ড্র-ই মেনে নিলেন মুমিনুল

ঢাকা, রবিবার, ২২ এপ্রিল ২০১৮ | ৯ বৈশাখ ১৪২৫

ড্র-ই মেনে নিলেন মুমিনুল

পরিবর্তন প্রতিবেদক ৬:০৮ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১২, ২০১৮

print
 ড্র-ই মেনে নিলেন মুমিনুল

দিনের তখনও প্রায় দুই সেশন বাকি। ১৫১ রানে দূরে থাকতে অল আউট প্রাইম ব্যাংক দক্ষিণাঞ্চল। অনেকেই ভেবেছিলেন তাদের বুঝি ফলোঅনে ফেলবে ইসলামী ব্যাংক পূর্বাঞ্চল। কিন্তু সবাইকে অবাক করে ব্যাটিংয়ে নামে তারা। ম্যাচ ড্রতো তখনই নিশ্চিত হয়ে যায়। এরপর বাকি থাকে শুধু আনুষ্ঠানিকতা। আর তাই করতে ২৯ ওভার ব্যাট করে পূর্বাঞ্চল। এরপর ড্র মেনে নিয়েই মাঠ ছাড়ে দুই দল। তাই অমীমাংসিত ম্যাচে আলোচনা মুমিনুল হকের নেতিবাচক মানসিকতার। ১০টি উইকেট তুলে নেওয়ার চেষ্টা করলে কি আর এমন হতো!

 

সাভারের বিকেএসপিতে প্রায় ফ্লাট উইকেটেই খেলা হয়েছে। এ ম্যাচের প্রথম ইনিংসে পূর্বাঞ্চল করেছে ৫৪৬ রান। দক্ষিণাঞ্চলের ৩৯৫ রানের স্কোরও কম নয়। মূলত এ কারণেই প্রতিপক্ষকে দেড় সেশনে অল আউট করা প্রায় অসম্ভব মনে করেই পূর্বাঞ্চলকে ফলো অন করাননি অধিনায়ক মুমিনুল হক। তার উপর আলোক স্বল্পতায় প্রতিদিনই ম্যাচ শেষ হয় নির্ধারিত সময়ের আগেই। যদিও এ বিষয়ে মুমিনুলের প্রতিক্রিয়া জানা সম্ভব হয়নি। তবে দলের অন্যতম সদস্য মোহাম্মদ আশরাফুল পরিবর্তনকে জানালেন এ কথা, ‘যে উইকেট আর ম্যাচের তখন খেলা ছিল মাত্র ২৯ ওভার (আসলে আরো বেশি) তাই আর ফলো অন করানো হয়নি।’

শুক্রবার কুয়াশার কারণে চতুর্থ দিনের খেলা শুরু হতে কিছুটা দেরি হয়। আগের দিনের ৫ উইকেটে ৩২৮ রান নিয়ে ব্যাট করতে নামে দক্ষিণাঞ্চল। শেষ ৫ উইকেট হারিয়ে আর মাত্র ৬৭ রান যোগ করতে পারে দলটি। আগের দিনের দুই অপরাজিত ব্যাটসম্যান আল-আমিন জুনিয়র ও অধিনায়ক নুরুল হাসান সোহান দুইজনই আউট হয়েছেন হাফ সেঞ্চুরির দোরগোড়ায় গিয়ে। আল-আমিন ৪৯ ও সোহান ৪৭ রানে আউট হন। ফলে ৩৯৫ রানে অলআউট হয় দলটি।

দক্ষিণাঞ্চলকে ফলো অনে ফেলার সুযোগ থাকলেও ১৫১ রানে এগিয়ে থেকে নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নামে পূর্বাঞ্চল। নিশ্চিত ড্রয়ের দিকে এগিয়ে যাওয়া ম্যাচে কিছুটা প্রাণ পায় আব্দুর রাজ্জাকের বোলিং ঘূর্ণিতে। পরপর দুই বলে উইকেট নিয়ে হ্যাটট্রিকের সম্ভবনাও জাগান তিনি। ৪১ রানের খরচায় ৩টি উইকেট তুলে নেন এ স্পিনার।

৪ উইকেটে ৯৩ রান করার পর দুই দলই ড্র মেনে নেয়। মূলত ম্যাচের দৈর্ঘ্য বাড়ে লিটন কুমার দাসের হাফসেঞ্চুরির অপেক্ষায়। তার হাফসেঞ্চুরির পরই শেষ হয় ম্যাচ। ৫১ রানে অপরাজিত থাকেন লিটন।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

পূর্বাঞ্চল ১ম ইনিংস: ৫৪৬

দক্ষিণাঞ্চল ১ম ইনিংস: ১১০.৫ ওভারে ৩৯৫ (আগের দিন ৩১৮/৫) (আল আমিন ৪৯*, নুরুল ৪৭, জিয়াউর ৭, রাজ্জাক ২, সাকলাইন ০, কামরুল রাব্বি ০; শহিদ ০/৪৩, আবু জায়েদ ০/৯০, সোহাগ ৫/৮৬, নাজমুল অপু ৩/১২৭, মুমিনুল ০/১৬, অলক ১/২৩)।

পূর্বাঞ্চল ২য় ইনিংস: ২৯ ওভারে ৯৩/৪ (ইমতিয়াজ ৫, লিটন ৫১*, মুমিনুল ১৩, ইয়াসির ১৯, আশরাফুল ০, অলক ৩*; কামরুল ১/১৯, সাকলাইন ০/২৩, রাজ্জাক ৩/৪১, জিয়াউর ০/৫, মেহেদি ০/৩, মোসাদ্দেক ০/২)।

ফল: ম্যাচ ড্র

ম্যান অব দ্য ম্যাচ: মুমিনুল হক

আরটি/ক্যাট

 
.




আলোচিত সংবাদ

nilsagor ad