিকে আকাশে ভাসিয়ে তোলে স্বগর্বে। বিজয়ের আনন্দে আর একটু রং ঢেলে দেয় তাদের এই বিজয়।

ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় নিজ নিজ দেশ থেকে প্রত্যেক দলে ১০ জন করে খেলোয়াড় অংশগ্রহণ করে। বাংলাদেশ দলের অংশগ্রহণকারী খেলায়াড়রা ছিলেন- তারেক আহমেদ সোহেল (টেলিকমিউনিকেশন, মাস্টার্স), মো. আব্দুল ওয়াদুদ (কম্পিউটার সাইন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং, ব্যাচেলর), মোহাম্মদ কবির (সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ারিং, ব্যচেলর), কল্পতরু রয় (ম্যানেজমেন্ট সাইন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং, মাস্টার্স), ক্যামেলিয়া চাক (কম্পিউটার সাইন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং, ব্যাচেলর), মিশকাত জাহান রাফি (কম্পিউটার সাইন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং, ব্যাচেলর), রিফাতুল হক (কম্পিউটার সাইন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং, ব্যাচেলর), মো. তরিকুল ইসলাম রুবেল (ম্যানেজমেন্ট সাইন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং, মাস্টার্স), মো. জয়নাল আবেদিন (কম্পিউটার সাইন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং, ব্যাচেলর) ও সমাপ্তি ইয়াসমিন (কম্পিউটার সাইন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং, ব্যাচেলর)।

বাংলাদেশ ছাড়াও এই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে ভারত, পাকিস্তান, আফ্রিকা, ভিয়েতনাম, ইন্দোনেশিয়া, রাশিয়া, কম্বোডিয়া, লাওস ও শ্রীলঙ্কার প্রতিযোগী দল।

এইচআর

 

প্রবাস: আরও পড়ুন

আরও