ফরিদপুরে সড়কে ঝরল মা-ছেলেসহ ১১ প্রাণ

ঢাকা, শুক্রবার, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০ | ৮ ফাল্গুন ১৪২৬

ফরিদপুরে সড়কে ঝরল মা-ছেলেসহ ১১ প্রাণ

ফরিদপুর প্রতিনিধি ৫:২২ অপরাহ্ণ, আগস্ট ২৪, ২০১৯

ফরিদপুরে সড়কে ঝরল মা-ছেলেসহ ১১ প্রাণ

ফরিদপুরে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় মা-ছেলেসহ ১১ জন নিহত ও অন্তত ২০ জন আহত হয়েছেন।

শনিবার বেলা ২টার দিকে ফরিদপুর সদর উপজেলার ধুলদী এবং আড়াইটার দিকে নগরকান্দা উপজেলার তালমা নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, ঢাকা থেকে গোপালগঞ্জগামী কমফোর্ট লাইন পরিবহনের একটি বাস দুপুরে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে একটি মোটরসাইকেলকে চাপা দেয়। এরপর বাসটি ধুলদী বাজার সংলগ্ন সেতুর রেলিং ভেঙে খাদে পড়ে যায়।

ফরিদপুর ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের উপ-সহকারী পরিচালক শওকত জোয়ারদার জানান, ঘটনাস্থলেই ৬ জন নিহত হন। আহত ২২ জনকে উদ্ধার করে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিলে, সেখানে আরও দু’জনের মৃত্যু হয়। এদের মধ্যে হানিফ নামে বাসটির সুপারভাইজারের নাম জানা গেছে। বাকিরা চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

এদিকে, অন্য ঘটনায় ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কের ফরিদপুরের নগরকান্দা উপজেলার তালমায় লোকাল বাস অটোরিকশাকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই তিনজন নিহত হন।

নিহতরা হলেন- রেশমা বেগম (৩০), তার ছেলে রনি (১২) ও প্রতিবন্ধী ভিক্ষুক আবুল শিকদার।

জানা গেছে, নগরকান্দা থেকে ফরিদপুরগামী আরকে ট্রাভেলসের বাসটি ঘটনাস্থলে এসে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে একটি অটোরিকশা ও পথচারীদের চাপা দেয়।

ফরিদপুরের জেলা প্রশাসক অতুল সরকার জানান, ফরিদপুর মেডিকেলে আহতদের চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। গুরুতর আহতদের প্রয়োজনে ঢাকা নেয়া হবে।

টিআইএইচ/আইএম

আরও পড়ুন...
সেতুর রেলিং ভেঙে খাদে বাস, নিহত ৬

 

সমগ্রবাংলা: আরও পড়ুন

আরও