শরীয়তপুরে জমজমাট মাদক ব্যবসা, নেই প্রতিকার

ঢাকা, বুধবার, ২৫ এপ্রিল ২০১৮ | ১২ বৈশাখ ১৪২৫

শরীয়তপুরে জমজমাট মাদক ব্যবসা, নেই প্রতিকার

শরীয়তপুর প্রতিনিধি ৯:৩৩ পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ১৪, ২০১৮

print
শরীয়তপুরে জমজমাট মাদক ব্যবসা, নেই প্রতিকার

শরীয়তপুরে মাদক চোরাচালানের সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিদের তৎপরতা বেড়েই চলছে। ফলে এখানে মাদকের ব্যবসা জমজমাট হয়ে উঠেছে।

আইনশৃঙ্খলা বাহিনী নামমাত্র অভিযান পরিচালনা করে। ফলে মাদকের গডফাদাররা রয়ে যাচ্ছে ধরা-ছোঁয়ার বাইরে।

এক শ্রেণির যুবক ক্ষমতাসীন দলের নেতাদের ছত্রছায়ায় মাদক কারবারের সঙ্গে জড়িত বলে স্থানীয়রা অভিযোগ করেছেন।

তবে পুলিশের দাবি, জেলায় মাদকের ক্ষতিকর বিষয়ে সচেতনতা বৃদ্ধির জন্য কাজ করছে ‘মানিক’ (মাদক নিয়ন্ত্রণ কমিটি)। আর কারবারি ঠেকাতে নিয়মিত অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে। ফলে ইতিবাচক পরিবর্তন এসেছে।

শরীয়তপুর জেলা সদরের বিভিন্ন হাট-বাজার ও শহরের বিভিন্ন স্পটে রয়েছে মাদকের রমরমা ব্যবসা। প্রতিনিয়ত মাদক ব্যবসায়ীরা ভেদরগঞ্জ উপজেলার সখিপুর থানার নরসিংহপুর আলুর বাজার ফেরি ঘাট, মুন্সিগঞ্জ থেকে মঙ্গলমাঝির ঘাট ও মাদারীপুর থেকে আংগারিয়া বন্দর হয়ে বিভিন্ন কৌশলে মাদক আনা-নেওয়া করে। এরপর এগুলো বিভিন্ন উপজেলা ও হাট-বাজারে ছড়িয়ে দেওয়া হয়।

এ সকল মাদকের স্পটের মধ্যে রয়েছে- শরীয়তপুরের রাজগঞ্জ, আংগারিয়া, মনোহর বাজার, কোর্ট চত্বর, পাকার মাথা, চৌরঙ্গী, কোটাপাড়া প্রেমতলা, আটিপাড়া, আচুড়া, বুড়িরহাট, শিল্পকলা, পৌর বাসস্ট্যান্ড।

নড়িয়া উপজেলার কাঞ্চনপাড়া, পঞ্চপল্লী, উপশী, অনাখন্ড, পাচক, শিরঙ্গল, চাকধ, ঘড়িষার, মুলফৎগঞ্জ, বিঝারীর, ভডডা, ঈমান খোলা, গোলার বাজার, সুরেশ্বর বাজার, দিনারা বাজার ভেনপা বাজার, চেয়ারম্যান বাজার, মগর, রাজ নগর, সুজাসার, লক্ষীপুরা, কদমতলী, পণ্ডিতসার, সুরেশ্বর।

ভেদরগঞ্জ উপজেলার মহিষার, রামভদ্রপুর, সেনের বাজার, কার্তিকপুর, সাজানপুর, ভেদরগঞ্জ টেকেরহাট, এমএ রেজা কলেজের ব্রিজের পূর্বপাড়, মোল্যার বাজার, সখিপুর বাজার, গৌরাঙ্গ বাজার, চেয়াম্যান বাজার, কাচিকাটা বাজার, বালার বাজার, আলুর বাজার ফেরি ঘাট, ডিএমখালী, উত্তর তারাবুনিয়া, দক্ষিণ তারা বুনিয়া, নারায়ণপুর।

ডামুড্যা উপজেলার ডামুড্যা বাজার, মঠেরহাট, ধানকাঠি, সিধলকুড়া, আমিন বাজার, ইসলামপুর, কেওড়ভাঙ্গা, পূর্বডামুড্যা, গোডাউনঘাট।

গোসাইরহাট উপজেলার সামন্তসার, নাগেরপাড়া, কুচাইপট্রি, কোদালপুর, পট্রি, চরধিপুর হাটুরিয়া, নলমুড়ি, কালিখোলা।

জাজিরা উপজেলার মঙ্গলমাঝির ঘাট, আড়াচন্ডি মোড়, লাউখোলা, কাজিরহাট বাজার, আনন্দবাজার, বাংলা বাজার, জাজিরা বাজার, টিএন্ডটি মোড়, পালেরচর, বিলাসপুর বাজার, নাওডোবা বাজার, জয়নগর বাজারসহ বিভিন্ন এলাকা।

সূত্র জানায়, শরীয়তপুর পুলিশ সুপারের উদ্যোগে কতিপয় মাদকসেবী ও ব্যবসায়ীদের জায়নামাজ, তজবি, টুপি কিনে দেওয়া হয়েছে। তাদের নিয়মিত নামাজ আদায়ের পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

সঙ্গে পুলিশ কিছু অভিযান পরিচালনা করছে। এতে করে ছোট-খাটো কারবারি ও চালান ধরা পড়ছে। মোটা দাগের মাদকের চালান এবং গডফাদাররা থাকছেন অধরা। তারাই আবার তদবির চালিয়ে বের করে আনছেন গ্রেফতারকৃতদের। ফলে দিনকে দিন মাদকের স্বর্গরাজ্যে পরিণত হতে চলেছে শরীয়তপুর।

তবে জাজিরা থানার ওসি এনামূল হক জানান, পুলিশি অভিযানের কারণে বড় বড় মাদক ব্যবসায়ীরা এখন জেলে। এই অভিযান অব্যাহত আছে।

পালং মডেল থানার ওসি (তদন্ত) মো. হুমায়ুন কবীর জানান, মাদকের ব্যাপারে তারা জিরো টলারেন্স। কোনো তদবিরে কাউকে ছাড়ছেন না।

এমএআরআর/এইচকে/আইএম

 
.




আলোচিত সংবাদ

nilsagor ad