কুমিল্লাকে ১৪০ রানের লক্ষ্য দিয়েছে চিটাগং

ঢাকা, সোমবার, ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ | ৭ ফাল্গুন ১৪২৪

কুমিল্লাকে ১৪০ রানের লক্ষ্য দিয়েছে চিটাগং

পরিবর্তন প্রতিবেদক ৭:৩৯ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৪, ২০১৭

print
কুমিল্লাকে ১৪০ রানের লক্ষ্য দিয়েছে চিটাগং

শুরুটা দারুণ করেছিল চিটাগং ভাইকিংস। দুই ওপেনার লুক রনকি ও সৌম্য সরকার বেশ আগ্রাসী ভঙ্গীতেই ব্যাটিং করতে থাকেন। প্রথম ৫ ওভারে স্কোরবোর্ডে যোগ করেন ৪৬ রান। কিন্তু পরের ওভারেই প্রথম বলেই আউট রনকি। এরপর দিলশান মুনাবিরাকে নিয়ে ইনিংস মেরামতের কাজ করেছিলেন সৌম্য। তবে সৌম্যর বিদায়ের পর আর সে ধারা ধরে রাখতে পারেনি মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যানরা। ফলে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৪ উইকেটে ১৩৯ রান নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয় চিটাগংকে। ফলে ১৪০ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করবে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স।

মঙ্গলবার মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে এই ম্যাচ দিয়ে মাঠে ফেরেন কুমিল্লার আইকন খেলোয়াড় তামিম ইকবাল। তার ফেরার দিনে টস জিতে চিটাগংকে প্রথমে ব্যাটিং করতে আমন্ত্রণ জানান কুমিল্লার অধিনায়ক মোহাম্মদ নবি। ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুতেই আগ্রাসী ভঙ্গীতে ব্যাট চালাতে থাকেন রনকি। মাত্র ১৯ বলে করেন ৩১ রান। ৫টি চারের সঙ্গে ১টি ছক্কায় এ রান করেন তিনি। তবে কুমিল্লার তরুণ তুর্কি সাইফউদ্দিনের বলে এলবিডব্লিউর ফাঁদে পরে সাজঘরে ফিরতে হয় তাকে।

রনকির বিদায়ের পর সৌম্য সঙ্গে জুটি বাঁধেন মুনাবিরা। স্বভাবসুলভ ব্যাটিং ছেড়ে এদিন কিছুটা ধীর গতিতে ব্যাটিং করেন সৌম্য। মুনাবিরার সঙ্গে গড়েন ৩৭ রানের জুটি। এরপর আফগান রিক্রুট রশিদ কাহ্নের বলে বোল্ড হয়ে যান সৌম্য। ৩২ বলে ২টি চার ও ১টি ছক্কায় ৩০ রান করেন এ ওপেনার। তবে সৌম্যর বিদায়ের পর কচ্ছপ গতিতে আগাতে থাকে চিটাগং। ছয় ওভারে কোন বাউন্ডারিই মারতে পারেনি দলটি। শেষ দিকে সিকান্দর রাজার ২০, মিসবাহর ১৬ ও ক্রিস জর্ডানের ১৬ রানে ভর করে ৪ উইকেটে ১৩৯ রান করে দলটি। কুমিল্লার পক্ষে ১টি করে উইকেট পান নবি, সাইফউদ্দিন, রশিদ ও ব্রাভো।  

আরটি/

 

 

 
.

আলোচিত সংবাদ

nilsagor ad